রাহুলের ভরসা অশ্বিনে, বাজিমাৎ জাডেজার 1
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাডেজা

পুনেতে প্রথম টেস্টে ভারতের শোচনীয় হারের পর, বেঙ্গালুরুতে ভারত ঘুরে দাঁড়াবে এমনটাই আশা করেছিল সবাই। এমনকী ভারতীয় অধিনায়কও আশ্বাস দিয়েছিলেন, যেন তেন প্রকারেণ তারা সিরিজে সমতা ফেরাবেই বেঙ্গালুরুতে। কিন্তু সেই দৃশ্য চোখে পড়ল না এখনও পর্যন্ত। বেঙ্গালুরু রানের মাঠ বলেই জানত সবাই। কিন্তু দ্বিতীয় দিনেও তেমন রান চোখে পড়ল না চিন্নাস্বামীতে।

প্রথম দিনেই ভারতীয় ইনিংস শেষ হয়েছিল মাত্র ১৮৯ রানে। সেখানে দ্বিতীয় দিনে ১৯৭ রান তুলল অস্ট্রেলিয়া।দ্বিতীয় দিনের শেষে অস্ট্রেলিয়ার রান ৬ উইকেটে ২৩৭।

কীভাবে অনুশীলন করেন কোহলিরা! তা কতটা পরিশ্রমের? জানাল রাহুল

তাহলে কী এই ম্যাচও খোয়াতে বসছে ভারত? না। এমনটা মনে করেননা ভারতীয় শিবিরের দ্বিতীয় টেস্টের একমাত্র সফল ব্যাটসম্যান কে এল রাহুল। পিচের চরিত্র দেখে রাহুলের অন্ধ বিশ্বাস এই উইকেটে একমাত্র কামাল দেখাতে পারে রবিচন্দ্রণ অশ্বিন। লিঁয় যেভাবে তাঁর ভেলকি দেখিয়েছে, সেই একই ভেলকি অস্ট্রেলিয়াকেও দেখাতে পারে অশ্বিন।

রাহুল বলেন, “প্রথমদিকে ব্যাটে বল ভালই আসছিল। কিন্তু পিচ পুরনো হয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই স্পিনারদের সুবিধা হচ্ছিল। যার ফায়দা তুলেছে ন্যাথান লিঁয়।”

তিনি আরও বলেন, “অশ্বিন একজন বিশ্বমানের বোলার। ও দুটো উইকেট পেলেই এই পিচে আরও সাংঘাতিক হয়ে উঠবে।”

টেস্টে দ্রুততম ২৫০ উইকেট নেওয়া পাঁচ বোলার

রাহুলের অশ্বিনের উপর বিশ্বাস যে যথার্থ ছিল, তা দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই দেখা গেল। দূর্দান্ত স্পিনে তিনি ডেভিড ওয়ার্নারকে বোল্ড করে প্যাভেলিয়নে ফেরান। পরে অশ্বিনের বলে ধার চোখে পড়লেও উইকেট নিতে পারেননি তিনি। তবে রাহুলের এই ভরসার মর্যাদা রাখেন রবীন্দ্র জাডেজা। দ্বিতীয় দিনের প্রথম স্পেলেই তিনি অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে শিকার করেন। এদিন তিনি মোট তিন উইকেট পান। উমেশ যাদব ও ইশান্ত শর্মা একটি করে উইকেট নেন। ক্রিজে রয়েছে ম্যাথিউ ওয়েড (২৫ রান) ও মিচেল স্টার্ক (১৪ রান)।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *