ট্যুইট ধাক্কায় বিজয়ের সূর্য আপাতত মেঘের আড়ালে 1
ট্যুইট কাণ্ডে এখন চিন্তার ভাঁজ সূর্যের কপালে

একটা মাত্র ছোট্ট ট্যুইট। আর তাঁতেই মহা ফাঁপড়ে পড়লেন কেকেআর তারকা সূর্য কুমার যাদব।

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিজয় হাজারে ট্রফির জন্য সোমবারই দল ঘোষনা করেছে মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। মিলিন্দ রেগের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিটি ১৫ জনের মধ্যে ১৪ জনের নাম ঘোষণা করেছেন। ১৫ নম্বর জায়গাটি তাঁরা বিবেচনার জন্য ছেড়ে রেখেছিলেন। এই ১৪ জনের মধ্যে মুম্বইয়ের মিডল ওর্ডার ব্যাটসম্যান তথা কেকেআর-এর সহঅধিনায়ক সূর্যকুমার যাদবের নাম ছিল না। আর সেই নিয়েই বাঁধল যত বিপত্তি। মুম্বই দলে যাদবের নাম না থাকায় এক জনৈক সাংবাদিক এই ক্রিকেট তারকাকে ট্যুইটে লেখেন, “মুম্বই নির্বাচকেরা হয়তো ভুলে গিয়েছে যে তুমি আইপিএলের চ্যাম্পিয়ন কেকেআরের সহ অধিনায়ক।” পরবর্তীকালে এই ট্যুইটটি রিপোস্ট করেই কার্যত মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের রক্ত চক্ষুর সামনে পড়তে হল কেকেআরের এই তারকাকে।

এই ঘটনার পরই নির্বাচকরা এতটাই ক্ষুব্ধ হয় যে, সোমবার দিনই তাঁকে লিখিতভাবে শোকজের নোটিস পাঠানো হয় এবং মঙ্গলবার মুম্বই ক্রিকেট সংস্থার ম্যানেজিং কমিটির কাছে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়। মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসসিয়েশনের এক সূত্র মারফৎ জানা যায়, মূলত বিগত দুটি মরশুমে ভাল না খেলতে পারা ও মুম্বই ওপেনার জয় বিস্তকে দল থেকে বাদ দেওয়ার ব্যাপারে মুখ খোলার জন্য সূর্যকে প্রথম ১৪ জনের মধ্যে রাখা হয়নি।

এমসিএ-এর যুগ্ম সচিব উন্মেষ খানভিলকর বলেন, “দলের বিরুদ্ধে সোস্যাল মিডিয়াতে সরব হওয়াটা সমীচিন নয়। যদি কিছু বলার থাকত তা কমিটির কাছে এসেও বলা যেত।” আপাতত এধরনের ট্যুইট করার জন্য লিখিতভাবে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে বোর্ডের তরফে। সেই লিখিত জবাব গ্রহণযোগ্য হওয়ার উপরই আপাতত নির্ভর করছে বিজয় হাজারেতে সূর্যর ভাগ্য।

এদিকে, চলতি মাসের ২৫ তারিখ থেকেই চেন্নাইতে শুরু হতে চলেছে বিজয় হাজারে ট্রফি। কিন্তু এই টুর্নামেন্টে সূর্য উদয় হবে কিনা তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে সূর্যের দলে না থাকা যে মুম্বইকে কিছুটা হলেও অন্ধকারে ফেলবে তা বলাই বাহুল্য।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *