বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 1
Getty Images

সারাবিশ্বে ছড়িয়ে থাকা কোটি ক্রিকেটভক্তরা চেয়ে থাকেন বিশ্বকাপ আসরে চোখ বুলানোর জন্য। চার বছর পর পর সারাবিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমিদের আনন্দ দান করার লক্ষ্যে ক্রিকেটাররাও মুখিয়ে থাকেন বিশ্ব আসরে নিজ দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য। ব্যাট-বলের এই লড়াইয়ে অংশ নেওয়া দলগুলো যেমন তাঁদের সেরাটা ঢেলে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকে তেমনই ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের দিকেও বিশেষ দৃষ্টি রাখেন বহু ক্রিকেটার।

এখন পর্যন্ত ক্রিকেট বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বমোট ১৬৫টি সেঞ্চুরি হয়েছে। ১৫ দেশের ১০৩ জন ক্রিকেটার মিলে এই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। যার মধ্যে লিটল মাস্টার শচীন সর্বোচ্চ ৬টি ও অস্ট্রেলিয়ার রিকি পন্টিং ও লঙ্কান গ্রেট সাঙ্গাকারা ৫টি করে সেঞ্চুরি করেছেন।

এখন দেখে নেওয়া যাক বিশকাপ আসরের ফাইনালে সেরা পারফরম্যান্স করা ৫ জন ক্রিকেটারের তালিকা।

১. স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড

বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 2

১৯৭৯ সালের বিশকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩৮ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেন রিচার্ড। ১৯৭৯ সালের এই ফাইনাল ম্যাচে উইন্ডিজের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড টস জিতে উইন্ডিজকে ব্যাটিংয়ে পাঠালে প্রথম দিকেই খেই হারায় উইন্ডিজ। উপরের সারির দুই ব্যাটসম্যান পর পর আউট হলে দলের হাল ধরেন রিচার্ড। তাঁর ১৫৭ বলে ১৩৮ রানের উপর ভর করে স্কোরবোর্ডে ২৮৬ রান তোলে উইন্ডিজ। আর তা লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পেরে উঠেনি ইংলিশরা ম্যাচ জিতে নেয় ক্যারিবিয়ানরা।

২. অরবিন্দ ডি সিলভা

বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 3

১৯৯৬ বিশ্বকাপে আন্ডারডগ হয়ে খেলতে নামা শ্রীলঙ্কা সেমি ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে উঠে যায় ফাইনালে। লাহোরে অনুষ্ঠিত এই ফাইনালে লঙ্কানরা মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়ার। ২৪২ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২৩ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া লঙ্কানদের পক্ষে ত্রাতা হয়ে আসেন ডি সিলভা। তাঁর করা ১২৪ বলে ১০৭ রানের উপর ভর করে ২২ বল হাতে রেখেই চ্যাম্পিয়নের তকমা গায়ে লাগায় লঙ্কানরা।

৩. রিকি পন্টিং

বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 4

দক্ষিণ আফ্রিকায় বসা বিশ্ব আসরের ২০০৩ এর পর্বে সেমি ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে বৃষ্টি আইনে ৪৮ রানে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট কাটে অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে অজিরা তাঁদের প্রতিপক্ষ হিসেবে ফাইনালে পায় টিম ইন্ডিয়াকে। ফাইনালে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১০৫ রানের ওপেনিং জুটির পর ব্যাট হাতে নামেন পন্টিং। ইন্ডিয়ান বোলারদের উপর স্ট্রিমরোলার চালিয়ে পন্টিংয়ের ১৪০ রানের উপর চড়ে ৫০ ওভারে ৩৬৯ রান সংগ্রহ করে অজিরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ১২৫ রানের হার নিয়ে মাঠ ত্যাগ করে ভারত।

৪. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট

বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 5

সর্বকালের সেরা এই অজই ক্রিকেটার বিশ্বকাপের ফাইনালে এখন পর্যন্ত ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের মালিক। ২০০৭ সালের ফাইনালে প্রতিপক্ষ লঙ্কানদের সাথে খেলতে নামলে আবহাওয়ার বৈরিতায় ওভার কমে আসে ৩৮’এ। ১০৪ বলে গিলক্রিস্ট ১৪৯ রান করলে অস্ট্রেলিয়াদের দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৮১ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যাট করতে নেমে ২৬৯ রানে থামে লঙ্কানদের ইনিংস, জয়ের উল্লাসে মাতে অস্ট্রেলিয়া।

৫. গৌতম গম্ভীর

বিশ্বকাপের ফাইনালে সেরা ৫ ব্যাটিং পারফরম্যান্স 6

২০১১ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে মুম্বাইয়ে ফাইনালে টিম ইন্ডিয়ার সামনে প্রতিপক্ষ হয় লঙ্কানরা। টস জিতে লঙ্কানরা ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিলে জয়াবর্ধনের ব্যাটে ভর করে ৫০ ওভারে ২৭৪ রান করে শ্রীলঙ্কা। জবাবে টিম ইন্ডিয়া ব্যাট করতে নামলে খালি হাতে সেহবাগ ফিরে গেলে ও শচীন ব্যক্তিগত ১৮ রানে আউট হলে কোহলিকে নিয়ে জুটি গড়েন গম্ভীর। কোহলি তাঁর নামের পাশে ৩৫ রান যোগ করে মাঠ ছাড়লে ধোনিকে নিয়ে দলকে দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যান তিনি। যদিও ৯৭ রান করে মাত্র ৩ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করে আউট হন গৌতম কিন্তু ততক্ষণে দল নিরাপদ অবস্থানে থেকে বিশ্বকাপ জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছিল। শেষের দিকে মহেন্দ্র সিং ধোনি অপরাজিত ৯১ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *