ভারতের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান, কলকাতার প্রিন্স ও ইন্ডিয়ান ক্রিকেটের মহারাজা সৌরভ গাঙ্গুলী গতকাল ৪৬তম জন্মদিন পালন করেন। গোটা দুনিয়ার মানুষ তাকে ভালবেসে “দাদা দাদা” বলে ডাকে, ভারতের প্রত্যেক ক্রীড়া সমর্থকের আদর্শ তিনি। ভারত ক্রিকেট টিমের এই মহারাজা ১৯৯২ সালে ভারতের হয়ে ক্রিকেটে পা রাখেন, তারপর সৃষ্টি করেন এক ইতিহাস। ২০০০ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন তিনি। তাঁর অধীনে ভারত অর্জন করে অগণিত সাফল্য, এই মহারাজাই ভারত ক্রিকেট কে নিয়ে গেছেন অনন্য এক উচ্চতায়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারে তিনি ১৮০০০+ রানের মালিক। ওয়ানডে তে করেন ৩১১ ম্যাচে ১১,৩৬৩ রান ও টেস্টে করেন ১১২ টেস্টে ৭২১২ রান। ওয়ানডে ক্রিকেটে মাত্র ৮ জন ব্যাটসম্যান ১১০০০ রানের ক্লাবে নাম লেখাতে পেরেছেন তাদের একজন সৌরভ গাঙ্গুলী।

আসুন এবার দেখে নেওয়া যাক তাঁর সেরা পাঁচটি ইনিংসঃ

১) ১৮৩ রান বিপক্ষ শ্রীলংকা, ১৯৯৯

নিঃসন্দেহ এটা বিশ্বকাপ মঞ্চে যেকোনো ভারতীয় ব্যাটসম্যানের জন্য সেরা ইনিংস। সৌরভ গাঙ্গুলী ১৫৮ বল খেলে ১৮৩ রান করেন, এই ম্যাচে ১৭ টি চার ও ৭ টি ছক্কা হাকান তিনি। তাঁর ব্যাটে নির্ভর করে শ্রীলংকার বোলাদের পিটিয়ে ভারত ৩৭৩ রানের টার্গেট দেয়। তার সাথে ভাল জুটি দেন রাহুল দ্রাভিড় ও তিনিও ১৪৫ রানের একটি মুল্যবান ইনিংস খেলেন। এই দুইজনের সহায়তায় ভারত এই ম্যাচে নিজেদের দলীয় সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ড গড়ে। তাই এই সৌরভ গাঙ্গুলীর এই ইনিংসটি স্মরণীয় করে রাখার মতই।

২) ১১৭ রান বিপক্ষ নিউজিল্যান্ড, ২০০০

ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে তিনি, একের এক সেরা ব্যাটিং উপহার দিয়ে যাচ্ছেন তখন, ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে পারফরমেন্স করে ২০০০ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ড তার পারফরমেন্সের ধারাবাহিতা বজায় রেখেছন।

২৬৪ রানের টার্গেটে ভারত যখন হারতে বসে তখন ঠাণ্ডা মাথায় ব্যাট করে ১১৭ রানের ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরের নিয়ে যান তিনি। এই টুর্নামেন্টে সৌরভ গাঙ্গুলীর লিডিং রান স্কোরার হন তিনি।

৩) ১৪১ রান বিপক্ষ পাকিস্তান, ১৯৯৯

পাকিস্তান ভারতের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী, একদল আরেকদল যেন দেখতেই পারেনা। তবে পাকিস্তান থেকে ভারত অনেক এগিয়ে। ১৯৯৯ সালে, ভারত-পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া থ্রী-দেশীয় সিরিজে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৪১ রানের এক অনবদ্য ইনিংস খেলেন দাদা। আগে ব্যাট করতে নেমে ভারত মাত্র ২৬৭ রান করে আর সেখানেই দাদার ১৪১ রান। যা তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে সেরা ইনিংসের মধ্যে একটি।

৪) ১১১ রান বিপক্ষ কেনিয়া, ২০০৩

২০০৩ সালের বিশ্বকাপে চমকপ্রদ সৃষ্টি করেছিল কেনিয়া, তারা সবাইকে অবাক করে সেমিফাইনালে উঠে যায়, সেখানে গিয়েই তাদের জয়রথ থামায় ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবানে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২৭০ রান করে ভারত, কলকাতার মহারাজা এই ম্যাচে ১১১ রানের অতিমানবীয় একটি ইনিংস খেলেন, তার এই ইনিংসের কাছেই হেরে যায় কেনিয়া, এবং দাদার হাত ধরে ফাইনালে উঠে ভারত। যদিও ফাইনাল ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে যায় ভারত তবে সেমিফাইনালে দাদার এই ইনিংসটি যেন সবসময় স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

৫) ১৪১* রান বিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা, ২০০০

ক্যারিয়ারের সেরা সময় পার করেছেন ১৯৯৯-২০০০ সালেই। এই সময়েই নিজের ক্যারিয়ার গড়েছেন তিনি। আর যেকোনো আইসিসি টুর্নামেন্ট পেলেই যেন ঝলসে উঠতেন দাদা। কেনিয়ায় অনুষ্ঠিত আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রপিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৯৫ রান করে ভারত। এই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা কে লড়াই ছাড়া হারিয়েছে ভারত, ৯৫ রানে জয় পায় ভারত। এই ম্যাচে দাদা করেন ১৪১ রান, যা তার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ইনিংস।ভারতের এই জয় ছাপিয়ে সেদিনের নায়ক ছিলেন আজকের বার্থডে বয়, ক্রিকেট ইন্ডিয়ার রাজপুত্র সৌরভ গাঙ্গুলী।

  • SHARE
    A Cricket enthusiast who is pursuing his passion.

    আরও পড়ুন

    ভারতীয় ওয়ানডে দলে দ্রুত শামিল হতে পারেন এই তিন ক্রিকেটার

    ভারতীয় দল ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সম্প্রতি শেষ হওয়া ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ফলাফলে হেরে গিয়েছে। প্রথম ম্যাচ জেতার পরও...

    বিশ্বের এক নম্বর টি২০ বোলার রশিদ খান দিলেন হার্দিক পান্ডিয়াকে বাউন্স খেলার চ্যালেঞ্জ, বদলে পেলেন এই জবাব

    বিশ্বের এক নম্বর টি২০ বোলার রশিদ খান দিলেন হার্দিক পান্ডিয়াকে বাউন্স খেলার চ্যালেঞ্জ, বদলে পেলেন এই জবাব
    ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ দুনিয়াভরের খেলোয়াড়দের এক মঞ্চে নিয়ে আসার কাজ করেছে। এটাই কারণ যে আলাদা আলাদা দেশের...

    ধোনিকে নিয়ে বিসিসিআই লিখল ভুল, ভক্তরা বদলে করল ট্রোল

    ধোনিকে নিয়ে বিসিসিআই লিখল ভুল, ভক্তরা বদলে করল ট্রোল
    ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে সফলতম অধিনায়কের উল্লেখ যখনই করা হবে তাতে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তণ অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির...

    ছবি: সেক্সিয়েস্ট স্পোর্টস সাংবাদিক মায়ান্তি ল্যাঙ্গারের কিছু হটেস্ট ফটো

    স্টার স্পোর্টস এবং অন্যান্য স্পোর্টস চ্যানেল এর সৌজন্নে এই মুহূর্তে উপস্থাপিকা হিসাবে মায়ান্তি ল্যাঙ্গার একজন সুপরিচিত মুখ। মায়ান্তি...

    “শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড”………. বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটারদের শিক্ষাগত যোগ্যতা!

    যে কোনো খেলাধুলার জগতে প্রতিভাই হল মাপকাঠি, এবং বহুলাংশেই শিক্ষাগত যোগ্যতা গুরুত্বহীন থাকে। তবে আজ আমরা এই...