ধোনিকে অপমান করে সুনীল গাভাস্কার বললেন ধোনির সময় শেষ এখন করা উচিৎ এই কাজ

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি বর্তমানে ক্রিকেট মাঠ থেকে সম্পূর্ণ দূরে রয়েছেন। মহেন্দ্র সিং ধোনি বিশ্বকাপের পরথেকেই ভারতীয় দলের হয়ে বা অন্য কোনো ক্রিকেট ম্যাচের জন্য মাঠে নামেননি। ধোনি ওয়েস্টইন্ডিজের পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চলতি সিরিজ থেকে নিজের নাম তুলে নিয়েছেন।

সুনীল গাভাস্কারের ধোনির কেরিয়ার নিয়ে এল বড় বয়ান

ধোনিকে অপমান করে সুনীল গাভাস্কার বললেন ধোনির সময় শেষ এখন করা উচিৎ এই কাজ 1

মহেন্দ্র সিং ধোনি যদিও নিজের কেরিয়ারের শেষ ধাপে রয়েছেন, এবং নিজের জীবনের ৩৮ বছর পার করে ফেলেছেন। ধোনি যতই এখন ভারতীয় দল থেকে দূরে থাকুন কিন্তু স্বয়ং মহেন্দ্র সিং ধোনি আর ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের নজর টি-২০ বিশ্বকাপে তার খেলার দিকেই রয়েছে। যদিও আগামী বছর অস্ট্রেলিয়াতে হতে চলা টি-২০ ম্যাচে ভারতীয় দলে মহেন্দ্র সিং ধোনির খেলা নিশ্চিত, কিন্তু কিছু মানুষের ধারণা মহেন্দ্র সিং ধোনির সময় এখন পূর্ণ হয়ে গেছে আর তার নিজের কেরিয়ার নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা উচিৎ।

গাভাস্কারের পরিস্কার জবাব, বললেন এখন সম্মানের সঙ্গে ধোনির নেওয়া উচিৎ অবসর

ধোনিকে অপমান করে সুনীল গাভাস্কার বললেন ধোনির সময় শেষ এখন করা উচিৎ এই কাজ 2

মহেন্দ্র সিং ধোনির অনুপস্থিতিতেও ভারতীয় দলের প্রদর্শন ওয়েস্টইন্ডিজের পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধেও ভাল থেকেছ। এই অবস্থায় ইন্ডিয়া টুডের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সুনীল গাভাস্কার পরিস্কার বলেছেন যে ধোনি পুরো সম্মানের সঙ্গে বিদায় নিন। সুনীল গাভাস্কার মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে বলেন যে,

“কেউ জানে না যে এমএসডির মাথায় কি রয়েছে। কেবল ওই স্পষ্ট করতে পারে যে ও ভারতীয় ক্রিকেটের সঙ্গে নিজের ভবিষ্যতের ব্যাপারে কি ভাবছেন। কিন্তু আমার মনে হয় যে এখন ধোনি ২৮ বছরের হয়ে গিয়েছেন। তো ভারতের সামনের দিকে তাকানোর প্রয়োজন। কারণ আগামী বছর টি-২০ বিশ্বকাপ কাছেই রয়েছে। পুরো সম্মানের সঙ্গে ধোনির সময় শেষ হয়ে গিয়েছে। এখন সময় এসে গিয়েছে। ভারতকে ধোনির থেকে সামনের দিকে দেখা উচিৎ। আমার মনে হয় যে ওর উপর চাপ তৈরি করা হবে তার আগেই ধোনি স্বয়ং অবসর নিয়ে নেবেন”।

গাভাস্কার ধোনির যোগদান আর উপস্থিরও করেছেন প্রশংসা

ধোনিকে অপমান করে সুনীল গাভাস্কার বললেন ধোনির সময় শেষ এখন করা উচিৎ এই কাজ 3

সেই সঙ্গেই সুনীল গাভাস্কার মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য যোগদান আর তার উপস্থিতি দিয়ে প্রভাব ফেলাকেই স্মরণ করে তার জমিয়ে প্রশংসাও করেছেন। সানি বলেন যে,

“ওর ভ্যালু ভীষণই দুর্দান্ত থাকতে চলেছে। না স্রেফ ও রান করবেন আর না তো ও স্ট্যাম্পিং করবেন যা প্রভাবী হবে। কিন্তু মাঠে ওর সমগ্র উপস্থিতি অধিনায়কের জন্য সাহায্যপূর্ণ হবে, কারণ অধিনায়কের সঙ্গে ওর বিচারধারার লাভ পাওয়া যায়। এটা একটা ভীষণই বড়ো ঐতিহ্য কিন্তু আমার বিশ্বাস যে সময় এসে গিয়েছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *