সিরিজ জিততে বিরাটকে রাগিয়ে দেওয়ার লক্ষ্য স্মিথের 1

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত টেস্ট সিরিজে ব্যাট হাতে মোট ৬৫৫ রান করেছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এর মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের জন্য ‘সাবধানী’ বার্তাও তিনি দিয়ে দিয়েছেন, তা বলা চলে।

প্রসঙ্গত, স্মিথ অ্যান্ড কোং আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ভারত সফরে আসছে। এদিকে মেলবোর্নে ‘বক্সিং ডে টেস্ট’ খেলতে থাকা অস্ট্রেলিয়া দলের অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এই সিরিজ নিয়ে ইতিমধ্যেই ভারতের বিরুদ্ধে মনস্তাত্বিক যুদ্ধ শুরু করে দিলেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ জিততে হলে বিরাটকে বিচলিত কর, তাকে রাগিয়ে দাও। দেখবে তাতে অনেকটা কাজ হয়ে গিয়েছে।”

প্রতিপক্ষ দলের অধিনায়কের সাম্প্রতিক রেকর্ড দেখে তাঁর প্রশংসাও করছেন স্মিথ। তাঁর মতে, এই মুহূর্তে বিরাট কোহলি জীবনের সেরা ফর্মে রয়েছেন। এবং তাঁর ব্যাটিংয়ের টেকনিকেরও কোনও তুলনা হয় না। ভারতকে তাদের মাঠে গিয়ে হারানোটা কঠিনতম কাজের মধ্যে একটি।

ভারত অধিনায়কের প্রশংসা করে স্মিথ বলেন, “বিরাট একজন বিশ্ব মানের ক্রিকেটার। ও অবিশ্বাস্য দক্ষতায় দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে ভারত অনেকগুলি ম্যাচ জিতেছে। ঘরের মাঠেও ওরা অনেক ম্যাচ খেলেছে, যেখানে ওদের পারফরম্যান্স বেশ ভালো। আমার মনে হয়, বিরাটের বডি ল্যাঙ্গোয়েজেরও অনেক উন্নতি হয়েছে। মাঠের বাইরে অবশ্য ও বরাবরই আবেগপ্রবন। কিন্তু এই ক্ষেত্রে ও অনেকটা নিজেকে পাল্টে ফেলেছে। সবমিলিয়ে বিরাটের শরীরীভাষাও আগের চেয়ে অনেক বদলে গিয়েছে।”

ভারত সফরে নিজেদের প্ল্যান কি হবে, তা অবশ্য গোপন করছেন না অস্ট্রেলিয়ান ক্যাপ্টেন। তিনি বলেন, “মনস্তাত্বিক লড়াইয়ে বিরাটকে যদি ভেঙে ফেলা যায়, তা হলে ভারতককে হারনো সম্ভব হতে পারে। টিম হিসাবে বিরাটের আবেগে ধাক্কা দিতে হবে। দরকার হলে ওকে রাগিয়ে দিতে হবে। ওর সঙ্গে এমন আচরণ করলে ওদের পুরো দলকে দমানো সম্ভব।” 

ভারতের বিরুদ্ধে আসন্ন টেস্ট সিরিজ যে যথেষ্ট কঠিন হবে, তা মেনে নিয়ে অজি ক্যাপ্টেন নিজেদের আন্ডারডগ হিসাবে ধরছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “ফেব্রুয়ারি মাসে আমরা টেস্ট সিরিজ খেলতে ভারতে যাব। এই নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে, অত্যন্ত কঠিন সফর আমাদের কাছে। সেখানে আমরা চারটে টেস্ট খেলব। বর্তমান ভারতীয় দলের ফর্ম দেখে বলতে পারি, আমরা সিরিজে আন্ডারডগ হিসাবে মাঠে নামব।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *