বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলী বললেন সিক্রেট মিটিংয়ে অমিত শাহের সঙ্গে হয়েছে এই কথা 1

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন দিগগজ সৌরভ গাঙ্গুলীর নামের উপর ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের পরবর্তী সভাপতি হওয়ার উপর শিলমোহর লেগে গিয়েছে। রবিবার বিসিসিআইয়ের মুম্বাইতে হওয়া বৈঠকে সৌরভ গাঙ্গুলীকে সামান্য নাটকের পর সর্বসম্মতিক্রমে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের পরবর্তী সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে।

অমিত শাহ আর সৌরভ গাঙ্গুলী মধ্যে ডিল হওয়ার কথা সামনে আসছে

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলী বললেন সিক্রেট মিটিংয়ে অমিত শাহের সঙ্গে হয়েছে এই কথা 2

সৌরভ গাঙ্গুলী এখন বিসিসিআইয়ের আগামী ১০ মাসের জন্য সভাপতি হবেন কিন্তু সৌরভ গাঙ্গুলীর বিসিসিআইয়ের সভাপতি হওয়ার সঙ্গেই তাকে ভারতের কেন্দ্রীয় গৃহমন্ত্রী অমিত শাহের হাত আছে বলে মনে করা হচ্ছে। সৌরভ গাঙ্গুলীর বিসিসিআইয়ের পরবর্তী সভাপতি পদ পাওয়ার পর এই কথা নিয়ে জোরদার আলোচনা হচ্ছে যে সৌরভ গাঙ্গুলী আর অমিত শাহের মধ্যে কোনো ডিল হয়েছে আর সেই কারণে দাদাকে এত বড়ো পদ দেওয়া হয়েছে।

অমিত শাহের পর সৌরভ গাঙ্গুলীও এইধরণের কথার করেছেন অস্বীকার

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলী বললেন সিক্রেট মিটিংয়ে অমিত শাহের সঙ্গে হয়েছে এই কথা 3

এই বিষয়ে সোমবার গৃহমন্ত্রী অমিত শাহ সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করেছেন যারপর এখন সৌরভ গাঙ্গুলীও রাজনীতিতে তার পার্টি জয়েন করার পরিবর্তে বিসিসিআইয়ের সভাপতি পদ দেওয়ার কথাকে অস্বীকার করেছেন। সৌরভ গাঙ্গুলী এই বিষয় নিয়ে বলেন,

“আমি অমিত শাহের সঙ্গে প্রথমবার দেখা করেছিলাম, এতে না তো আমি বিসিসিআইয়ের ব্যাপারে কোনো প্রশ্ন করেছি যে আমি কী কোনো পদ পাব কি না, আর না তো আমার সঙ্গে এই ধরণের কোনো কথা হয়েছে যে যদি আপনি সহমত হন তো আপনি এটা পাবেন। কোনো ধরণের রাজনীতি ঘটনাক্রমের উপর কথাবার্তা হয়নি”।

অমিত শাহ গাঙ্গুলীর সঙ্গে সাক্ষাতে বলেছিলেন এই কথা

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলী বললেন সিক্রেট মিটিংয়ে অমিত শাহের সঙ্গে হয়েছে এই কথা 4

অমিত শাহ গাঙ্গুলীর সঙ্গে ডিলের কথা নিয়ে বলেন যে,

“আমি এই সিদ্ধান্ত নিই নি যে বিসিসিআইয়ের পরবর্তী সভাপতি কে হবে। উনি আমার সঙ্গে দেখা করতে আসতে পারেন। আমি দীর্ঘ সময় ধরে ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। সৌরভ গাঙ্গুলীর সঙ্গে আমার দেখা করায় কোনো সমস্যা নেই। আমরা কখনো সৌরভ গাঙ্গুলীর সঙ্গে বিজেপিতে শামিল হওয়ার আগ্রহ দেখাইনি। ওর তরফেও এমন কোনো প্রচেষ্টা হয়নি। আমাদের বাংলায় কোনো মুখের প্রয়োজন নেই। আমরা বাংলায় কোনো মুখ ছাড়াই ১৮টি সিট জিতেছি আর কিছু সিট এখানে আর ওখানে হারিয়েছি এর মানে এটা নয় যে আমাদের কোনো মুখের সন্ধান রয়েছে, কিন্তু আমরা কোনো একজনকে ছাড়াও নির্বাচন জিততে পারি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *