৭৯ বছরে মারা গেলেন মাইসোরের অধিনায়ক

 

বৃহস্পতিবার মাইসোরের প্রাক্তন অধিনায়ক ড. সুব্বারাও কৃষ্ণমুর্তি ৭৯ বছর বয়েসে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন। ব্যাঙ্গালোরে ২৬ অক্টোবর ১৯৩৮ এ জন্মানো এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান তৎকালীন মাইসোর রাজ্য দলের হয়ে অতিথি দল সিলোন একাদশের হয়ে ১৯৫৮র মার্চে প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে(৩দিনের ম্যাচ) অভিষেক ঘটান। অভিষেক ম্যাচে তিনি করেন ২৬ এবং ০ রান। ১৯৫৯ এর নভেম্বরে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে তাঁর রঞ্জি অভিষেক হয়। তিনি সর্বমোট ৩২টি প্রথম শ্রেনীর ম্যাচ খেলে ২৭.২৬ অ্যাভারেজে ১৩৩৬ রান করেন। বন্ধুদের কাছে ড. কিট্টি নামে পরিচিত কৃষ্ণমূর্তি ৩০ টি ক্যাচ এবং ১৫টি স্ট্যাম্পিং করেন নিজের কেরিয়ারে। পরে তিনি রাজ্য দলের অধিনায়কও হন। কৃষ্ণমূর্তি ব্যাঙ্গালোর মেডিক্যাল কলেজে পড়াশোনা করেন এবং এবং মাইসোর বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে পরপর চার বছর ক্রিকেটও খেলেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে নেতৃত্ব দেন এবং ১৯৬২ তে রোহিনটন বোরিয়া ট্রফিতে অল ইন্ডিয়া চ্যাম্পিয়নশিপও জেতান।

৭৯ বছরে মারা গেলেন মাইসোরের অধিনায়ক 1

ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর কৃষ্ণমূর্তি কর্ণাটক স্টেট অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্টের পদও দখল করেন। এক মরশুমে তিনি রাজ্য সিনিয়র নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যানও হন। কর্ণাটক রাজ্য দলের প্লেয়াররা মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে তাদের রঞ্জি কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচের শুরুতেই এক মিনিট নিরবতা পালন করে প্রয়াত এই ক্রিকেটার তথা ক্রিকেট প্রশাসকের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন। মৃত্যুর পর তিনি স্ত্রী এবং এক কন্যা রেখে গেছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *