মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য খারাপ খবর, যে খেলোয়াড়কে কিনেছিল তার বোলিং অ্যাকশন ঘোষিত হল অবৈধ 1

ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে বড়ো পয়সাবহুল লীগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের আগামী বছর হতে চলা মরশুমের জন্য গত সপ্তাহেই কলকাতায় খেলোয়াড়দের বাজার বসেছিল। যেখানে নিলামের বাজারে দেশ-বিদেশের মোট ৬২জন খেলোয়াড়ের দাম ধার্য্য হয়েছে। এদের মধ্যে কিছু এমন খেলোয়াড় থেকেছেন যারা ঘরোয়া ক্রিকেট এখনো নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চেষ্টা করে চলেছেন।

মহারাষ্ট্রের তরুণ খেলোয়াড় দিগবিজয় দেশমুখের উপর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স লাগিয়েছে দাম

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য খারাপ খবর, যে খেলোয়াড়কে কিনেছিল তার বোলিং অ্যাকশন ঘোষিত হল অবৈধ 2

আইপিএল নিলামে এই খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন মহারাষ্ট্রের ২১ বছরের তরুণ অলরাউন্ডার খেলোয়াড় দিগবিজয় দেশমুখের উপর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দাম লাগিয়েছিল। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজের প্রদর্শনে সকলকে প্রভাবিত করা অলরাউন্ডার দিগবিজয় দেশমুখকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তার বেস প্রাইস ২০ লাখ টাকায় নিজেদের দলে যুক্ত করেছে। যারপর এখন এই তরুণ খেলোয়াড়কে এই হাই প্রোফাইল লীগে খেলতে দেখা যাবে।

দিগবিজয় দেশমুখের বোলিং অ্যাকশনকে মানা হল ভুল

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য খারাপ খবর, যে খেলোয়াড়কে কিনেছিল তার বোলিং অ্যাকশন ঘোষিত হল অবৈধ 3

গত সপ্তাহেই আইপিএলের মতো বিশ্বাস্তরীয় টি-২০ লীগে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মতো বড়ো দলের জন্য নির্বাচিত হওয়ার পর খুশি হওয়া দিগবিজয় দেশমুখ আচমকাই এক বড়ো সমস্যায় পড়ে গিয়েছেন যখন তার বোলিং অ্যাকশনকে অবৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে। সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে নিজের অলরাউন্ডার প্রদর্শনে প্রভাবিত করা দিগবিজয় দেশমুখ এই টুর্নামেন্টে জম্মু-কাশ্মীরের বিরুদ্ধে ৬ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাটেও নিজের প্রতিভা দেখিয়ে ৮১ রানের ইনিংস খেলে নিজের বিশেষ প্রভাব ফেলেছিলেন। সেই কথা মাথায় রেখে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাকে নিজেদের দলে শামিল করেছে।

দেশমুখকে আপাতকালীন ভিত্তিতে রঞ্জি ট্রফি থেকে দেওয়া হলো বাদ

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য খারাপ খবর, যে খেলোয়াড়কে কিনেছিল তার বোলিং অ্যাকশন ঘোষিত হল অবৈধ 4

কিন্তু রঞ্জি ট্রফিতে মহারাষ্ট্রের হয়ে খেলা দিগবজয় দেশমুখের বোলিং অ্যাকশনকে ভুল বলা হয়েছে। দিগবিজয়ের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনকে একটি রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে। যদিও দেশমুখকে সাসপেণ্ড তো করা হয়নি কিন্তু তাকে রঞ্জি থেকে আপাতকালীন ভিত্তিতে বাদ দেওয়া হয়েছে। এমসিএর সচিব রিয়াজ বাগওয়াগ বলেছেন যে,

“ওরা গত ম্যাচে সন্দেহভাজন বোলিং অ্যাকশনের রিপোর্ট পেশ করতে বলেছিল। আমাদের এই ঘটনার বিবরণের ব্যাপারে ম্যাচ অফিসিয়ালদের কাছ থেকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। ওই ইনিংস, সংখ্যা আর সময় চাওয়া হয়েছে। আমি ওই চিঠি টিম ম্যানেজমেন্ট আর কোচকে দিয়েছি। কিন্তু আমি এই বিবরণ সম্পর্কে অবগত নই। যদিও ওকে সাসপেন্ড করা হয়নি। আমরা কোনো রিস্ক নিতে চাইনা আর ওকে রঞ্জিতে ছত্তিরগড়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে দলের বাইরে রাখা হয়েছে। ওকে সম্প্রতিই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আইপিএলের নিলামে কিনেছিল। আর সাসপেন্ড হলে ওর আত্মবিশ্বাস প্রভাবিত হতে পারে। যা থেকে আমরা বাঁচতে চাইছি। কারণ ও একজন দুর্দান্ত বোলার। ও বৃহস্পতিবার চেন্নাই যাবে যেখানে ওর অ্যাকশনকে শক্ত করা হবে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *