নিস্ফলা ড্র দিয়েই শেষ হল রাজকোট টেস্ট 1

রাজকোট, ১৩ নভেম্বর: ভারতের মাটিতে পা দেওয়ার আগে অনেকেই ভেবেছিলেন, বিরাট কোহলির দলের কাছে হোয়াইটওয়াশ ইংল্যান্ড। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অ্যালিস্টার কুকের দলের খারাপ পারফরমেন্সই এই গুঞ্জনে ইন্ধন দিয়েছিল। তবে বাস্তবে তেমনটার কিছুই হল না। রাজকোট টেস্টের পাঁচটা দিনই ভারতীয় দলকে যথেষ্ট বেগ দিল ইংলিশ ব্রিগেড। ভারত-ইংল্যান্ড পাঁচ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচটি ড্র হলেও, নজর কাড়ল ইংল্যান্ডের পারফরমেন্স।

ম্যাচের শেষ দিন জয়ের জন্য ৩১০ রানের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নামে ভারত। তবে ১৭২ রান তুলতে ৬ উইকেট হারানোর পর শেষ দিনের খেলার ওপর পর্দা পড়ে যায়। রবিবার, ইংল্যান্ড ও জয়ের মাঝখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন শুধুমাত্র বিরাট কোহলি। ৪৯ রানে নট আউট থেকে শেষ পর্যন্ত দলকে ড্রয়ের মুখ দেখান তিনি।

তার আগে দিনের প্রথমে তিন উইকেট হারিয়ে ২৬০ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেয় ইংলিশরা। প্রথম ইনিংসের শেষে ইংল্যান্ড এগিয়ে ছিল ৪৯ রানে। ফলে সব মিলিয়ে মোট ৩০৯ রানের লিড পায় ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করেন অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক। ১৩০ রান করে আউট হন তিনি। আর অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা হাসিব হামিদ আউট হন ৮২ রান করে। জো রুট করেন মাত্র ৪ রান। বেন স্টোকস অপরাজিত থাকেন ২৯ রান করে। ভারতের হয়ে অমিত মিশ্র ২টি ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন ১টি করে উইকেট নেন।

বুধবার, অর্থাৎ ম্যাচের প্রথম দিন টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। দলের তিন ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে সব উইকেট হারিয়ে তারা ৫৩৭ রান করে। দলের পক্ষে জো রুট ১২৪, মঈন আলী ১১৭, বেন স্টোকস ১২৮ ও জনি বেয়ারস্টো ৪৬ রান করেন। ভারতের পক্ষে রবীন্দ্র জাদেজা ৩টি, মুহাম্মদ শামি ২টি, উমেশ যাদব ২টি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন ২টি ও অমিত মিশ্র ১টি করে উইকেট নেন।

এর জবাবে ভারত নিজেদের প্রথম ইনিংসের ব্যাট করতে নেমে মুরালি বিজয় ও চেতেশ্বর পূজারার সেঞ্চুরির পর ৪৮৮ রানে অলআউট হয়ে যায়। বিরাট কোহলির সাধের দলের হয়ে মুরালি বিজয় ১২৬, চেতেশ্বর পূজারা ১২৪ ও রবীচন্দ্রন অশ্বিন ৭০ রান করেন। ইংল্যান্ডের জার্সিতে আদিল রশিদ ৪টি, জাফর আনসারী ২টি, মঈন আলী ২টি, স্টুয়ার্ট ব্রড ১টি ও বেন স্টোকস ১টি করে উইকেট নেন। ব্যাটে-বলে দুরন্ত পারফরম্যান্স করে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার মঈন আলি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ইংল্যান্ড: ৫৩৭ ও ২৬০/৩ ডিক্লেয়ার

ভারত : ৪৮৮ ও ১৭২/৬ ( ৫২.৩ ওভার)

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *