অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগেই খারাপ খবর ভারতীয় শিবিরে, স্বজনকে হারালেন এই তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার 1

ইতিমধ্যে ভারতীয় দল তৈরি হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কঠিন সিরিজ জেতার জন্য। আগামী ২৭ নভেম্বর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাদের ঘরের মাঠে নামবে টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু তার আগেই খারাপ সংবাদ এসে পড়ল ভারতীয় শিবিরে। অত্যন্ত হৃদয় বিদারক একটি খবর পেয়েছেন ভারতীয় দলের এই তারকা ক্রিকেটার।

Indian Cricket Team

শুক্রবার হায়দ্রাবাদে ফুসফুস জনিত সমস্যায় মারা যান ভারতীয় দলের তারকা পেসার মহম্মদ সিরাজের পিতা মহম্মদ ঘৌস। ৫৩ বছর বয়সেই মারা গিয়েছেন মহম্মদ ঘৌস। এই মুহুর্তে ভারতীয় দলের সাথে অস্ট্রেলিয়ায় জৈব সুরক্ষা বলয়ে রয়েছেন সিরাজ। আর এর ফলে বলয় ভেঙে বাবার শেষকৃত্যে অংশ নিতে পারবেন না সিরাজ, যা আরও কষ্টের।

Mohammed Siraj

জনপ্রিয় ক্রীড়া পত্রিকা স্পোর্টসস্টার এর রিপোর্ট অনুযায়ী, সিডনিতে অনুশীলনের পর্ব সেরে ওঠার পরেই পিতার প্রয়াণের খারাপ খবর পান সিরাজ। আর খবর পেয়েই শোকার্ত হয়ে ওঠেন এই তারকা পেসার। স্পোর্টসস্টারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পিতার প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য জ্ঞাপন করেন সিরাজ। মহম্মদ সিরাজ স্পোর্টসস্টারকে জানিয়েছেন যে, তার পিতা সবসময় ভরসা রাখতেন যে সিরাজ একদিন বড় নাম করবে দেশের জন্য। পাশাপাশি পিতার প্রয়াণের ফলে তার জীবনের সবথেকে বড় সাপোর্ট চলে গেল, সে নিয়েও শোকপ্রকাশ করেন সিরাজ।

Mohammed Siraj's father dies, cannot go for final rites due to COVID  restrictions in Australia

স্পোর্টসস্টারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সিরাজ বলেছেন, “আমার বাবার সব সময় এই ইচ্ছা ছিল যে তার ছেলে দেশের নাম উজ্জ্বল করবে। আর আমি সেই কাজটিই করব। খবরটা খুবই অবাক করে দেওয়ার মত। আমার জীবনের সবথেকে বড় সাপোর্টকে আমি হারালাম। ওনার স্বপ্ন ছিল আমাকে দেশের হয়ে খেলতে দেখার আর সেক্ষেত্রে আমি খুশি যে সেই কাজটি করে আমি আমার বাবাকে খুশি দিয়েছি।”

Mohammed Siraj's father passes away due to lung ailment; pacer to remain  with India squad in Australia - Firstcricket News, Firstpost

এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের হয়ে আইপিএল খেলার সময়ই মহম্মদ সিরাজ জানিয়েছিলেন যে তার পিতা অসুস্থ। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে সেই দুরন্ত বোলিং স্পেলের পর আরসিবির ভিডিও বার্তায় নিজের পিতার অসুস্থতা এবং সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেন সিরাজ। তিনি বলেছিলেন, “গত কয়েক দিন ধরে আমার বাবা খুব অসুস্থ। ওনার ফুসফুসের অবস্থা অত্যন্ত খারাপ আর তার ফলে ওনার শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে। আমি এই নিয়ে খুব চিন্তায় রয়েছি। এই অবস্থায় আমি বাড়িও যেতে পারছি না ওনার সাথে দেখা করা বা মনোবল বাড়ানোর জন্য। আমি ফোনে বাবার সাথে কথা বলি, কিন্তু কথা বলতে বলতেই উনি কেঁদে দেন। এর জন্য আমি ওনার সাথে বেশিক্ষণ কথাও বলতে পারি না কারণ আমি ওনাকে কাঁদতে দেখতে পারি না। তাই আমি আগেভাগেই ফোন রেখে দিই কারণ আমি নিজেকে বেশিক্ষণ সামলাতে পারব না। তাই আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যাতে তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন। গত ম্যাচের আগে উনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। আমি খুবই চিন্তায় ছিলাম যখন শুনি আমার বাবা হাসপাতালে ভর্তি।” 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *