ফের শাহিদ আফ্রিদির বিতর্কিত বয়ান, পাকিস্তানের কাছে হারার পর টিম ইন্ডিয়া চাইত ক্ষমা

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে খেলা হওয়া ম্যাচ নিয়ে সমর্থকদের মধ্যে আলাদাই উৎসাহ দেখতে পাওয়া যায়। চির প্রতিদ্বন্ধী দল ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে ম্যাচ নিয়ে এখন শাহিদ আফ্রিদি আরো একবার বিতর্কিত বয়ান দিয়েছেন। একটি ইন্টারভিউ চলাকালীন শাহিদ আফ্রিদি দাবী করেছেন যে পাকিস্তানের হাতে হারার পর ভারতীয় দল ক্ষমা চাইত।

টিম ইন্ডিয়া চেয়েছিল ক্ষমা

ফের শাহিদ আফ্রিদির বিতর্কিত বয়ান, পাকিস্তানের কাছে হারার পর টিম ইন্ডিয়া চাইত ক্ষমা 1

গত কিছু সময় ধরে শাহিদ আফ্রিদিকে ভারতের বিরুদ্ধে বিষ ওগরাতে দেখা যাচ্ছে। কখনো তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর উপর আঙুল তুলেছেন তো কখনও কাশ্মীর আর ভারতীয় সেনার উপর। এখন আরো একবার আফ্রিদি এমন বয়ান দিয়েছেন যা শুনে যে কোনো ভারতীয় সমর্থকদের রক্ত গরম হয়ে উঠবে। ক্রিক কাস্টের ইউটিউব শোয়ে সভেরা পাশার সঙ্গে কথাবার্তায় শাহিদ আফ্রিদি বলেন,

“আমরা ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে সবসময় পছন্দ করেছি। আমরা অনেকবার ভারতকে লজ্জাজনকভাবে হারিয়েছি। আমরা ওদের এত পিটিয়েছি যে ওরা ম্যাচের পর আমাদের কাছে ক্ষমা চাইত”।

ভারতীয় দলের বিরুদ্ধে খেলা বড়ো কথা

ফের শাহিদ আফ্রিদির বিতর্কিত বয়ান, পাকিস্তানের কাছে হারার পর টিম ইন্ডিয়া চাইত ক্ষমা 2

ভারতীয় খেলোয়াড়দের সঙ্গে বেশ কয়েকবার শাহিদ আফ্রিদিকে মাঠে ঝামেলায় জড়াতে দেখা গেছে। কিন্তু এখন যখন তাকে ফেবারিট ইনিংসের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয় তো আফ্রিদি বলেন যে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলা হওয়া ম্যাচগুলি তিনি যথেষ্ট এনজয় করেছেন। নিজের ফেবারিট ইনিংসের ব্যাপারে বলতে গিয়ে তিনি বলেন,

“ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আমি খেলার সবসময় আনন্দ পেয়েছি। ভারতের দল ভীষণই ভালো। ওদের পরিস্থিতিতে খেলা আর পারফর্ম করা বড়ো বিষয়। সবচেয়ে স্মরণীয় মুহূর্তে সেটাই ছিল যখন আমি চেন্নাইতে ১৯৯৯ সালে ১৪১ রানের ইনিংস খেলেছিলাম। তখন পাকিস্তানী টিম ম্যানেজমেন্ট আমাকে নিয়ে যাচ্ছিল না, কিন্তু ওয়াসিম ভাই আর তৎকালীন প্রধান নির্বাচক আমাকে সাপোর্ট করেন। এটা ভীষণই মুশকিল সফর ছিল আর আমার ইনিংস ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ”।

শাহিদ আফ্রিদি দিয়েছেন ভারতের বিরুদ্ধে বয়ান

ফের শাহিদ আফ্রিদির বিতর্কিত বয়ান, পাকিস্তানের কাছে হারার পর টিম ইন্ডিয়া চাইত ক্ষমা 3

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অলরাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদি গত কিছু সময় ধরে ভারতের বিরুদ্ধে বিষ উগরেই চলেছেন। তিনি কখনো ভারতের প্রধানমন্ত্রী তো কখনো কাশ্মীরের বিষয় নিয়ে তীক্ষ্ণ বয়ানবাজি করতে দেখা যাচ্ছিল। সম্প্রতিই তিনি কাশ্মীরের মানুষদের উস্কাতে গিয়ে বলেছিলেন যে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সম্প্রদায় এবং ধর্মকে ভাগ করার রোগ রয়েছে। তবে এরপর ভারতীয় খেলোয়াড়াও তাকে ছাড়েননি আর দারুণভাবে তিরস্কার করেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *