২ মার্চ থেকে মাঠে নামবেন শচীন, সেহবাগ, ব্রেট লি আর ব্রায়ান লারার মতো তারকারা 1

২০২০ সালে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ শুরু হয়েছিল। এই সিরিজে বিশ্ব ক্রিকেটের সেই দিগগজ খেলোয়াড়রা অংশ নেন, যারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফেলেহেন। এই বছর সিরিজের শুরু ২ মার্চ থেকে হবে আর এর আয়োজন রায়পুর, ছত্তিশগড়ে হবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজন করার জন্য সহমতি জানিয়েছেন।

বিশ্ব ক্রিকেটের তারকারা নামবেন মাঠে

২ মার্চ থেকে মাঠে নামবেন শচীন, সেহবাগ, ব্রেট লি আর ব্রায়ান লারার মতো তারকারা 2

গত বছর থেকে শুরু হওয়া রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ এবার ২ মার্চ থেকে ২১ মার্চ পর্যন্ত রায়পুরে আয়োজিত হবে। টুর্নামেন্টে ইন্ডিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্টইন্ডিজ সহ শ্রীলঙ্কার দলও অংশ নেবে। এই টুর্নামেন্টে শচীন তেন্ডুলকর, জন্টি রোডস, ব্রেট লি, ব্রায়ান লারা, মুথাইয়া মুরলীধরণের মতো ক্রিকেটের অবসরপ্রাপ্ত বড়ো বড়ো তারাকারা অংশগ্রহণ করবেন। সুনীল গাভাস্কার রবিবার মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের সঙ্গে এই টুর্নামেন্ট রায়পুরে আয়োজিত করার ব্যাপার আলোচনা করেন, এবং বাঘেল এই টুর্নামেন্ট আয়োজিত করার সম্মতি জানিয়ে দিয়েছেন।

গাভাস্কারের কোম্পানি করবে আয়োজন

২ মার্চ থেকে মাঠে নামবেন শচীন, সেহবাগ, ব্রেট লি আর ব্রায়ান লারার মতো তারকারা 3

ভারতে প্রায়ই দিনই মানুষ রোড অ্যাক্সিডেন্টে নিজেদের প্রাণ হারান বা দুর্ঘটনার কারণে তারা আহত হন। কোথাও না কোথাও তাদের অবহেলাই দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজের উদ্দেশ্য ভারতে সড়ক সুরক্ষার গুরুত্বের ব্যাপারে মানুষকে সচেতন করা। এই আয়োজনকে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড দ্বারা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। গাভাস্কারের কোম্পানি প্রোফেশনাল ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ দ্বারা এই টুর্নামেন্ট আয়োজিত আর প্রচারিত হওয়ার পাশাপাশি সড়ক পরিবহন মন্ত্রালয় দ্বারা সমর্থিত। এই টুর্নামেন্টের জন্য বায়োকম ১৮র কালারস সিনেপ্লেক্স প্রসারণের অংশীদার আর ভুট এবং জিয়ো এই টুর্নামেন্টের ডিজিটাল পার্টনার। অর্থাৎ আপনারা এই টুর্নামেন্টের ম্যাচ কালারস, ভুট এবং জিয়ো টিভিতে দেখতে পাবেন।

গত বছর সম্পূর্ণ হতে পারেনি সিরিজ

২ মার্চ থেকে মাঠে নামবেন শচীন, সেহবাগ, ব্রেট লি আর ব্রায়ান লারার মতো তারকারা 4

২০২০ তে রোড সেফটি সিরিজ শুরু তো হয়েছিল কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে এই সিরিজ সম্পূর্ণ হতে পারেনি আর মাঝপথেই এটি থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন সমস্ত ক্রিকেট ফ্যানসরা নিজেদের পছন্দের তারকা খেলোয়াড়দের আরও একবার মাঠে নামতে দেখতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করহেন। এই অনুষ্ঠান না শুধু ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য রোমাঞ্চকর হতে চলেছে বরং এর ছত্তিশগড়ে আয়োজিত হওয়ার কারণে এই রাজ্যে পর্যটন এবং বিনিয়োগকে উৎসাহ দেওয়ার ক্ষেত্রেও সাহায্যপূর্ণ প্রমাণিত হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.