কারগিলে ভারতের সঙ্গে লড়ার জন্য শোয়েব আকতার ছেড়েছিলেন কাউন্টি ক্রিকেটের অফার 1

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়দের ভারতের সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে কোনো না কোনো ধরণের বয়ান এসেই যায়। এমনিতে বিভাজনের পর থেকেই ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যে টানাপোড়েন দেখা গিয়েছে। এই রাজনৈতিক টানাপোড়েন এমনিতে তো দুই দেশের সম্পর্কের উপর প্রভাব ফেলেই কিন্তু পাকিস্তানী খেলোয়াড়দেরও এতে শামিল হতে দেখা গিয়েছে।

শোয়েব আকতার ভারত-পাক কারগিল যুদ্ধ নিয়ে দিয়েছেন বয়ান

কারগিলে ভারতের সঙ্গে লড়ার জন্য শোয়েব আকতার ছেড়েছিলেন কাউন্টি ক্রিকেটের অফার 2

ভারতের খেলোয়াড়রা পাকিস্তানের সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে খুব বেশিকিছু বলতে দেখা যায় না, কিন্তু পাকিস্তানের খেলোয়াড়রাদের শুরু থেকেই এই বিষয় নিয়ে কিছু না কিছু বলতে দেখা বা শোনা গিয়েছে। এরমধ্যেই পাকিস্তানের প্রাক্তন জোরে বোলার শোয়েব আকতার এখন রাজনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে একটি বয়ান দিয়েছেন। শোয়েব আকতার ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যে ১৯৯৯তে হওয়া কারগিল যুদ্ধ নিয়ে নিজের কথা বলেছেন।

শোয়েব আকতারের দাবী কারগিল যুদ্ধের কারণে কাউন্টি ক্রিকেটের চুক্তি ফিরিয়ে দিয়েছেন

কারগিলে ভারতের সঙ্গে লড়ার জন্য শোয়েব আকতার ছেড়েছিলেন কাউন্টি ক্রিকেটের অফার 3

ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যে ১৯৯৯তে জম্মু-কাশ্মীরের কারগিলে যুদ্ধ হয়েছিল। ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায় এই যুদ্ধ হয়েছিল যেখানে ভারত পাকিস্তানের এক হাজারের বেশি সৈনিককে শেষ করেছিল আর যুদ্ধে জয়লাভ করে। এই যুদ্ধ নিয়ে শোয়েবক আকতার নিজের একটি প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সবচেয়ে খতরনাক জোরে বোলারদের মধ্যে একজন শোয়েবক আকতার দাবী করেছেন যে কারগিল যুদ্ধে অংশ নেওয়ার কারণে একটি বড়ো কাউন্টি ক্রিকেটের চুক্তি তিনি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

আমি সেনার সঙ্গে কারগিল যুদ্ধে নিতে চেয়েছিলাম অংশ

কারগিলে ভারতের সঙ্গে লড়ার জন্য শোয়েব আকতার ছেড়েছিলেন কাউন্টি ক্রিকেটের অফার 4

শোয়েব আকতার একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া ইন্টারভিউতে বলেছেন,

“খুব কম লোকই এই কাহিনি জানেন। আমার কাছে ন্যাটিংহ্যামের ১ লাখ ৭৫ হাজার পাউন্ডের চুক্তি প্রস্তাব ছিল। এরপর ২০০২এ আরও একটি বড়ো চুক্তি ছিল। কিন্তু আমি দুটি প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছি। আমি লাহোরের বাইরের সীমান্তে ছিলাম। তখনই এক জেনারেল আমাকে জিজ্ঞাসা করেন আমি এখানে কী করছি। এরপর আমি বলি যে যুদ্ধ শুরু হতে চলেছে আর আমরা আপনার সঙ্গে মরব। আমি দুটি কাউন্টি ক্রিকেটের চুক্তি ফিরিয়ে দিয়েছিল। এতে কাউন্টি ক্লাবও অবাক হয়েছিল। কিন্তু আমি চিন্তিত ছিলাম না। আমি কাশ্মীরে নিজের এক বন্ধুকে ফোন করি আর বলি যে যুদ্ধের জন্য আমি প্রস্তুত”।

Leave a comment

Your email address will not be published.