বিশ্বকাপকে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট বলে মনে করা হয়। প্রত্যেক চার বছর অন্তর এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। নিজের দলের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা প্রত্যেক খেলোয়াড়ের স্বপ্ন।এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপের আয়োজন ১১ বার করা হয়ে গিয়েছে। ২০১৯ এ এই টুর্নামেন্টের ১২তম মরশুম হবে। এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপে মোট ২০টি দেশের দল অংশ নিয়েছে। তার মধ্যে মাত্র ৫টি দলই বিশ্বকাপ নিজেদের দখলে করতে পেরেছে। ক্রিকেট জগতে বিশ্বকাপ জেতা দলকে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ দল হিসেবে মনে করা হয়। ওয়ার্ল্ডকাপ ফাইনালে খেলোয়াড়দের উপর যথেষ্ট বেশি চাপ থাকে। বোলারদের দিক থেকেও প্রদর্শনকে যথেষ্ট বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয়। তো আসুন জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু বোলারের ব্যাপারে যারা ১১ বিশ্বকাপ মরশুমে নিজের শেষ বল করেছিলেন।

ম্যাট হেনরি

২০১৫ বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ডের মধ্যে খেলা হয়েছিল। এই বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় আফগানিস্থান ক্রিকেট নিজেদের অভিষেক করেছিল। আফগানিস্থান নিজেদের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের হয়ে খেলেছিল। অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল। যারপর অস্ট্রেলিয়া প্রথমে বোলিং করে আর নিউজিল্যান্ড দলকে ১৮৩ রানে অলআউট করে দেয়। এই ম্যাচের শেষ বল ম্যাট হেনরী স্টিভ স্মিথকে করেছিলেন যে বলে চার মেরে স্মিথ অস্ট্রেলিয়াকে ম্যাচ জিতিয়ে দেন।

নুয়ান কুলশেখরা

২০১১সালের বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যাচ ভারত আর শ্রীলঙ্কার মধ্যে হয়। যেখানে শ্রীলঙ্কা প্রথমে ব্যাট করে ২৭৪ রান করেছিল। এই ম্যাচে যুবরাজ সিং, গৌতম গম্ভীর, বিরাট কোহলি আর মহেন্দ্র সিং ধোনি দুর্দান্ত প্রদর্শন করেছিলেন। ম্যাচের শেষ বল নুয়ান কুলশেখরা করেন। যা মহেন্দ্র সিং ধোনি ছক্কা মেরে ওই ম্যাচে ভারতকে জিতিয়ে ২৮ বছর পর দেশে বিশ্বকাপ এনেছিলেন।

অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

২০০৭বিশ্বকাপ চলাকালীন ওয়েস্টইন্ডিজ প্রথমবার বিশ্বকাপ হোস্ট করেছিল।এই বিশ্বকাপে বারমুডা আর আয়ারল্যান্ড নিজেদের ক্রিকেট অভিষেক করে। এই বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল। এই ম্যাচে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া আর শ্রীলঙ্কা মুখোমুখি হয়েছিল। প্রথমে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া দল ২৮১ রানের স্কোর করে। এই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ৫৩ রানে হেরে যায়। ফাইনালের শেষ বল অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস করেছিলেন যার পর তৃতীয়বার অস্ট্রেলিয়া বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

গ্লেন ম্যাকগ্রা

২০০৩ সালের বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারত নিজের জায়গা করে নিয়েছিল।কিন্তু ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার দল দুর্দান্ত প্রদর্শন করে ফাইনাল ইনিংসে সবচেয়ে বড় ৩৬০ রানের লক্ষ্য ভারতের সামনে রাখে। এই লক্ষ্যকে ভারত হাসিল করতে পারেনি। যার কারণে অস্ট্রেলিয়া তৃতীয়বার বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায়।ম্যাচের শেষ বল গ্লেন ম্যাকগ্রা করেন।এই খেলোয়াড় নিজের তৃতীয় উইকেট নিয়ে ম্যাচ শেষ করেন।

গ্লেন ম্যাকগ্রা

১৯৯৬ সালে বিশ্বকাপ ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল প্রথমে ব্যাটিংকরে।যেখানে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তারা ২৪১ রানের বড় স্কোর তোলে। প্রথমে দুর্দান্ত বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়ের দারুণ প্রদর্শন করে শ্রীলঙ্কা দল এই বিশ্বকাপ নিজেদের দখলে করেনেয়। জানিয়ে দিই ওই ম্যাচের শেষ বল কিংবদন্তী অস্ট্রেলিয়ান জোরে বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রা করেছিলেন।

SHARE
সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। ব্রায়ান লারা সচিনের ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

আরও পড়ুন

মাজানসি সুপার লিগ ২০১৮: মহেন্দ্র সিং ধোনির হেলিকপ্টার শট খেললেন রশিদ খান

কিছুদিন আগে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া আফগানিস্তানের বর্তমান তারকা ক্রিকেটারের তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন রশিদ খান। সাদা বলের...

INDvsAUS: একুশ শতকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের সেরা ৫টি জয়

সারা বিশ্বে ক্রিকেট ব্যাট-বলের খেলা হিসেবে পরিচিত থাকলেও আধুনিক যুগে এসে এর চেয়ে বেশি কিছু দেখা যায়...

INDvsASU: দ্বিতীয় টেস্টে জয়ের ধারা বজায় রাখতে হলে একটু ভিন্নভাবে ভাবতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে

অ্যাডিলেইডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে ভারত জয় পেলেও ম্যাচটি ছিল বেশ উত্তেজনাপূর্ণ। মাত্র ৩১ রানের জয়...

স্ট্যাটিস্টিক্যাল প্রিভিউ: পার্থে অস্ট্রেলিয়ার পাল্লা ভারি, কিন্তু এই কারণে খুশি রয়েছে টিম ইন্ডিয়া

স্ট্যাটিস্টিক্যাল প্রিভিউ: পার্থে অস্ট্রেলিয়ার পাল্লা ভারি, কিন্তু এই কারণে খুশি রয়েছে টিম ইন্ডিয়া
অস্ট্রেলিয়া আর ভারতের মধ্যে টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ পার্থে খেলা হবে। অ্যাডিলেডে খেলা হওয়া ম্যাচ ভারতীয় দল৩১...

জেনে নিন কেনো প্রথম টেস্টে ভারতীয় দলের প্রদর্শনে খুশি নন ভিভিএস লক্ষ্মণ

জেনে নিন কেনো প্রথম টেস্টে ভারতীয় দলের প্রদর্শনে খুশি নন ভিভিএস লক্ষ্মণ
ভারতীয় দল প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয় হাসিল করে তাদের ৩১ রানে হারিয়ে দেয়। এই ম্যাচে...