RCBvsMI: হারের পর রোহিত শর্মা জানালেন কেনো করাননি সুপার ওভারে ঈশান কিষাণকে ব্যাটিং

আইপিএল ২০২০-র দশম ম্যাচ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মধ্যে খেলা হয়েছে। তবে এই সুপার ওভারের ম্যাচে শেষ হাসি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর হেসেছে। এই সুপার ওভারের তারা রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে দিয়েছে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা এই ম্যাচে পাওয়া হারের পর ঈশান কিষাণের জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। সেই সঙ্গে তিনি এটাও জানিয়েছেন যে কেনো তিনি সুপার ওভারে কিষাণকে পাঠাননি।

রোহিত শর্মা সুপার ওভারে পাওয়া হারের আসল কারণ জানালেন

RCBvsMI: হারের পর রোহিত শর্মা জানালেন কেনো করাননি সুপার ওভারে ঈশান কিষাণকে ব্যাটিং 1

আরসিবির বিরুদ্ধে পাওয়া হারে রোহিত শর্মাকে সামান্য নিরাশ অবশ্যই দেখছি। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে দ্বিতীয় হারের পর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেছেন যে ভীষণই ভালো ম্যাচ দেখতে পাওয়া গেছে, এর সঙ্গেই রোহিত ঈশান কিষাণেরও জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। নিজের পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে তিনি বলেন,

“এটা ক্রিকেটের দুর্দান্ত ম্যাচ ছিল। যখন আমরা ব্যাটিং শুরু করেছিলাম, তখন আমরা একদমই খেলায় ছিলাম না। কিন্তু তখনও জানতাম যে আমাদের কাছে যে ব্যাটিং পাওয়ার রয়েছে তাতে আমরা ২০০ রান তাড়া করতে পারব। পোলার্ড যতক্ষণ রয়েছে ততক্ষণ যা খুশি হতে পারে, ঈশানও ভীষণই ভাল ব্যাটিং করছিল। আমরা ঈশান কিষাণকে সুপার ওভারে এই কারণে ব্যাটিংয়ে পাঠাইনি কারণ ও ভীষণই ক্লান্ত ছিল। আমরা ভাবি যে আমরা ওকে পাঠাতে পারি কিন্তু বলার মানে যে ৭ রানের জন্য আপনার নিজের তরফে ভাগ্যের প্রয়োজন, আমদের সুপার ওভারে উইকেট হাসিল করার ছিল কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত বাউন্ডারি হয়ে যায়। এই খেলায় অনেক কিছু পজিটিভিটি রয়েছে”।

৩টি হাফসেঞ্চুরির সৌজন্য আরসিবি করে ২০১ রান

RCBvsMI: হারের পর রোহিত শর্মা জানালেন কেনো করাননি সুপার ওভারে ঈশান কিষাণকে ব্যাটিং 2

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মধ্যে চলা ম্যাচে বিরাট কোহলি টস হেরে প্রথমে ব্যাট করার জন্য মাঠে নামেন। আরসিবির দল ভালো শুরু করে। দল দেবদত্ত পডিক্কলের রূপে প্রথম ধাক্কা লাগে যখন পডিক্কল ৪০ বলে ৫৪ রান করে ট্রেন্ট বোল্টের শিকার হন। অন্যদিকে টুর্নামেন্টে তৃতীয়বার অধিনায়ক কোহলি বড়ো ইনিংস খেলতে পারেননি আর ১১ বলে ৩ রান করে আউট হন। অ্যারণ ফিঞ্চ ৩৫ বলে ৫০ রান করেন। ১৫৪ রানে আরসিবির ৩ উইকেট পড়ে যায়। কিন্তু এবি ডেভিলিয়র্স আর শিভম দুবে ইনিংসকে সামলান আর শক্তভাবে এগিয়ে নিয়ে যান। দুবে ১০ বলে ২৭ রান করেন, অন্যদিকে ডেভিডলিয়র্স ৫৫ রান করে দলকে ২০১ পর্যন্ত পৌঁছন। পরিণামস্বরূপ আরসিবির দল মুম্বাইয়ের সামনে ২০২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর খাড়া করে। প্রথম ইনিংসে বিরাট সেনা মোট ১০টি ছক্কা মেরেছে, যার মধ্যে ডেভিলিয়র্স ৪, ৩টি শিভম দুবে, ২টি দেবদত্ত পডিক্কল আর একটি মারেন অ্যারণ ফিঞ্চ।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *