ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 1

 

ভারতীয় ক্রিকেট দল বর্তমান সময়ে এমন একটি দলে পরিণত হয়েছে যে অন্যান্য দলগুলি এর মুখোমুখি হতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও বলেছিলেন যে ভারতীয় দলের সাথে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেওয়া গর্বের বিষয়। দলটি যাই হোক না কেন, খেলোয়াড়রা এটিকে সম্মানজনক অবস্থানে আনার জন্য কাজ করে।
একইভাবে ভারতীয় দলের হয়ে কাজটি করেছেন সুনীল গাভাস্কার, দিলীপ বেঙ্গসরকার, কপিল দেব, শচীন তেন্ডুলকর, সৌরভ গাঙ্গুলি, অনিল কুম্বলে, মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মার মতো খেলোয়াড়রা। তবে আজ আমরা এমন কিছু ভারতীয় খেলোয়াড়ের কথা বলব যাদের আশ্চর্যজনক শট বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত।

ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 2

শচীন তেন্ডুলকর (স্ট্রেইট ড্রাইভ): মাস্টার ব্লাস্টার শচীন তেন্ডুলকরের স্ট্রেট ড্রাইভে মুগ্ধ গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। ১০০ সেঞ্চুরির মালিক যিনি সেই খেলোয়াড়ের মাহাত্ম্যের কোনও মিল থাকবে না তা আবার হয় নাকি। এখন যখন কোনও খেলোয়াড় এত দুর্দান্ত হবে, তখন তার শট নির্বাচনটিও তার পক্ষে উপযুক্ত হবে। এই শটগুলির মধ্যে একটি হল স্ট্রেট ড্রাইভ। শচীন তেন্ডুলকরের স্ট্রেট ড্রাইভের সঙ্গী বাকিদের কোনও মিল নেই। কথিত আছে যে শচীন তেন্ডুলকর এই স্ট্রেট ড্রাইভে নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক বাউন্ডারি মেরেছিলেন। ১৯৯৬ বিশ্বকাপের সময় শচীন যখন ভারতীয় ক্রিকেটের তারকা হয়ে ওঠেন, তিনি সবচেয়ে বেশিবার এই শটটি খেলেছিলেন। সমস্ত ব্যাটসম্যান যেখানে বলটি দ্রুতগতিতে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে রান করার চেষ্টা করেন, সেখানে শচীন তেন্ডুলকর বল বাউন্ডারি পেরিয়ে মিড অফ এবং মিড অনের মধ্যে দিয়ে রান সহজেই চুরি করতেন।

ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 3

বীরেন্দ্র শেহওয়াগ (কাট শট): ভারতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র শেহওয়াগকে একজন অন্যতম বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এখনও সেই ফর্ম শেষ হয়ে যায়নি। সদ্য শেষ হওয়া রোড সেফটি সিরিজে তিনি এর প্রমাণও দিয়েছে। টেস্ট ক্রিকেটে দু’বার ৩০০ রাব অতিক্রম করা এই প্লেয়ার ১৭ হাজারেরও বেশি আন্তর্জাতিক রান করেছে। ২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপে শেহওয়াগ লিগ পর্যায়ে টানা পাঁচ ম্যাচে ইনিংসের প্রথম বলে বাউন্ডারি হিট করেছিলেন। বীরেন্দ্র শেহওয়াগের কাট শটটি দুর্দান্ত। তার হাত, চোখ এবং ইচ্ছাশক্তির দুর্দান্ত সমন্বয় নিয়ে এই শটটি ব্যবহার করেছিলেন। একটি কাট শট একটি ক্রস ব্যাটার শট যা সাধারণত শর্ট পিচ বলগুলিতে মারা হয়। তবে, এই শটে ব্যাটসম্যানকে খুব সচেতন হতে হবে। কারণ মাঝে মাঝে বল ব্যাটের প্রান্তে লেগে আউট হয়ে যায়।

ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 4

মহেন্দ্র সিং ধোনি (হেলিকপ্টার শট): ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক এবং সমস্ত আইসিসি ট্রফি জয়ী একমাত্র অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি সম্মানের সাথে ক্রিকেট ইতিহাসে জনপ্রিয়। ধোনি কেবল ভারতীয় দলের হয়ে ট্রফি জিতেনি, এমন অনেক ক্রিকেটারকেও প্রস্তুত করেছিলেন যারা বছরের পর বছর ধরে জাতীয় দলে পারফর্ম করতে পারে। ধোনি তার ৩৫০ ওয়ানডেতে ১০,০০০ এরও বেশি রান করেছেন। এছাড়াও ৯০ টি টেস্ট ম্যাচে প্রায় পাঁচ হাজার রান রয়েছে তাঁর। ধোনি ক্রিকেট বুকে একটি নতুন শটের প্রবর্তন করেছিলেন যা আজকাল খুব জনপ্রিয়। সাধারণত ইয়র্কার এবং ফুল লেন্থের বলগুলিতে খেলা এই শটটিকে হেলিকপ্টার শট বলা হয়। আসলে, ধোনি যখন এই শটটি খেলেন তখন হাতটি চাবুকের মতো দুলতে থাকে। একই সময়ে ব্যাট হেলিকপ্টার ফ্যানের মতো বাতাসে সরে যায়। যে কারণে এই শটটি হেলিকপ্টার নাম পেয়েছে।

ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 5

রোহিত শর্মা (পুল শট): সীমিত ওভারের ক্রিকেটের পাশাপাশি এখন টেস্ট ম্যাচে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যানের ভূমিকা ভালভাবে করছেন ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মা। সাম্প্রতিক চলমান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে এক হাজারেরও বেশি রান এবং একটি ডাবল সেঞ্চুরি সহ মোট চারটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ক্রিজে দাঁড়িয়ে শট মারার ক্ষমতা সম্পন্ন রোহিত শর্মা কখন পুল শট মারতে হবে তা ভালোভাবে জানেন। তাঁর মতো, কোনও ব্যাটসম্যানেরই সরাসরি ব্রিজ শট প্রেরণের শিল্প নেই। ওয়ানডে ক্রিকেটে তিনটি ডাবল সেঞ্চুরির সাথে টি- ২০ তে সর্বাধিক চারটি সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মা সর্বদা বড় ইনিংস খেলতে পারেন। তার পুল শট দিয়ে বল যখন সরাসরি বাউন্ডারি পেরিয়ে যায়, তখন দৃশ্যটি দেখার মতো। যে কোনও ব্যাটসম্যান যখন বলের উচ্চতা কোমরের পাশে থাকে তখন একটি পুল শট নেন। পুল শট মারার পরে বলটি মিড উইকেটে বা স্কোয়ার লেগ দিয়ে বাউন্ডারি পেরিয়ে যায়।

ভারতের এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের শট বিশ্বখ্যাত, মুগ্ধ সকলেই 6

বিরাট কোহলি (কভার ড্রাইভ): ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি বর্তমান ক্রিকেট যুগের সেরা ব্যাটসম্যান হিসাবে বিবেচিত। এমনকি তাঁর তুলনা শচীন তেন্ডুলকরের সাথেও হয়। ৭০ টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি করা কোহলি শীঘ্রই শচিনের ১০০ সেঞ্চুরির রেকর্ডে পৌঁছে যেতে পারেন। বিরাট কোহলি মাঠে নামলে দলের পাশাপাশি ভক্তদের আশাও তাঁর কাছ থেক অনেক বেড়ে যাত। ওয়ানডেতে সবচেয়ে দ্রুততন ১২ হাজার রান করার রেকর্ডও কোহলির। যাইহোক, কোহলি সব ধরণের শটে বিশেষজ্ঞ। তবে তাঁর প্রিয় শটটি কভার ড্রাইভ। কভার ড্রাইভ শট রান চুরি করার সময় এটি দৃশ্যমান হয়। এই শটটি তার চেয়ে ভাল আর কেউ খেলতে পারে না। অধিনায়ক কোহলি কভার শটে অফ বাউন্ডারি মারতে পারদর্শী। কেবল চারই নয়, কভার শটটি অব্যাহতভাবে রেখে ছক্কা মারার ক্ষমতাও রয়েছে কোহলির।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *