মিতালিদের সমালোচনা করায় ট্য়ুইটারে বেইজ্জত প্রখ্য়াত মহিলা সাংবাদিক 1
Hyderabad : Indian skipper Virat Kohli with teammates walk off the field after defeating Bangladesh in the cricket test match in Hyderabad on Monday. PTI Photo (PTI2_13_2017_000158A)

কোনও রকম কারণ ছাড়াই ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের সমালোচনা করায়, সোশ্য়াল নেটওয়ার্কিং সাইট ট্য়ুইটারে বেইজ্জত হতে হল খ্য়াতনামা সাংবাদিক শোভা দেকে। মাঝেসাঝেই উল্টোপাল্টা মন্তব্য় করার জন্য় তার বদনাম আছে। এবারও কারণ সেই আলটপকা মন্তব্য় করা। মাইক্রো-ব্লগিং ওয়েবসাইট ট্য়ুইটারে আগ বাড়িয়ে নিন্দেমন্দ করতে দেখে, শোভাকে রীতিমতো তাঁর ভাষাতেই কথা শুনিয়েছে জনগণ।

দেশের নাম উজ্জ্বল করে ফেরা খেলোয়াড়দের সম্মানিত হতে বা প্রশংসা কুড়তে দেখলে ইদানিং অযথা কারণ ছাড়াই সমালোচনা করে বসছেন শোভা। গত বছর রিও অলিম্পিক থেকে দেশে ফেরার পর ভারতীয় অলিম্পিয়নদের সম্মানিত করা হয়েছিল। তখন তাঁদের পুরস্কৃত হতে দেখে সমালোচনা করেছিলেন এই খ্য়াতনামা কলামনিস্ট। বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

শোভা এবার তাঁর সমালোচনার তির শানিয়েছেন ভারতীয় মহিলা দলের ক্রিকেটারদের দিকে। ইংল্য়ান্ডে অনুষ্ঠিত সদ্য়সমাপ্ত আইসিসি মহিলা বিশ্বকাপে দারুন পারফর্ম করে মিতালি রাজের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, নিউজিল্য়ান্ড ও গতবারের চ্য়াম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল ভারত। তবে, ফাইনালে পৌঁছেও স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত করা হয়নি। যে ইংল্য়ান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের যাত্রা শুরু হয়েছিল, সেই তাদের কাছেই ফাইনালে ৯ রানে হেরে যেতে হয়। অথচ বরাবরই ম্য়াচের পাল্লা ভারতের দিকে ঝুঁকে ছিল। শেষ মুহূর্তে স্নায়ুর চাপ সামলাতে না পারায় দ্বিতীয় বারও রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ভারতকে।

মিতালিদের সমালোচনা করায় ট্য়ুইটারে বেইজ্জত প্রখ্য়াত মহিলা সাংবাদিক 2 মিতালিদের সমালোচনা করায় ট্য়ুইটারে বেইজ্জত প্রখ্য়াত মহিলা সাংবাদিক 3

বিশ্বকাপ না আনতে পারলেও দেশের মুখ উজ্জ্বল করায় ভারতের মেয়েদের প্রশংসা করতে কোনও কার্পণ্য় করেনি দেশবাসী। দেশের প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত নিজের বাসভবনে ডেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। এমনকী রেডিওতে তাঁর মন কি বাত অনুষ্ঠানে ভারতের মহিলা ক্রিকেট দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দেশের যুব সমাজেরও প্রশংসা করেন নরেন্দ্র মোদী। বিশেষ করে তুলে ধরেন, মিডিয়া প্রত্য়াশা বাড়ানো সত্ত্বেও ভারতের বিশ্বকাপ না জিততে পারার সমালোচনা করেনি দেশের মানুষ। উল্টে ইতিবাচক দিক তুলে ধরে মেয়েদের লড়াকু মানসীকতার প্রশংসা করে তাদের এগিয়ে যেতে উৎসাহ দিয়েছে দেশবাসী।

বিশ্বকাপ চলাকালীন সোশ্য়াল মিডিয়াতে দাবি উঠেছিল, মহিলা ক্রিকেটারদেরও পুরুষ দলের মতো সম্মান পাওয়া উচিত। এরপর, ফাইনালের আগেই বিসিসিআই ঘোষণা করে, দেশে ফেরার পর মহিলা দলের প্রত্য়েক ক্রিকেটারকে ৫০ লক্ষ করে আর্থিক পুরস্কার দেওয়া হবে। আর দলের সঙ্গে যাওয়া সাপোর্ট-স্টাফদের দেওয়া পবে ২৫ লক্ষ টাকা করে। দেশে ফেরার পর সেই মতো পুরস্কৃত করাও হয়। এছাড়া আরও অনেক সংস্থা মহিলা ক্রিকেটারদের সম্মান জানিয়েছে। প্রস্তাব এসেছে বিজ্ঞাপণেরও। আর তা দেখার পরই ট্য়ুইট করে ভারতীয় মহিলা দলকে হীতোপদেশ দেন শোভা। লেখেন, হায় ভগবান! বাণিজ্য়ীকরণ ও আর (অর্থের) লোভ থেকে আমাদের মহিলা ক্রিকেট দলকে রক্ষা করো। ছেলেদের ক্রিকেটে এইভাবেই অনেকে নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ট্য়ুইটার ব্য়বহারকারীদের একদমই এই অকারণ সমালোচনা পছন্দ হয়নি। রীতিমতো ট্য়ুইটেই তুলোধনা করে হয় শোভাকে। অনেকে মন্তব্য় করেন বসেন, শোভা দে কোনও দিনও ভালো লেখক নন। সবই অর্থের জন্য়। কে পড়ে ওনার লেখা? মনে হয় ওঁর বন্ধুরাই পড়েন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *