সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলীর সিএএ সংশোধন বিলের প্রকাশ্য বিরোধিতা, সঙ্ঘকে করলেন নিশানা

বিসিসিআই সভাপতি হওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া আর আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটির বিষয়ে এখনো পর্যন্ত নিরব থেকেছেন। কিন্তু তার মেয়ে সানা গাঙ্গুলী তার এই নিরবতার কথাকে নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে লিখেছেন। যারপর থেকে এমন গুজব ছড়িয়েছে যে সৌরভ গাঙ্গুলী তার এই উচ্চপদ কেন্দ্রীয় গৃহমন্ত্রী আর ভারতীয় জনতা পার্টির সভাপতি অমিত শাহের সুপারিশে পেয়েছেন। সানা সঙ্ঘের উপর নিশানা সেধেছেন।

সানা গাঙ্গুলী নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লিখলেন এই কথা

সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলীর সিএএ সংশোধন বিলের প্রকাশ্য বিরোধিতা, সঙ্ঘকে করলেন নিশানা 1

সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলী নিজের ইন্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে নাগরিকতা বিল চালু হওয়ার পর থেকে দেশ জুড়ে হওয়া বিরোধিতার পর এমন একটি কথা লিখেছেন যারপর বেশকিছু মানুষ তার প্রশংসা করছেন তো বেশকিছু মানুষ তার এই পোষ্টের বিরোধ করছেন।

খুশবন্ত সিং দ্বারা ‘দ্য এন্ড অফ ইন্ডিয়া’ (২০০৩ এ প্রকাশিত) বইয়ের একটি অংশ শেয়ার করে সানা লেখেন—

সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলীর সিএএ সংশোধন বিলের প্রকাশ্য বিরোধিতা, সঙ্ঘকে করলেন নিশানা 2

“প্রত্যেক ফ্যাসিস্ট শক্তিই প্রথমে কোনও একটি জাতি বা সংগঠনের প্রতি ভীতির সৃষ্টি করে। এটা একট জাতি বা সংগঠন দিয়ে শুরু হলেও, এখানেই থেমে থাকে না। আজ যাঁরা ভাবছেন, আমরা তো এদেশের হিন্দু আমাদের আবার কী বিপদ? যা সব সমস্যা তাতো মুসলিমদের। তাঁদেরও বিপদ আসবে। মোটেও ভাববেন না আপনি বেঁচে গিয়েছেন। সঙ্ঘপরিবার ইতিমধ্যেই বাম মনস্ক ইতিহাসবিদদের টার্গেট করা শুরু করেছে। এর পর হয়তো যে সব মেয়েরা স্কার্ট পরে তাঁদের উপর ওদের ঘৃণা আছড়ে পড়বে। যাঁরা মাংস খায়, যাঁরা মদ্যপান করে, তাঁদের সবাইকে টার্গেট করা হবে।”

সৌরভ কন্যা কিছুক্ষণ পরই করলেন পোষ্ট ডিলিট

সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলীর সিএএ সংশোধন বিলের প্রকাশ্য বিরোধিতা, সঙ্ঘকে করলেন নিশানা 3

যদিও সানা এই পোষ্ট কিছুক্ষণ পরই ডিলিটও করে দেন। তিনি জিজের এই পোষ্টে সম্পূর্ণভাবে হিন্দু সঙ্ঘকে নিশানা করেছেন। এই অবস্থায় তার নিজেরই পোষ্ট কিছুক্ষণ পরেই ডিলিট করার কারণের ব্যাপারে এখনো কিছু জানা যায়নি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *