২০১৬ সালে কোচ নির্বাচিত না হওয়ার পর কেমন ছিল রবী শাস্ত্রীর অবস্থা! 1

২০১৬ সালে কোচ নির্বাচিত না হওয়ার পর কেমন ছিল রবী শাস্ত্রীর অবস্থা! 2

১১ জুলাই ২০১৭ রবী শাস্ত্রীর জন্য বিশেষ দিন, এই দিন ই টিম ইন্ডিয়ার কোচ হিসেবে নির্বাচিত হোন। এর আগে ছিলে টিম ডিরেক্টর হিসেবেও। তবে তার কোচ হওয়া নিয়ে কম জল ঘোলা হয় নি। অনেক বিতর্কের পর এই সিদ্ধান্ত হল। ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারার দুই দিন পর অনীল কুম্বলে ভারতের কোচের দায়িত্ব হতে পদত্যাগ করেন। এরপরে তার জায়গায় কোচ হিসেবে নিয়োগ পান রবী শাস্ত্রী। রবী শাস্ত্রী জানান ২০১৬ সালে কোচ হিসেবে নিয়োগ না পেয়ে হতাশ হোন, তখন তার পরিবর্তে কোচ হোন অনীল কুম্বলে। তিনি বলেন, “যখন ২০১৬ সালে আমাকে কোচ হিসেবে আমাকে বেচে নেওয়া হয় নি তখন হতাশ ছিলাম।” ২০১৪ সালে ভারতের ইংল্যান্ড সফরের সময় ভারতের টিম ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পান রবী শাস্ত্রী। পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ভারত হারে ৩-১ ব্যবধানে, একমাত্র লর্ডস টেস্টে ই জয় পেয়েছিল ভারত। শাস্ত্রীর কোচিং এ ভারত ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে সেমি ফাইনালে খেলেছিল।

অবশ্য বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশ সফরে ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল ওয়ানডে সিরিজ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও ঘরের মাঠে সিরিজ খোয়াতে হয়েছে। ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও সেমিফাইনালের বেশি যেতে পারে নি তখন ভারত। ২০১৬ সালে যখন প্রধান নিয়োগ দেওয়া হয় তখন রবী শাস্ত্রী বাদ পড়েন। দলের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করার কারণেই শাস্ত্রীর কোচ হওয়ার প্রত্যাশা বেশি ছিলো। কিন্তু তা হয়নি শেষপর্যন্ত। অবশ্য শাস্ত্রীর অভিমত, সাক্ষাতকার নেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন না উপদেষ্টা কমিটির অন্যতম একজন সৌরভ গাঙ্গুলি। তার দাবি, সাবেক এই অধিনায়ক হলে নাকি কোচের নিয়োগপত্রটা তার হাতে আসলেও আসতে পারতো।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘ইন্টারভিউ টেবিলে আসলে সৌরভ ছিলো না। তবে আলোচনাটা দারুণ ছিলো। ভিভিএস লক্ষণ, শচিন টেন্ডুলকাররা আমাকে দুর্দান্ত সব প্রশ্ন করেছিলেন।” এক মাসের নাটক শেষে এবার ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত ভারত দলের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে শাস্ত্রীর হাত। ভারতের কোচ হওয়ার জন্য মোট ছয়জন প্রার্থী মৌখিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে ছিলেন ভারত দলের টিম ডিরেক্টর রবী শাস্ত্রী, বীরেন্দর শেবাগ, অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার টম মুডি, আফগানিস্তান দলের বর্তমান কোচ লালচাঁদ রাজপুত এবং পাকিস্তান ও বাংলাদেশ দলের প্রাক্তন কোচ ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান রিচার্ড পাইবাস।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *