নিজেকে উপেক্ষিত হতে দেখে কষ্ট পেয়েছে রায়ডু , মনে করেন এই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার 1

অবসর নেওয়ার ২৪ ঘন্টা পরেও এখনো অব‍্যাহত ক্রিকেট মহলে “রায়ডু – চর্চা “। গতকাল সকলকে অবাক করে হঠাৎই সবধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে নিয়েছিলেন আম্বাতি রায়ডু। তার অবসর নেওয়ার পর থেকেই ভারতীয় ক্রিকেট মহলে শুরু হয়েছে তীব্র এক শোরগোলের । ইতিমধ্যে রায়ডুর হয়ে সুর চড়িয়েছিলেন গৌতম গম্ভীর। এইবার সেই তালিকায় ঢুকে পড়লেন আরও এক প্রাক্তন তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেহবাগ। বিরুর মতে নির্বাচক দ্বারা বারবার উপেক্ষা হওয়ায় কষ্ট পেয়েছেন বিরু। এবং সেই কষ্ট থেকেই রায়ডু এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মনে করছেন তিনি।

নিজেকে উপেক্ষিত হতে দেখে কষ্ট পেয়েছে রায়ডু , মনে করেন এই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার 2

বছর ৩৩ এর অন্ধ্রের ডান হাতি ব‍্যাটসম‍্যান এবছর বিশ্বকাপের স্ট‍্যান্ড – বাই ক্রিকেটারের তালিকায় ছিলেন।কিন্তু পরবর্তী সময়ে শিখর ধাওয়ান এবং বিজয় শঙ্করের চোট পেলেও তার সুযোগ হয়নি দলে, বরং সুযোগ পেয়েছেন ঋষভ পন্থ এবং মায়াঙ্ক অগ্রবাল।টিম ম‍্যানেজমেন্টের এমন সিদ্ধান্তে কার্যত হতাশ হয়েছিলেন।যদিও ক্রিকেট বোর্ড কে দেওয়া নিজের অবসর সম্পর্কিত পত্রে তার অবসরের কারন সম্পর্কে কিছু লেখেন নি রায়ডু।তবে জানিয়েছেন আইপিএলে খেলবেন না তিনি, তবে বিদেশি লিগ গুলোয় খেলতে দেখা যেতে পারে তাকে।

নিজেকে উপেক্ষিত হতে দেখে কষ্ট পেয়েছে রায়ডু , মনে করেন এই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার 3পরবর্তী সময়ে এই ভারতীয় ক্রিকেটার কে নিয়ে টুইট করেন সেহওয়াগ।সেখানে তিনি রায়ডুকে তার অবসরের পরবর্তী জীবনর জন্য শুভকামনার জানানোর পাশাপাশি তিনি উল্লেখ করেছেন তিনি নিশ্চিত বিশ্বকাপের দলে বারবার উপেক্ষা হওয়ার দরুন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিরু।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে হারারে তে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ভারতের হয়ে অভিষেক হয় রায়ডুর।সেই সময় ভারতীয় ক্রিকেটের উদীয়মান তারকা মনে করা হচ্ছিলো তাকে।কিন্তু পরবর্তী সময় ধারাবাহিকতা না দেখানোর ক্রমশ অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েন ভারতীয় দলে।দেশের হয়ে ৫৫ টি ওয়ানডে এবং ৬ টি টোয়েন্টি ম‍্যাচে খেলতে দেখা গেছে রায়ডুকে।ওয়ানডে তে তার রান সংখ্যা ১৬৯৪। গড় – ৪৭.০৫ ।সর্বোচ্চ – ১২৪* ।রয়েছে ১০ টি অর্ধশতরান এবং ৩ টি শতরান।অন‍্যদিকে ৫টি টোয়েন্টি ম‍্যাচে তিনি করেছিলেন ৪২ রান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *