গোটা বিশ্বে ক্রিকেট খেলাটি বেশ জনপ্রিয়। ভিন্ন ফর্ম্যাটের এই খেলায় অর্থ উপার্জনের যেমন সুযোগ রয়েছে তেমনই রয়েছে নিজের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে পুরো বিশ্বের কাছে নিজেকে পরিচিত করানোর সুযোগও। সব ক্রিকেটারের লক্ষ্য থাকে জাতীয় দলে খেলার। আর জাতীয় দলে খেলতে পারলেই একজন ক্রিকেটারের জীবনের পূর্নতা আসে। তবে এর জন্য প্রয়োজন কঠোর পরিশ্রম আর নিয়মিত পারফর্ম করা। কারণ জাতীয় দলে সুযোগ পেতে হলে কঠিন প্রতিযোগীতার মুখোমুখি হতে হয় একজন ক্রিকেটারকে। তাই জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার, অনেকটা সোনার হরিণ ধরার মতো। তবুও এমন অনেক সফল ক্রিকেটার আছেন যারা শুধু একটি নয়, দুটি দেশের জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন এবং তারা তাদের মেধা এবং নিজেকে সফল ক্রিকেটার হিসেবে প্রমাণ করেছেন। তবে এমন খেলোয়াড়ের সংখ্যা কিন্তু খুব বেশি নয়, বলতে গেলে হাতেগোনা কয়েকজন মাত্র। আজ পাঠকদের এমন কিছু সফল খেলোয়াড়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে।

ইয়ন মর্গ্যান

জন্মসূত্রে আইরিশ ইয়ন মর্গ্যান ওয়ান ডে খেলেছেন আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড দু’দলের হয়েই। ২০০৬ সালে আয়ারল্যান্ডের জার্সিতে স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে অভিষেক হয় তার। আইরিশদের হয়ে ২৩টি ওয়ান ডে খেলা মর্গ্যান ২০০৯ সালে জার্সি বদলে হয়ে যান ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়। আয়ারল্যান্ডের হয়ে ২০০৭ এবং ইংলিশদের হয়ে ২০১১ ও ২০১৫ বিশ্বকাপ খেলা এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বর্তমানে ইংল্যান্ডের ওয়ান ডে ও টি-২০ দলের নিয়মিত সদস্য এবং এই দুই ফর্ম্যাটে দলকে নেতৃত্বও দিচ্ছেন অনেকদিন ধরে।

এড জয়েস

এড জয়েস ডাবলিনে জন্মগ্রহণকারী একজন আইরিশ ক্রিকেটার। তিনি আয়ারল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। বাঁ হাতি ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত এড জয়েস মাঝে-মধ্যে ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিং করে থাকেন। তাকে আয়ারল্যান্ডের ক্রিকেটের ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্রিকেটারের তকমা দেওয়া হয় ।

কেপলার ওয়েসেলস

প্রাক্তন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক কেপলার ওয়েসেলস হলেন ইতিহাসের প্রথম এবং একমাত্র খেলোয়াড় যিনি টেস্ট এবং ওয়ান ডে, দুই ফর্ম্যাটেই ভিন্ন দুটি দেশের হয়ে খেলেছেন। আশির দশকে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মোট ২৪টি টেস্ট এবং ৫৪টি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছেন ওয়েসেলস। ১৯৯২ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার সমস্ত নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে তখন নিজের দেশের হয়েও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলেন তিনি। প্রোটিয়াদের হয়ে তিনি খেলেছেন ১৬টি টেস্ট এবং ৫৫টি ওয়ানডে।

বয়েড রেনকিন

বয়েড রেনকিন উত্তর আয়ারল্যান্ডে জন্মগ্রহণকারী একজন ক্রিকেটার। তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আঙিনায় ইংল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড, দুটি দেশের হয়েই ওয়ানডে ক্রিকেট খেলছেন। ক্রিকেট খেলায় তিনি মূলত ডানহাতি মিডিয়াম ফাস্ট বোলার হিসেবে নিজের দায়িত্ব পালন করছেন।

লুক রঞ্চি

Image result for luke ronchi

নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে সব ফর্ম্যাটে ক্রিকেট খেলা উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লুক রঞ্চির কেরিয়ারের শুরুটা হয় অস্ট্রেলিয়ার হলুদ জার্সিতে। ২০০৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ১টি টি-২০ ও ৪টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন তিনি।

ডার্ক ন্যানেস

নেদারল্যান্ডসের কমলা জার্সিতে টি-২০ অভিষেক হওয়া বাঁ হাতি ফাস্ট বোলার ডার্ক ন্যানেস ২০০৯ সালের আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-২০ আসরে দুটি ম্যাচ খেলেছিলেন। একই বছর তার ওয়ান ডে অভিষেকও হয়েছিল, তবে সেটা অস্ট্রেলিয়ার হলুদ জার্সিতে। পরবর্তী সময়ে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৫টি-২০ ম্যাচও খেলেছেন তিনি।

রোয়েলফ ভ্যান ডার মারউই

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ওয়ান ডে ও টি-২০ খেলা প্রাক্তন বাঁহাতি স্পিনিং অলরাউন্ডার রোয়েলফ ভ্যান ডার মারউই। তিনি প্রোটিয়াদের হয়ে ১৩টি টি-২০ খেলার পাশাপাশি নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলের হয়ে ইতিমধ্যেই ৮টি টি-২০ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন।

ইফতিখার আলী খান পতৌদি

দুটি ভিন্ন দেশের হয়ে খেলা ক্রিকেটারের অন্যতম উল্লেখযোগ্য উদাহরণ হলেন নবাব ইফতিখার আলী খান পতৌদি। ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মনসুর আলী খান ওরফে ‘টাইগার’ পতৌদির বাবা ইফতিখার আলী খান পতৌদি ভারতের হয়ে খেলার আগে টেস্ট ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করেছেন ইংল্যান্ডের হয়ে।

আবদুল হাফিজ কারদার

পঞ্চাশের দশকে খেলা পাকিস্তানের প্রাক্তন টেস্ট অধিনায়ক আবদুল হাফিজ কারদারের অভিষেক হয়েছিল ১৯৪৬ সালে ভারতের হয়ে। তিনি ভারত ও পাকিস্তান, দুটি দেশের হয়েই খেলেছিলেন।

গুল মুহাম্মদ

আবদুল হাফিজ কারদারের মতো ভারত ও পাকিস্তান, দুটি দেশের হয়েই খেলেছেন গুল মুহাম্মদ।

আরও পড়ুন

ভারতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী হবেন দল থেকে বাদ, ইনি নিতে পারেন তার জায়গা

ভারতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী হবেন দল থেকে বাদ, ইনি নিতে পারেন তার জায়গা
বিশ্বকাপ ২০১৯এ তো ইংল্যান্ড নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে এই খেতাব জিতে নিয়েছে। এই টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ড আর নিউজিল্যাণ্ড জয়ের দুই...

মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে খেলতে চান এই বাংলাদেশী খেলোয়াড়

মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে খেলতে চান এই বাংলাদেশী খেলোয়াড়
একটি প্রচলিত হিন্দি প্রবাদ ‘ঘর কি মুরগী ডাল বরাবর’ আজকাল এটা প্রায় সঠিকভাবে বসছে মহেন্দ্র সিং ধোনির...

বিসিসিআই নতুন প্রধান কোচ আর সাপোর্ট স্টাফের জন্য চাইল আবেদনপত্র, রাখা হয়েছে এই শর্ত

ভারতীয় দলের সাপোর্ট স্টাফদের কার্যকাল বিশ্বকাপের সঙ্গেই শেষ হয়ে গিয়েছে। বিসিসিআইয়ের তরফে সকলকেই ৪৫দিন পর্যন্ত এক্সটেনশন দেওয়া...

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের হিরো হওয়া বেন স্টোকস পাবেন ‘স্যার’ উপাধি, হবেন স্যার বেন স্টোকস

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের হিরো হওয়া বেন স্টোকস পাবেন ‘স্যার’ উপাধি, হবেন স্যার বেন স্টোকস
বিশ্বকাপ ২০১৯ ইংল্যান্ড আর ওয়েলসে খেলা হয়েছে। এই বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ লর্ডসের মাঠে ইংল্যান্ড আর নিউজিল্যাণ্ডের মধ্যে...

বিশ্বকাপের সঠিক ভবিষ্যতবাণী করা জ্যোতিষী রাহুল দ্রাবিড়ের ছেলের জন্য করলেন এই ভবিষ্যতবাণী

বিশ্বকাপের সঠিক ভবিষ্যতবাণী করা জ্যোতিষী রাহুল দ্রাবিড়ের ছেলের জন্য করলেন এই ভবিষ্যতবাণী
বিশ্বকাপ ২০১৯ ইংল্যান্ড আর ওয়েলসে খেলা হয়েছে। এই বিশ্বকাপে ভারতীয় দল সেমিফাইনাল পর্যন্ত সফর করেছিল। সেমিফাইনালে ভারতীয়...