ক্রিকেট মহলে শোকের ছায়া, প্রয়াত হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার 1

আর দিন ছয়েক পর ৫৮ তে পা দিতে চলেছিলেন তিনি, কিন্তু তার আগে ইহলোক ত‍্যাগ করলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার এবং জাতীয় নির্বাচক ভি বি চন্দ্রশেখর।সূত্রের খবর অনুযায়ী পুলিশ তার মৃত্যুর কারন আত্মহত্যা বলেই সন্দেহ করছেন।

ক্রিকেট মহলে শোকের ছায়া, প্রয়াত হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার 2

যদিও এর আগে শোনা যাচ্ছিলো হার্ট এ্যটাকে মৃত্যু হয়েছিল তার।অন‍্যদিকে আরও এক সংবাদ মাধ‍্যমের দাবি তাঁকে তার ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।পুলিশের সন্দেহ আর্থিক অনটনের জন্য এমনটা করেছেন তিনি, যদিও এখনো অবধি কোন প্রকার সুইসাইড নোট উদ্ধার করা যায়নি তার ঘ‍র থেকে।

১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন চন্দ্রশেখর।সাতটি একদিবসীয় ম‍্যাচে তার স্কোর ছিলো ৮৮ রান ।একদিবসীয় ক্রিকেটে তার সর্বোচ্চ স্কোর ৫৩ এসেছিলো ১৯৮৮ তে ইন্দোরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।ম‍্যাচে ওপেনার হিসেবে অবতীর্ণ হয়েছিলেন তিনি।

প্রতারণার মামলায় গ্রেপ্তার করা হল এই ভারতীয় কোচকে, ১০ লাখ টাকা আদায়
Cricket bat and ball on green grass of cricket pitch

দেশের হয়ে বিশেষ কিছু করে উঠতে না পারলেও , ঘরোয়া ক্রিকেটে তার আক্রমনাত্মক ব‍্যাটিং ছিলো ঋতিমতো চর্চার বিষয়ে।১৯৮৮ এর ইরানি ট্রফিতে ” রেস্ট অফ ইন্ডিয়া ” এর বিপক্ষে তামিলনাড়ুর হয়ে মাত্র ৫৬ বলে শতরান করেছিলেন ,যা সেই সময় ছিলো সবচেয়ে দ্রুততম ইনিংস।প্রসঙ্গত, সেই ম‍্যাচে তার ১১৯ রানের ইনিংস তামিলনাড়ূকে ম‍্যাচ জিততে সাহায‍্য করেছিলো।

একসময় তামিলনাড়কে নেতৃত্ব দেওয়া এই ক্রিকেটার পরবর্তী সময়ে খেলেছিলেন গোয়ার হয়ে এমনকি প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে তার সর্বোচ্চ স্কোরটি ২৩৭ , এসেছিলো গোয়ার হয়ে

ক্রিকেট মহলে শোকের ছায়া, প্রয়াত হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার 3

৮১ টি প্রথম শ্রেণীর ম‍্যাচ খেলেছিলেন চন্দ্রশেখর।এছাড়া ৪১ টি ” লিস্ট এ ” গেম।যথাক্রমে করেছিলেন ৪,৯৯৯ এবং ১,০৫৩ রান।ক্রিকেট ছাড়ার পর পরবর্তী সময়ে নির্বাচকের ভূমিকায় দেখা গেছে তাকে,২০০৪ থেকে ২০০৬ জাতীয় দলের নির্বাচন প‍্যানেলে ছিলেন তিনি।২০১২ / ১৩ তে তামিলনাড়ুর কোচ হয়ে ছিলেন তিনি।আইপিএলে তিনি কাজ করেছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে ‌। এমনকি ধোনিকে দলে আনতে পালন করেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

যাওয়া কালীন রেখে গেলেন স্ত্রী এবং দুই কন‍্যাকে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *