বীরেন্দ্র সহবাগ

অস্ট্রেলিয়া ভারতে এসেছে তিন সপ্তাহের ওপর হয়ে গেলো, এর মধ্য়ে পাঁচ ম্য়াচের ওয়ান-ডে সিরিজও খেলা হয়ে গিয়েছে। আর মাত্র তিনটি টি-২০ ম্য়াচ বাকি ভারত সফর শেষ করে দেশে রওনা দেওয়ার আগে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত কোনও অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারকে ক্রিকেট মাঠে ম্য়াচ চলাকালীন ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে স্লেজিং জড়াতে দেখা গেলো না। কোনও বিতর্কিত ঘটনাই ঘটেনি এখনও পর্যন্ত ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজকে কেন্দ্র করে। অথচ এই খেলাটাতে অজিদের সবাই পারদর্শী বলে জানে। অ্য়ালান বর্ডার, মার্ক টেলর, স্টিভ ওয়া, রিকি পন্টিং, মাইকেল ক্লার্ক – ক্রিকেটীয় মধ্য়যুগ থেকে আধুনিকতায় পাড়ি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে কিংবদন্তি অধিনায়করা রাজত্ব করে গিয়েছেন। সবাই নিজের নিজের গুনে অতি ভদ্র আবার সম্মানীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে গুনী নেতাও ছিলেন। কিন্তু, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের খুনি মেজাজটাই তো আসল। মাঠে নামার আগে কথায় মাত। দুশমনকে ম্য়াচ শুরুর আগে থেকে দমিয়ে ফেলা, কিছু বাকি থাকলে মাঠে নামার পর ক্রমাগত স্লেজিং করে করে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসতে বাধ্য় করা বিপক্ষ দলের ব্য়াটসম্য়ানদের। কিংবদন্তি লেগ-স্পিনার শেন ওয়ার্নের এই অতোগুলি উইকেটের পেছনে যে কত স্লেজিং জড়িয়ে আছে, তা তার খেলা পুরনো ম্য়াচের ভিডিও দেখতে বসলেই জানতে পারবেন না উৎসুক পাঠকরা। অবশ্য়ই যাঁরা বিগত তিন দশকের ক্রিকেট খেলা দেখে বড় হয়েছেন, তাঁদের জন্য় এই পরামর্শ নয়। তাঁরা প্রতিবেদনটি পড়েই বুঝতে পারছেন, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট টিম এবং স্লেজিং একসঙ্গে সব সফর করে। এবার সেই গরম হাওয়াটাই নেই স্টিভ স্মিথের টিমের সঙ্গে।

ভারতের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র সেহওয়াগ তার কারণটা ঠাওর করতে পেরেছেন। সব সুতোটাই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের হাতে বাঁধা। ব্য়াপারটা হল কাঁডি কাঁড়ি অর্থ। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি থেকে শুরু ক্রিকেট বিশ্বের সব বোর্ড জানে অর্থবলে বিসিসিআইয়ের ধারেকাছে ঘেঁষা খুব কঠিন। ভাগ্য় ভালো বিসিসিআই গরীব দেশের বোর্ডদের দেখে নাক সিঁটকোয় না। সব টেস্টে খেলিয়ে ক্রিকেট টিমগুলির বোর্ডেরা ভারতের সঙ্গে সিরিজ করানোর জন্য় মুখিয়ে থাকে। গোটা ক্রিকেট বিশ্বে ভারতীয় ক্রিকেটারদের যা ম্য়াচ খেলতে হয় সারাবছর, এত ম্য়াচ আর কোনও দেশের ক্রিকেটাররা খেলেন না। ২০০৮ সালে বিসিসিআই তাদের ক্রোড়পতি ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আইপিএল শুরু করার পর থেকে বিদেশে ক্রিকেটাররা বছর ঘুরলেই অসহ্য গরম সহ্য করেও এপ্রিল-মে মাসে ভারতে এসে উপস্থিত হন টাকার লোভে। আর সেই কারণে মুখে একেবারে চাবি দিয়ে রেখেছেন অজি ক্রিকেটাররা। ওই অল্প সময়ের মধ্য়ে পকেটে যা অর্থ আসবে, সারা বছর দেশের হয়ে ক্রিকেট খেললেও অতো অর্থ অ্য়াকাউন্টে পড়বে না।

সামনের বছর আবার নতুন করে ক্রিকেটারদের নিলামে চড়ানে হবে। ওই টিমের ক্রিকেটার ওই টিমে যাবেন। আবার এই দলের তারকাকে আবার এই দলে কিনে আনা হবে। যে বেশি টাকা ছুঁড়ে দিতে পারবেন, সংশ্লিষ্ট বিদেশি ক্রিকেটারটি তার দলের হয়ে খেলবেন। দু-একটা বাদ দিলে প্রায় সব  দলেই ভারতীয় ক্রিকেটাররা নেতা। নেতা যা বলবেন, সেই ক্রিকেটারকে মালিক দলে নিতে চাইবেন। সেই কারণেই নাকি কোনও অজি ক্রিকেটার ভারতীয় দলের সঙ্গে স্লেজিংয়ে গিয়ে লোভনীয় অর্থের থলিটা হাত পাওয়ার আগে হাতের লক্ষ্মি পায়ে ঠেলার ব্য়াপারে সতর্ক হয়ে আছেন। একটি বেসরকারি সংবাদ মাধ্য়মকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বীরু কোনওরকম রাখঢাক না করেই সোজাসুজি বলেছেন, ওরা সতর্ক হয়ে আছে। আগামী বছর আইপিএলের অকশন বসবে। কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারকে স্লেজিং করলে হীতেবিপরীত হতে পারে। দেখা গেল, স্লেজিং করার কারণেই পরের বছর কোনও আইপিএল ফ্র্য়াঞ্চইজির ভারতীয় মালিক যদি ওদের দলে নেওয়ার আগে দুবার ভাবনা-চিন্তা করেন। যদি স্লেজিং করার কারণে তাকে দলে নেওয়ার জন্য় মোটা অঙ্কের বোলি লাগানো হলো না। এই কারণেই হয়তো কোনও অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার এখনও পর্যন্ত কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে স্লেজিংয়ে জড়িয়ে পড়েনি।

ভারতের কাছে ৪-১ ব্য়বধানে সিরিজ খোয়ানোর নিয়ে সেহওয়াগ আরও একটি কারণ দেখতে পেয়েছেন। তাঁর মতে ভারতে এবার খেলতে আসা অস্ট্রেলিয়া দলটা অতিরিক্তভাবে স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার নির্ভর। এই কারণেই দলটা বেশি করে চাপের মধ্য়ে রয়েছে। বীরুর কথায়, আমার মনে হয় অস্ট্রেলিয়ান দলটা খুব চাপে আছে। কারণ, ওদের দলে কোনও বড় মাপের ক্রিকেটার নেই। দলটা অতি মাত্রায় ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ ও অ্য়ারন ফিঞ্চের ওপর নির্ভরশীল।

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ
    সেই কবেই নেভিল কার্ডাস বলে গেছেন ওয়ান ডে ক্রিকেটে পাজামা ক্রিকেট বলে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের জামানায় টেস্ট...

    জয়ের সমস্ত কৃতিত্বই ওর : রোহিত শর্মা

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারার পর ভারতীয় দল আরও দারুণভাবে ফিরে এসে সেঞ্চুরিয়ানের সুপার...

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...

    তৃতীয় টি২০তে এই তারকার খেলা নিয়ে সন্দেহ

    পিটিআইয়ের একটি রিপোর্টের মোতাবিক তৃতীয় এবং ফাইনাল ওয়ান ডেতে জসপ্রীত বুমরাহের অংশ নেওয়া এখনও সন্দেহজন অবস্থায় রয়েছে।...

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান
    ২০১৯ বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র দেড় বছর। তার আগে গত ২ বছর ধরেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ভারতীয়...