Shakib Al Hasan has no desire to become captain

অধিনায়ক হওয়ার জন্য এখনই মানসিক ভাবে প্রস্তুত নন তিনি। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানালেন বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার শাকিব আল হাসান। যদিও আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে তার হাতেই থাকছে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব।তিনি জানিয়েছেন এখনই বাংলাদেশকে কোনও ফর্ম‍্যাটেই নেতৃত্ব দেওয়ার ইচ্ছা নেই তার। দল এখনও প্রস্তুত নয়, তাই দলকে দিশা দেখাতে নিজের ঘাড়ে অধিক দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত তিনি।তবে তিনি মনে করেন তার নিজের ওপর যদি তিনি ফোকাস ধরে রাখেন তাহলে তা দলের পক্ষে খুব ইতিবাচক ভুমিকা পালন করতে পারে।

অধিনায়ক হওয়ার কোনও রকম ইচ্ছে নেই শাকিব আল হাসানের 1

একটি সাক্ষাৎকারে তার বক্তব্য, ” আমি এখনই মানসিক ভাবে প্রস্তুত নই দেশকে টি টোয়েন্টি এবং টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য।সত্যি কথা বলতে আমার কোনও ফর্ম‍্যাটেই দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার কোনও রকম ইচ্ছে নেই।আমি আমার উপর ফোকাস যদি ধরে রাখতে পারি, তবে তা দলকে সাহায্য করতে পারে। তবে এখন দল সঠিক শেপে নেই , তাই আমাকে এখন অধিক দায়িত্ব নিতেই হবে ” ।

দলের যুবসম্প্রদায়ের উচিত আরও অধিক দায়িত্ব নেওয়ার, এমনটাই মনে করেন শাকিব, তার বক্তব্য, ” আমার মনে হয় দলের যুব ক্রিকেটারদের অধিক দায়িত্ব নেওয়া উচিত।আমি এবং রহিম খুব কম বয়সে দেশের অধিনায়ক হয়েছি।তাদের উপর দায়িত্ব না দিলে তুমি বুঝতে পারবে না, তারা কি করতে পারে।আসছে ওয়াল্ড টেস্ট চ‍্যাম্পিয়ানশিপ এবং টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, তাই আমাদের আগামী চারবছরের কথা মাথায় রেখে প্ল‍্যান করতে হবে ” ।

অধিনায়ক হওয়ার কোনও রকম ইচ্ছে নেই শাকিব আল হাসানের 2

প্রসঙ্গত, এবারের বিশ্বকাপে বিশেষ কিছু করে উঠতে পারেনি বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি মোর্তাজা। এই বিষয়টি গোটা দলের উপর প্রভাব পড়েছিলো বলেই মনে করেন শাকিব, তাঁর বক্তব্য , ” আমি মনে করি আমরা বিশ্বকাপে আরও একধাপ এগোতে পারতাম যদি আমরা সকলের থেকে সমান অবদান পেতাম। আসলে বিষয় হলো, যখন একজন ক্রিকেটার নিজে বিশেষ কিছু করে উঠতে পারে না, তখন সে দলের থেকে বেশি নিজেকে নিয়ে ভাবে, যা একটি দলের পক্ষে সঠিক বিষয় নয়। এই বিষয়ে এইবার মাশরাফির সাথে ঘটেছে বলে মনে করি আমি “।

আগামী ৫ ই সেপটেম্বর চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নামতে চলেছে বাংলাদেশ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *