[cwa id='h1']
রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালোর

JCC
পেশাদার ক্রিকেটার হতে চান?
এখানে রেজিস্টার করুন

*T&C Apply

গত বছরের রানার্স আপ দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালোর এই বছর আইপিএলে অন্যতম জনপ্রিয় দল সকলের কাছেই। এই দলকে সমর্থণ করার একটাই কারণ, এবি ডেভিলিয়ার্স, বিরাট কোহলি বা ক্রিস গেইলের ব্যাটে দূর্দান্ত বিনোদনের মজা নেওয়া। কিন্তু লিগের শুরু থেকেই চোটের কারণে জর্জড়িত এই দল। প্রথমে বিরাট, পরে এবিডি চোট পেয়ে অনিশ্চিত হয়ে পড়েন। এদিকে ওপেনার কেএল রাহুক তো ছিটকেই গেলেন চোটের কারণে। তবে বিরাট ও এবিডি সমস্যা সামলে দলে ফিরেছে। কিন্তু গত ম্যাচে আবার চোট পেয়ে মাঠের বাইরে যেতে হয় দক্ষিণ আফ্রিকার এই ব্যাটসম্যানকে। সঙ্গে ক্যারিবিয়ান স্পিনার স্যামুয়েল বদ্রী ও বোলার টাইমল মিলসও চোটের কারণে গুজরাটের বিরুদ্ধে হওয়া শেষ ম্যাচ খেলেনি।

চোটের কারণে নিজে থেকেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন ভারতের এই ওপেনার ব্যাটসম্যানটি!

আইপিএলের মাঝপথে এসে আবার নতুন করে এই চোট ঘোরতর চিন্তায় ফেলে দেয় ডানিয়েল ভেত্তোরিকে। মরশুমের আগামী ম্যাচগুলি কী তাহলে দুর্বল হয়েই খেলতে হবে আরসিবিকে! প্রশ্ন উঠেছিল। তবে দলের প্রমুখ বোলার শ্রীনাথ অরবিন্দের কথায় মিলল খুশির খবর। আরসিবির এই পেস বোলার বলেন, “এবিডি, টাইমল মিলস ও বদ্রীর চোট তেমন গুরুতর কিছু নয়।পরের ম্যাচেই মাঠে ফিরতে চলেছে এই তিনমূর্তি।”

শ্রীনাথের এই কথা অনেকটা আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে আরসিবির সমর্থকদের। কারণ শেষ ম্যাচে ক্রিস গেইল দূর্দান্ত খেললেও, এই দলের মধ্যে এখনও ভারসাম্য লক্ষ্য করা যায়নি। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে দারুণ বল করেছেন ক্যারিবিয়ান স্পিনার বদ্রী। হ্যাটট্রিক করে তিনি আরসিবিকে ওই কম রানের ম্যাচে জয়ের আশা দেখিয়েছিলেন। ফলে এই স্পিনারকে কোনওভাবেই হারাতে চায়না আরসিবি।

চোট পাওয়া সরফরাজের জায়গায় জেনে নিন, কে এলেন কোহলির আরসিবিতে?

অরবিন্দের কথায় জানা যায়, গুজরাটের ম্যাচ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগেই টুইট করে এবিডি খেলতে না নামার কথা জানায়। এর ফলেই এক রহস্য দানা বাঁধে। তাঁর চোট নিয়ে আরসিবির মধ্যে গভীর সংসয় তৈরি হয়েছিল। তবে এখন আর কোনও সমস্যা নেই।

কেন আরসিবি জয়ের মুখ দেখতে পারছেনা? এই প্রশ্নের জবাবে অরবিন্দ বিশেষভাবে বোলিং-এর দিকটা নজরে আনলেন। তিনি বলেন, “বোলারদের নিজেদের প্রদর্শণের দিকে আরও নজর দিতে হবে। বিপক্ষে কত বড় ব্যাটসম্যান দাঁড়িয়ে আছে তা না দেখে ঠিক জায়গায় বল করতে হবে। বিশেষ করে ডেথ ওভারের দিকে বল করতে একটা সমস্যা দেখা দিচ্ছে। সেই সমস্যা দ্রুত কাটিয়ে উঠলেই অপ্রতিরোধ্য হয়ে পড়বে আরসিবি।”

আপাতত কেকেআরের বিরুদ্ধে আসন্ন ম্যাচের জন্য তৈরি হচ্ছে বিরাট কোহলির আরসিবি। ইডেন গার্ডেন্সে ঘরের মাঠে শক্তিশালী কলকাতার বিরুদ্ধে খেলাটা খুব একটা সহজ হবে না। তবে এই মাঠে এবিডির রেকর্ড ভালই। তিনি এই ম্যাচে দলেও ফিরছেন। কাজেই বর্তমানে খুব একটা চিন্তিত নয় বেঙ্গালুরুর এই ফ্রাঞ্চাইজি।

[cwa id='moreat']