রোহিত শর্মার কোচ জানালেন কখন এই তারকার মধ্যে তিনি দেখেছিলেন নেতৃত্বের খুন, সেই সময় জেতাতে ম্যাচ

আইপিএলের ইতিহাসে এক সে এক মহান অধিনায়ক এসেছেন। যেখানে কিছু অধিনায়ক তো নিজের নেতৃত্বের কৌশলে বিশেষভাবে প্রভাবিত করেছেন। এদের মধ্যে বিরাট কোহলি হোক বা এমএস ধোনি বা ফের গৌতম গম্ভীর, তাদের নেতৃত্বের একটা আলাদাই প্রভাব দেখা গিয়েছে। এদের নেতৃত্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রভাব রোহিত শর্মার থেকেছে।

রোহিত শর্মাকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ২০১৩য় দিয়েছিলেন অধিনায়কত্ব

রোহিত শর্মার কোচ জানালেন কখন এই তারকার মধ্যে তিনি দেখেছিলেন নেতৃত্বের খুন, সেই সময় জেতাতে ম্যাচ 1

রোহিত শর্মা… মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক যনি নিজের নামে এক সে এক সফলতা হাসিল করে চলেছেন। হিটম্যান নামে জনপ্রিয় রোহিত শর্মা আইপিএলের ত্রয়োদশ মরশুমে পঞ্চমবার নিজের অধিনায়কত্বে খেতাব জিতেছেন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ২০১৩য় রোহিতকে নিজেদের দলের নেতৃত্ব মরশুমের মাঝপথেই দিয়েছিলেন। রিকি পন্টিংয়ের মতো মহান অধিনায়কের কাছ থেকে নিয়ে রোহিত শর্মাকে যখন নেতৃত্বের ব্যাটন দেওয়া হয় তো কেউ ভাবেনি যে এই সিদ্ধান্ত ঐতিহাসিক প্রমানিত হতে চলেছে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে পঞ্চমবার করেছেন চ্যাম্পিয়ন

রোহিত শর্মার কোচ জানালেন কখন এই তারকার মধ্যে তিনি দেখেছিলেন নেতৃত্বের খুন, সেই সময় জেতাতে ম্যাচ 2

এরপর যেনো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ছবিই বদলে যায়। রহিত শর্মা অধিনায়কত্ব সামলানোর পর ওই বছর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে নিজের কৌশলে চ্যাম্পিয়ন করে দেন। এরপর রোহিত অধিনায়ক হিসেবে নিয়মিত এগিয়ে যেতে থাকেন। রোহিত শর্মা আজ যতই ভারতীয় ক্রিকেট দলের সীমিত ওভারের সহঅধিনায়ক হন, কিন্তু তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে নিজের নেতৃত্বে ৫বার খেতাব জিতিয়েছেন। তার নেতৃত্বে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ২০১৩, ২০১৫, ২০১৭ ২০১৯ এর পর এই মরশুমে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সফলতা অর্জন করে।

রোহিত শর্মার স্কুলের কোচ বললেন, শুরু থেকেই ছিল নেতৃত্বের গুণ

রোহিত শর্মার কোচ জানালেন কখন এই তারকার মধ্যে তিনি দেখেছিলেন নেতৃত্বের খুন, সেই সময় জেতাতে ম্যাচ 3

রোহিত শর্মার স্কুলের দলেই তার কোচ থাকা দীনেশ লাড হিটম্যানকে নিয়ে বিশেষ কথা বলেছেন। দীনেশ লাড বলেছেন যে রোহিতের কাছে শুরু থেকেই নেতৃত্বের গুণ উপস্থিত ছিল। দীনেশ লাড বলেন যে, “স্কুলের দিন থেকেই ও নিজের দমে ম্যাচ জেতাতো আর ওর মধ্যে নেতৃত্বের ক্ষমতাও ছিল। ও উইকেটও নিত আর সেঞ্চুরিও করত। আমি নবম শ্রেণীতেই ওকে স্কুল দলের অধিনায়ক করে দিয়েছিলাম। ও যথেষ্ট আক্রামণাত্মক ছিল যে সবসময় জিততে চাইত আর ওই জয়ে যোগদান দিতে চাইত। আমি ওকে সবসময় ক্রিজে শান্তচিত্ত হয়ে খেলার পরামর্শ দিতাম। কারণ টেকনিকে ও মহারথি ছিল আর ক্রিজে জমে যাওয়ার পর ওকে আউট করা অসম্ভব হয়ে যেত”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *