আইপিএল ২০২০তে এই দুই তরুণ ভারতীয় খেলোয়াড়ের উপর লাগতে পারে ব্যান, এই ফ্রেঞ্চাইজির বড়ো লোকসান

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে ২০১৪র পর কোনো খেতাব জিততে না পারা কলকাতা নাইট রাইডার্সের দল এ বার ২০২০তে আইপিএল খেতাবকে তৃতীয়বার নিজেদের নামে করার আশা করছে। নিজেদের এই স্বপ্নকে পূর্ণ করার জন্য কেকেআর নিজেদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের বাদ দিয়ে তরুণ খেলোয়াড়দের উপরেই নিজেদের ভরসা কায়েম রেখেছে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের উপর ভারি পড়তে পারে তরুণ খেলোয়াড়দের পলিসি

আইপিএল ২০২০তে এই দুই তরুণ ভারতীয় খেলোয়াড়ের উপর লাগতে পারে ব্যান, এই ফ্রেঞ্চাইজির বড়ো লোকসান 1

কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে আইপিএলের বর্তমান পরিদৃশ্যের হিসেবে অনেকই তরুণ খেলোয়াড়দের বাহিনী রয়েছে, কিন্তু এখন মনে হচ্ছে যে কলকাতা নাইট রাইডার্সের এই তরুণ খেলোয়াড়দের পলিসি তাদের জন্য বুমেরাং প্রমানিত হতে পারে। হ্যাঁ… কলকাতা নাইট রাইডার্সের দল বেশকিছু তরুণ খেলোয়াড় মজুত রয়েছে কিন্তু এই তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের মধ্যে দুজন খেলোয়াড় জোরে বোলার শিভম মাভি আর ব্যাটসম্যান নীতিশ রাণাকে বাদ পড়তে হতে পারে।

নীতিশ রাণা আর শিভম মাভির উপর বয়েস লুকোনোর অভিযোগ

আইপিএল ২০২০তে এই দুই তরুণ ভারতীয় খেলোয়াড়ের উপর লাগতে পারে ব্যান, এই ফ্রেঞ্চাইজির বড়ো লোকসান 2

ভারতীয় ক্রিকেটের চমকদার তরুণ তারকা দিল্লির নীতিশ রাণা আর উত্তরপ্রদেশের শিভম মাভির উপর বয়েস ভাঁড়ানোর মামলা চলছে, যার ফলে এখন তারা বিসিসিআইয়ের তদন্ত কমিটির চক্করে ফেঁসে গিয়েছেন। এই অবস্থায় এখন যদি নীতিশ রাণা আর শিভম মাভি বিসিসিআই দ্বারা করা তদন্তে অভিযুক্ত প্রমানিত হন তো তাদের ঘরোয়া ক্রিকেটের সঙ্গেই আইপিএলের এই মরশুমও হারাতে হতে পারে। নীতিশ রাণা আর শিভম মাভি দুজনের উপরেই বয়েসের প্রতারণা করার অভিযোগ আনা হচ্ছে। যাতে সবার আগে নীতিশ রানা তো ২০১৫তেই এই চক্করে ফেঁসে ছিলেন। যখন তার উপর নিজের বয়েস লুকোনোর অভিযোগ উঠেছিল। এই রকমের পরিস্থিতি শিভম মাভিরও। যাকে বয়েস কম দেখানোর অভিযুক্ত মনে করা হচ্ছে।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে ২০২০র মরশুমে লাগতে পারে ব্যান

আইপিএল ২০২০তে এই দুই তরুণ ভারতীয় খেলোয়াড়ের উপর লাগতে পারে ব্যান, এই ফ্রেঞ্চাইজির বড়ো লোকসান 3

নীতিশ রাণা আর শিভম মাভি দুজনেই ভারতীয় ক্রিকেটের উদীয়মান তারকা। আইপিএলে দুজনেই কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেন যেখানে নীতিশ রাণা গত দু বছর ধরে এই দলের অংশ আর প্রধান খেলোয়াড় হয়ে উঠেছেন অন্যদিকে শিভম মাভি ২০১৮র আইপিএলে চোটের কারণে কিছু ম্যাচ পরেই ছিটকে যেতে হয়েছিল। যদিও এইবার তো দুই খেলোয়াড়েরই কেকেআর দলের হয়ে পুরো মরশুম খেলার আশা করা হচ্ছে কিন্তু বিসিসিআইয়ের তদন্তে যদি এই দুই খেলোয়াড়ের ওভার এজের কথা সঠিক প্রমানিত হয় তো তাদের ব্যানও করা হতে পারে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *