দেখুন : ঋষভ পন্থকে আউট করতে এমন নোংরা ট্যাকটিক্স করলেন স্টিভ স্মিথ 1

বল বিকৃতির দায়ে দীর্ঘ এক বছর নির্বাসনে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ। আর সেই সময় কার্যত প্রতিজ্ঞা করেছিলেন, ক্রিকেটের স্পিরিট মেনেই তিনি আবার খেলবেন। সেই মত নির্বাসনের পরে একেবারে ভদ্র ক্রিকেটার সুলভ আচরণ করছিলেন স্টিভ স্মিথ। ব্যাট হাতে অনন্য পারফর্মেন্সে কুড়োচ্ছিলেন ক্রিকেট বিশ্বের প্রশংসা, পাশাপাশি মানুষ হিসেবে নিজেকে আলাদাভাবে গড়ে তুলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক।

দেখুন : ঋষভ পন্থকে আউট করতে এমন নোংরা ট্যাকটিক্স করলেন স্টিভ স্মিথ 2

কিন্তু সেই ইমেজে আবারও কালি পড়ল বলাই যায়। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে একেবারে টানটান পরিস্থিতিতে চলছে পঞ্চম দিনের খেলা। এরকম একটি কঠিন সময়ে ক্যামেরার নজর থাকে প্রতিটি ক্রিকেটারের উপর, তাদের এক্সপ্রেশন জানার জন্য। আর সেই ফাঁকে ক্যামেরায় ধরা পড়ল, স্টিভ স্মিথ ক্রিজে ঋষভ পন্থের গার্ডের দাগ মুছে দিচ্ছেন জুতো দিয়ে। আর এর জেরে আবারও গার্ড নিতে বাধ্য হন ঋষভ।

আর এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ক্রিকেট বিশ্বে এই নিয়ে শুরু হয় প্রবল সমালোচনা শুরু হয়। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার এবং বর্তমানে বিশেষজ্ঞ আকাশ চোপড়া নিজের টুইটারে লিখেছেন, “জুতো অনেক কিছুর জন্যই ব্যবহৃত হয়। এমনকি প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং গার্ডের দাগ মোছার ক্ষেত্রেও। যদিও ক্যাচ ধরার ক্ষেত্রে সেটি কাজে লাগে না।”

এদিকে এই ভাইরাল ভিডিও নিয়ে নেটিজেনরা সরাসরি আক্রমণ করেছেন স্টিভ স্মিথকে। কেউ কেউ বলছেন, “যিনি চিটার ছিলেন, তিনি চিটারই থাকবেন।” আবার কেউ কেউ সেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে স্যান্ড পেপার ঘটনাটির তুলনা এনেছেন। সব মিলিয়ে টুইটার একেবারে জ্বলে উঠেছে স্মিথের এই আচরণে।

যদিও স্মিথের এই নোংরামো কোনওভাবেই আটকায়নি ঋষভ পন্থকে। শেষ অবধি ৯৭ রান করে আউট হন নাথান লিয়ঁর বলে। এই রিপোর্ট লেখার সময় ৯৮ ওভারে ২৮২/৫। ব্যাট করছিলেন হনুমা বিহারি ৪ (৫৪) এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৯ (৩৫)।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *