TOP3: এক ওয়ানডেতে চার উইকেটের পাশাপাশি শত রানের ইনিংস খেলা ৩ ভারতীয় ক্রিকেটার 1

ক্রিকেটে একটি পরিপূর্ণ টিম গঠন করতে অলরাউন্ডারের ভূমিকা অপরিসীম। অলরাউন্ডারের মধ্যে অবশ্য পার্থক্য রয়েছে কিছুটা। কেউ কেউ ব্যাটিং অলরাউন্ডার হলেও কেউ আবার বোলিং অলরাউন্ডার। জ্যাক ক্যালিস, ল্যান্স ক্লুসনার, ডোয়াইন ব্রাভো, সাকিব আল হাসানরা রয়েছেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার হিসেবে। অন্যদিকে বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে যাদের নাম দেখা যায় তাঁরা হলেন ড্যানিয়েল ভেট্টরি, মহম্মদ হাফিজ, শন পোলকর।

এর বাইরেও আধুনিক ক্রিকেটে প্রতিটি দলই এমন কিছু ব্যাটসম্যান খুঁজে থাকে যারা কিছুটা বল করতে পারে বা এমন বোলার খুঁজে থাকে যারা দলের প্রয়োজনে ব্যাট হাতে হাল ধরতে পারে। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলে যাতে বোলিং করে পুষিয়ে দিতে পারে সেই উদ্দেশ্যেই মূলত এমন ক্রিকেটারদের দলে রাখেন নির্বাচকরা। এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছেন যুবরাজ সিং, শোয়েব মালিক, স্ট্রুয়ার্ট ব্রড, শেন ওয়ার্ন, রবি চন্দ্রন অশ্বিনরা।

এবার আমরা দেখে নেওয়া যাক এমনই তিনজন ভারতীয় ক্রিকেটার যারা একই ওয়ানডেতে বল হাতে চার উইকেট নেয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতেও হাঁকিয়েছেন সেঞ্চুরি।

১. শচীন তেন্ডুলকর (১৪১ রান এবং ৪/৩৮)

TOP3: এক ওয়ানডেতে চার উইকেটের পাশাপাশি শত রানের ইনিংস খেলা ৩ ভারতীয় ক্রিকেটার 2

ক্রিকেট বিশ্বে মূলত ব্যাটিং রেকর্ড দিয়ে পরিচিতি রয়েছে ভারতীয় লিটল মাস্টার শচীন তেন্ডুলকরের। তবে শুধু ব্যাটিং করেই তৃপ্তি না মিটা এই ক্রিকেটারের বল হাতেও নামের পাশে রয়েছে ১৫৪ উইকেট। প্রতিভাবান এই ক্রিকেটার এক ম্যাচে চার উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেছেন ছয়বার।

১৯৯৮ সালে উইলস ইন্টারন্যাশনাল কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৩টি চার এবং ৩টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ১২৮ বলে ১৪১ রানের লম্বা ইনিংস খেলেন শচীন। শচীনের এই ইনিংসের উপর ভর করে অজিদের ৩০৮ রানে লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় টিম ইন্ডিয়া।

জবাবে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া শুরুটা দারুণ করে। তবে সেই শুরুটাকে একা হাতে বস করেন লিটল মাস্টার শচীন। তাঁর স্পিন ম্যাজিকে স্টিভ ওয়াহকে ফিরিয়ে দিলে ব্যাটিং বিপর্যয় শুরু হয়। ফলাফল ভারত ম্যাচ জিতে নেয় ৪৪ রানে। শচীন দখল করেন ৩৮ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট।

২. সৌরভ গাঙ্গুলি (১৩০* রান এবং ৪/২১)

TOP3: এক ওয়ানডেতে চার উইকেটের পাশাপাশি শত রানের ইনিংস খেলা ৩ ভারতীয় ক্রিকেটার 3

বাঙালী বাবু সৌরভ গাঙ্গুলি মাঝেমধ্যেই মিডিয়াম ফাস্ট বল করে দলের জয়ে অবদান রাখতেন। বিশেষ করে যখন প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানরা দীর্ঘ জুটি গড়ে ফেলতেন তখন ব্রেক থ্রু এনে দিতেন গাঙ্গুলি। সাবেক এই অধিনায়কের বল হাতে নামের পাশে রয়েছে ১০০ উইকেট।

১৯৯৯ সালে নাগপুরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নামে ভারত। দ্রাবিড়কে সাথে নিয়ে গাঙ্গুলি জুটি গড়েন ২৩৬ রানের। এই ম্যাচে সৌরভ গাঙ্গুলি ১৬০ বল মোকাবেলা করে অপরাজিত থাকেন ১৩০ রানে। ভারতের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৮৭/৪।

জবাবে লঙ্কানরা লক্ষ্য তাড়া করতে নামলে বোলিং আক্রমণে আসেন দাদা। লঙ্কান দলের ক্যাপ্টেন রানাতুঙ্গাকে গাঙ্গুলি ফিরিয়ে দিয়ে উইকেট উৎসব শুরু করলে লঙ্কানরা শেষ পর্যন্ত ম্যাচ হারে ৮০ রানে।

ব্যাট হাতে সফল হবার পর বল হাতে ২১ রান খরচায় চার উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন সৌরভ গাঙ্গুলি।

৩. যুবরাজ সিং (১১৮ রান এবং ৪/২৮)

TOP3: এক ওয়ানডেতে চার উইকেটের পাশাপাশি শত রানের ইনিংস খেলা ৩ ভারতীয় ক্রিকেটার 4

২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের ক্ষেত্রে টিম ইন্ডিয়ার হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং প্রায় নিয়মিতই বল করতেন ঘরের মাঠে। বিশ্বকাপেও প্রায় পূর্ণ স্পেলে বল করা যুবরাজ হয়েছেন টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়।

একই ওয়ানডে ম্যাচে শতকের পাশাপাশি চার উইকেট নেয়ার তালিকায় তিনে থাকা যুবরাজ ওয়ানডে ফরম্যাটে ১১১টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে চার উইকেট নিয়েছেন তিনবার। ২০০৮ সালে ইন্দোরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে ১২২ বল মোকাবেলায় ১১৮ রান সংগ্রহ করেন তিনি। যেখানে ১৫টি চারের পাশাপাশি ছিল ২টি ছয়ের মার। তাঁর এই ইনিংস এবং ইউসুফ পাঠানের ব্যাট হাতে চমকে ইংল্যান্ডের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৯৩ রানের।

জবাবে ইংল্যান্ড ব্যাট করতে নামলে যুবরাজের ঘূর্ণিতে একে একে পরাস্ত হতে থাকে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। যুবরাজ ১০ ওভার বল করে ২৮ রান খরচায় নেন ৪ উইকেট। ভারত ম্যাচ জিতে নেয় ৫৪ রানে।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *