৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম

একজন মানুষ নিজের জীবনে একদিন না একদিন জীবনভরের করা কাজকে ছেড়ে দেন অর্থাৎ নিজের প্রফেশন থেকে অবসর নেন। সকলের স্বপ্ন থাকে যে তার অবসর একটা স্মরণীয় ঢঙে হোক। ক্রিকেট খেলার কথা বলা হলে যখন কোনো তরুণ খেলোয়াড় নিজের দেশের হয়ে কেরিয়ার শুরু করে তো তাদেরও স্বপ্ন থাকে যে তারা নিজের কেরিয়ারকে ভীষণই স্মরণীয়ভাবে বিদায় জানাবেন।

এই ৫জন ক্রিকেটার যখন বিদায় নেন তো পরিবেশ হয়ে যায় আবেগী

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 1

ক্রিকেট জগতে এক সে এক মহান খেলোয়াড়রা নিজের প্রভাবশালী কেরিয়ার তৈরি করেছেন। এমনিতে প্রত্যেক ক্রিকেটার এটাই ভাবেন যে তার কেরিয়ার ভীষণই ভালো হোক আর শেষে যখন তিনি এই খেলাটা ছাড়বেন তো সকলের মনেই তার এই খেলা ছাড়ার দুঃখ পরিস্কার দেখা যাক। যদিও এমনটা প্রত্যেক ক্রিকেটারের কেরিয়ারে হয়নি। ক্রিকেট জগতের কিছু মহান খেলোয়াড় থেকেছেন তারা যখন নিজের কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছেন তো মাঠ আর মাঠের বাইরে সকলকেই আবেগি দেখা গিয়েছে, আর এমন পরিবেশ হয়েছে যে তার এই মুহূর্তটার অনুভব হয়ে যাবে।

ব্রায়ান লারা

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 2

ওয়েস্টইন্ডিজের ক্রিকেট দল যতই আজকের সময়ে নিয়মিত পেছিয়ে পড়ছে কিন্তু এই দলের হয়ে এমন একটা সময় ছিল যখন এক সে এক বড়ো তারকা খেলোয়াড়রা এই দলের অংশ থেকেছেন। ওয়েস্টইন্ডিজ ক্রিকেট দলে সেই মহান খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন ব্রায়ান লারাও ছিলেন। ওয়েস্টইন্ডিজের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারার এক ভীষণই অভূতপূর্ব যোগদান থেকেছে। তিনি ওয়েস্টইন্ডিজের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়ানডে হোক বা টেস্ট দুটিতেই ভীষণই প্রভাবশালী প্রদর্শন করেছেন। তার এই যোগদানে এই ওয়েস্টইন্ডিজ জানতে পেরেছে যে তার দলে কতটা গুরুত্ব ছিল। এই অবস্থায় যখন ব্রায়ান লারা নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানা তো মাঠে ভীষণই আবেগঘন মুহূর্ত তৈরি হয়ে যায় যখন সমর্থকদের মনে তার যাওয়ার দুঃখ পরিস্কারভাবে দেখা গিয়েছিল।

মুথাইয়া মুরলীধরণ

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 3

ক্রিকেট জগতে যখনই বোলারদের উল্লেখ হয় তো তাতে বেশকিছু মহান বোলারদের নাম সামনে আসে। মহা বোলারদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার শেন ওয়ার্নের সঙ্গগে একজন বোলারের নাম সবসময়ই যুক্ত থেকেছে আর তিনি হলেন শ্রীলঙ্কার মহান স্পিনার মুথাইয়া মুরলীধরণ। মুথাইয়া মুরলীধরণ টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়া বোলার থেকেছেন। মুরলীধরণ নিজের টেস্ট কেরিয়ারে মোট ৮০০ উইকেট নিয়েছেন। তিনি যেভাবে নিজের বোলিংয়ে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করেছিলেন তেমনটা খুবই কম বোলার করতে পারতেন। মুরলীধরণ নিজের শেষ ম্যাচ ২০১১র বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ খেলেছেন, কিন্তু এই ম্যাচ হারের কারণে স্মরণীয় থাকেনি। তাও এই মুহূর্তটি নিজেদের মহান বোলারদের শেষ ম্যাচ হওয়ার কারণে শ্রীলঙ্কার জন্য সত্যিই আবেগী ছিল।

লাসিথ মালিঙ্গা

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 4

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল বেশকিছু অসধারণ খেলোয়াড় দিয়েছে। এই খেলোয়াড়দের মধ্যে কিছু নাম এমন ছিলেন যারা সত্যিই অসাধারণ ছিলেন। শ্রীলঙ্কার এমন খেলোয়াড়দের কথা বলা হলে তাদের জোরে বোলার লাসিথ মালিঙ্গার নাম ভীষণই সম্মানের সঙ্গে নেওয়া হয়। লাসিথ মালিঙ্গা নিজের কেরিয়ারে যে ধরণের যোগদান শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট দলের হয়ে দিয়েছেন তা কখনো ভোলা যাবে না। লাসিথ মালিঙ্গা এখন যতই নিজের টি-২০ কেরিয়ারকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিন কিন্তু তিনি গত বছর নিজের ওয়ানডে আর টেস্ট কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলা হওয়া নিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচে মালিঙ্গাকে ভীষণই স্মরণীয় বিদায় জানানো হয়। এই অবসরে তার সমর্থকরা এবং তার পরিবার ভীষণই আবেগী হয়ে গিয়েছিলেন।

সৌরভ গাঙ্গুলী

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 5

ভারতীয় ক্রিকেট জগতে এক সে এক মহান আর অসাধারণ ক্রিকেটার এসেছেন। ভারতের মহান ক্রিকেটারদের বা মহান ব্যাটসম্যানদের কথা যখনই ওঠে তো তাতে শচীন তেন্ডুলকর আর রাহুল দ্রাবিড়ের সমকালীন সৌরভ গাঙ্গুলীর নামও শামিল থাকে। ভারতের প্রাক্তন মহান অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীর ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য ভীষণই যোগদান থেকেছে। গাঙ্গুলী না শুধু নিজের ব্যাটিংয়ে বরং নিজের অধিনায়কত্বে কারণেও সকলের পছন্দের ছিলেন। সৌরভ গাঙ্গুলী ভারতীয় দলের হয়ে যে ভূমিকা পালন করেছেন তার পর তিনি নিজের কেরিয়ারকে ২০০৮এ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ করেন তখন তার বিদায় দেখার মতো ছিল। গাঙ্গুলীর বিদায়ী টেস্ট ম্যাচের দিন নাগপুরে ধোনি নিজের জায়গায় কিছু ওভার তাকে নেতৃত্ব দিতে দেন। তাকে সম্মান জানাতে এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। ম্যাচের শেষ হওয়ার পর গাঙ্গুলীকে আবেগী বিদায় জানানো হয়।

শচীন তেন্ডুলকর

৫ জন খেলোয়াড় যাদের বিদায়ী ম্যাচে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পুরো স্টেডিয়াম 6

ক্রিকেট জগতে যখনই সবচেয়ে মহান খেলোয়াড়ের কথা হয় তো এমনিতে এক সে এক নাম সামনে উঠে আসে, কিন্তু সেই নামগুলির মধ্যে যিনি সর্বশ্রেষ্ঠ থেকেছেন তিনি হলেন মাস্টার-ব্লাস্টার শচীন তেন্ডুলকর। শচীনের নাম মনে আসতেই ক্রিকেটের মহানতার অনুভব হয়ে যায়। শচীন তেন্ডুলকর ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে সেরা ব্যাটসম্যান যিনি এই খেলাকে নিজের ২৪ বছর দিয়েছেন। তিনি নিজের কেরিয়ারে বেশকিছু ঐতিহাসিক রেকর্ড স্থাপন করেছেন। শচীন তেন্ডুলকরকে এই কারণে ক্রিকেট খেলার সবচেয়ে বড়ো রেকর্ড পুরুষ বলা হয়ে থাকে। তিনি নিজের খেলায় সবচেয়ে বেশি রানও করেছেন। শচীন যখন ২০১৩ সালে ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলে নিজের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অবসর নেন তো সকলের চোখে জল চলে এসেছিল। এটা সেই মুহূর্ত ছিল যা ক্রিকেট জগত এর আগে কখনও দেখেনি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *