আইসিসির এফটিপি ওয়ার্কিং গ্রুপে জায়গা পেলেন সৌরভ এবং প্রশ্ন রয়েছে রাহুল জোহরিকে নিয়ে

 

আইসিসির ফিউচার ট্যুর এবং প্রোগ্রাম নিয়ে কাজ করা বিসিসিআইয়ের ওয়ার্কিং গ্রুপে সকলের সম্মতিতেই সৌরভের অন্তর্ভূক্তি হল, অন্যদিকে সিইও রাহুল জোহরির অন্তর্ভূক্তি হতে পারে একমাত্র যদি কোর্ট নিযুক্ত অফিস বেয়ারারদের উপর সিওএ চাপ দেন। গত সোমবার বিসিসিআই জেনারেল বডি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসির নতুন এফটিপি নিয়ে স্টাডি করার জন্য একটি কার্যকরী দল গঠনের। আইসিসির নতুন এফটিপি অনুযায়ী ভারতীয় দল ২০১৯-২৩ পর্যন্ত পাঁচ বছরে ঘরের মাঠে ক্রিকেটের সমস্ত ফর্মাটেই ৮১টি ম্যাচ খেলবে। এই কার্যকরী কমিটিতে ৩জন প্রিন্সিপল অফিস বেয়ারার রয়েছেন (অ্যাকটিং প্রেসিডেন্ট সিকে খান্না, অ্যাকটিং সেক্রেটারি আমিতাভ চৌধুরি, এবং কোষাধ্যক্ষ অনিরুদ্ধ চৌধুরি) এবং তারাই সদস্যদের নির্বাচিত করবেন। সেখানে প্রতিটা জোন থেকে একজন করে প্রতিনিধি ধাকার সম্ভবনা রয়েছে। ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গলের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলীই একমাত্র নাম যাকে প্রত্যেক অফিস বেয়ারার এই প্যানেলে চাইছেন। বোর্ডের এক সিনিয়ন অফিসিয়াল যিনি এসজিএমে প্রতিনিধিত্ব করেছেন পিটিআইকে জানিয়েছেন, “ওর মত একজন বড়ো মাপের ক্রিকেটার এফটিপি নিয়ে আমাদের পরামর্শ দেবে সেটা দারুণ একটা ব্যাপার”। যদিও এটা দেখা গেছে যে অফিস বেয়ারাররা এক মত নন যে জোহরিকে পারমানেন্ট মেম্বার হিসেবে তাকে রাখবেন নাকি প্রয়োজনে তাকে একজন স্পেশাল ইনভাইটি হিসেবে রাখা হবে যাতে তারা সিওএ প্রধান বিনোদ রাইয়ের রোষের শিকার না হন।

ওই সিনিয়র অফিসিয়াল জানিয়েছেন, “ আমরা সকলেই জানি কি ঘটেছিল যখন এ বছরের শুরুতেই একটি এসজিএম মিটিংয়ে জোহরি না আসার কথা জানিয়েছিলেন। সিওএ তিন অফিস বেয়ারারকে শো কজ করেছিল। যদিও এটা কারও কাছে লুকোনো নেই যে সিইও এবং অফিস বেয়ারারদের মধ্যে ঠান্ডা সম্পর্কের স্রোত রয়েছে”। যখন একজন অফিস বেয়ারারকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হয় তিনি উত্তর দেন, “ যে কোনো ক্ষেত্রে, কার্যকরী কমিটির কাজের ফলাফল যাই হোক না কেন, তা জেনারেল কমিটিকে জানাতে হবে। এবং সিইও ওই কমিটির একজন অংশীদার। তার কেন প্রয়োজন হবে এই কমিটিতে অংশ নেওয়ার? তবুও যদি দরকার হয় তাহলে আমরা তাকে মিটিংয়ের জন্য ডেকে নেব”। গত পাঁচ বছরের ৩৯০ টি ম্যাচের তুলনায় নতুন এফটিপিতে ভারত আগামি পাঁচ বছরে ৩০৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। দ্বিতীয় ডিভিসনে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলার দরুণ ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত। ব্রায়ান লারা সচিনের অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    বাবা হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার

    বাবা হলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পুজারা। এক কন্যা সন্তানের পিতা হলেন তিনি। আর সে...

    ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা!

    শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ট্রাই সিরিজ নিদাহাস ট্রফি জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করল বিসিসিআই। কেমন হল দল একবার দেখে...

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ
    সেই কবেই নেভিল কার্ডাস বলে গেছেন ওয়ান ডে ক্রিকেটে পাজামা ক্রিকেট বলে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের জামানায় টেস্ট...

    জয়ের সমস্ত কৃতিত্বই ওর : রোহিত শর্মা

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারার পর ভারতীয় দল আরও দারুণভাবে ফিরে এসে সেঞ্চুরিয়ানের সুপার...

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...