"আগুন পান " খেয়ে স্তব্ধ হয়ে গেলো এই তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার ! বললেন এই কথা 1

এবছর আইপিএলে একদম অন‍্য মেজাজে পাওয়া গেছিলো দিল্লি দলকে। “ডেয়ারডেভিল ” থেকে নাম বদলে “ক‍্যাপিটালস ” হওয়াই শুধু নয় , তার পাশাপাশি দলের ফর্মেও এসেছিলো বিস্ত‍র ফারাক। এইবার এই দলের নেতৃত্বের দায়িত্ব ছিলেন শ্রেয়স আইয়ার। দিল্লির এই ক্রিকেটারের মাঠের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভয়ংকর রকম এ্যক্টিভ।ভক্তদের নানান ক্রিকেট সম্পর্কিত প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি নিজের জীবনের নানা ছোটো – বড়ো মুহুর্ত সকলের সাথে ভাগ করে নেন তিনি।

"আগুন পান " খেয়ে স্তব্ধ হয়ে গেলো এই তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার ! বললেন এই কথা 2

দুরন্ত আইপিএলের মরশুম কাটানোর পর এখন খানিকটা বিশ্রামের মধ্যে সময় কাটছে এই ক্রিকেটারের।তাই সম্প্রতি মুম্বাইয়ের ডাউনটানে বিখ‍্যাত ” আগুন পান ” এর দোকানে হাজির হয়েছিলেন তার স্বাদ নিতে।এই প্রথম বার এই অদ্ভুত জিনিসের স্বাদ নিয়েছিলেন শ্রেয়স।তাই মুহূর্তটি ফ্রেম বন্দি করে রেখেছিলেন তিনি।যা পরবর্তী সময় ইন্সটাগ্রামেও শেয়ার করতে দেখা যায় তাকে‌।

"আগুন পান " খেয়ে স্তব্ধ হয়ে গেলো এই তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার ! বললেন এই কথা 3

কনাক্ট প্লেসের স্ট্রিট ফুড উপভোগ করার পাশাপাশি সেখান কার বিখ্যাত আগুন পান এর স্বাদ নিয়েছিলেন এই ক্রিকেটার।আগুন পান মুখে দিতেই খানিকক্ষন নিস্তব্ধ হয়ে গেছিলেন এই তারকা ক্রিকেটার।পরবর্তী সময়ে সেই ভিডিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় এ্যকাউন্টে শেয়ার করেন তিনি। তার ক‍্যাপশানে তিনি লেখেন আমার খাওয়া সবচেয়ে জঘন্য পান, যা আমাকে বাকরুদ্ধ করেছে ” ! ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে খুব বেশি সময় নেয়নি।

 

View this post on Instagram

 

The worst pan ever😆 Which made me speechless 😶

A post shared by Shreyas Iyer (@shreyas41) on

এবছর দিল্লির দলের কোচের দায়িত্বে ছিলেন রিকি পন্টং, এবং মেন্টরের ভূমিকায় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।এমন দুইজন ক্রিকেট মস্তিষ্ক যখন একই জায়গায় থাকবেন তখন সেই দল যে ভালো পারফরম্যান্স করবে সেটাই প্রত‍্যাশিত।অন‍্যবারের মতো ব‍্যর্থতা নয় ,বরং গোটা টুর্নামেন্টে দারুন খেলে শেষে সেমিফাইনালে হেরে এবছর আইপিএলে তিন নম্বর স্থানে শেষ করেছিলো দিল্লি।গোটা টুর্নামেন্টে দারুন অধিনায়কত্ব করার পাশাপাশি ব‍্যাটিংয়েও দলকে নির্ভরতা দিয়েছিল আইয়ার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *