আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 1

 

 

ভারতীয় ক্রিকেট অনুরাগীরা আইপিএলের ১৪ তম আসরের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। টুর্নামেন্টের তারিখ এখনও ঘোষণা করেনি বিসিসিআই, তবে ২০২১ সালের এপ্রিলের মাঝ সপ্তাহ থেকে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। কোভিড- ১৯ মহামারীর কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাশাহিতে শেষ মরসুমের আইপিএল খেলা হয়েছিল। তবে এবার ভারতেই আইপিএল দর্শকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। আইপিএলের আটটি দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, চেন্নাই সুপার কিংস, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, দিল্লি ক্যাপিটালস, পাঞ্জাব কিংস, রাজস্থান রয়্যালস এবং কলকাতা নাইট রাইডার্স আবারও দর্শকদের দুর্দান্ত অ্যাকশনে মুগ্ধ করবে।

আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 2
গত বছর মুম্বই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল ট্রফি জিতেছিল। দিল্লি ক্যাপিটালসকে ফাইনাল ম্যাচে হারিয়ে রেকর্ড পঞ্চমবারের মতো ট্রফি অর্জন করেছিল রোহিত শর্মার নেতৃত্বে মুম্বই। আইপিএল ২০২১ সালের নিলামের পরে আটটি দলে বেশ কিছু পরিবর্তন হয়েছে। তবে কোন দল বেশি শক্তিশালী? কোন দলই বা লিগ টেবিলের উপরে থেকে প্লে-অফে জায়গা করে নেবে আসুন দেখেনি।

আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 3

চেন্নাই সুপার কিংস: চেন্নাই সুপার কিংস আইপিএল ২০২০ তে তাদের দলের সেরা খেলোয়াড় সুরেশ রায়না না থাকায় যেন সেভাবে পারফরম্যান্স করতে পারেনি। সুরেশ রায়না ব্যক্তিগত কারণে টুর্নামেন্টের বাইরে চলে যায়, অলরাউন্ডার ডোয়েইন ব্রাভোর চোটের কারণে মাঝ টুর্নামেন্টে বেরিয়ে যান। এই বছর সিএসকে দলে দুর্দান্ত অলরাউন্ডার রয়েছে তাদের মধ্যে ডোয়েইন ব্রাভো, সুরেশ রায়না, রবীন্দ্র জাদেজা এবং স্যাম করণ। আইপিএল নিলাম চলাকালীন আরও দুটি অলরাউন্ডার – কৃষ্ণপ্পা গৌতম এবং মইন আলীকে কিনেছিল ফ্র্যাঞ্চাইজি। সিএসকে এর গত মরসুমের তুলনায় আরও ভাল পারফরম্যান্স দেবে বলে আশা করা হচ্ছে। বলা বাহুল্য, আইপিএল ২০২০ ব্যতীত, চেন্নাই সুপার কিংসগুলি প্রতি আইপিএল মরসুমে প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছিল।

আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 4

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: এই ফ্র্যাঞ্চাইজি দুর্দান্ত খেলোয়াড় নিয়ে একটি শক্তিশালী দল। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ গত পাঁচ বছর ধরে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স দিয়েছে। ২০১৬ সালে আইপিএলের খেতাব অর্জনের পরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ পরের প্রতিটি মরসুমে প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে। বিগত কয়েক বছরে দলের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কারণে, মালিকরা দলে বেশিরভাগ খেলোয়াড়কে আইপিএল ২০২১ সাল পর্যন্তও ধরে রেখেছে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদে ডেভিড ওয়ার্নার, কেন উইলিয়ামসন, জনি বেয়ারস্টো এবং মনীশ পাণ্ডে-র মতো হার্ড-হিট ব্যাটসম্যান রয়েছে। বোলিংয়ে ভুবনেশ্বর কুমার, টি নটরাজন এবং রশিদ খান শক্তিশালী বোলিং আক্রমণ রয়েছে। অতএব গত মরসুমের মতো সানরাইজার্স হায়দরাবাদও আইপিএল ২০২১-এ প্লে অফে প্রবেশ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 5
দিল্লি ক্যাপিটালস: আইপিএল ২০২১ সালের নিলাম চলাকালীন দিল্লি ক্যাপিটালস স্টিভ স্মিথ এবং টম করণের মতো খেলোয়াড়কে তাদের দলে অন্তর্ভুক্ত করেছিল। ফ্র্যাঞ্চাইজিতে ইতিমধ্যে দলের ব্যাটিং দুর্দান্ত রয়েছে। ব্যাটিংয়ে অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার, ঋষভ পন্থ, শিখর ধাওয়ান, শিমরন হেটমায়ার, এবং স্টিভ স্মিথের মতো অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা রয়েছে।ইশান্ত শর্মা, কাগিসো রাবাডা এবং ক্রিস ওকোসের মতো দুর্দান্ত পেসারও রয়েছে। অক্সর প্যাটেল এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন দুর্দান্ত স্পিন বোলার থাকতে বোলিং আক্রমণ আরও শক্তিশালী হয়েছে। সুতরাং, দিল্লি ক্যাপিটালস আইপিএল ২০২১ এ একটি শক্তিশালী দল রয়েছে এবং তাই তাদের প্লে অফে পৌঁছানোর প্রত্যাশা রয়েছে।

আইপিএল ২০২১: প্লে অফের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারে এই চারটি দল 6

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স: ২০১৯ এবং ২০২০ সালে শেষ দুটি সংস্করণে আইপিএল শিরোপা জেতা মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ২০২১ সালের আইপিএল নিলামের সময় দলে অনেক পরিবর্তন আনেনি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স একটি শক্তিশালী লাইন আপ ধরে রেখেছে। ব্যাটিং বিভাগে রোহিত শর্মা, কুইন্টন ডি কক, ঈশান কিষান এবং সূর্যকুমার যাদব দুর্দান্ত। বোলিং বিভাগের জন্য মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জসপ্রিত বুমরাহ, নাথান কুল্টার-নাইল এবং ট্রেন্ট বোল্টের মতো শীর্ষ শ্রেণির বোলাররা রয়েছে। এখন অ্যাডাম মিলনেও দলে যোগ দিয়েছেন। এইবারও শক্তিশালী দল হিসেবে মুম্বাইয়ের প্লে অফে যাওয়া আটকানো মুশকিল।

Leave a comment

Your email address will not be published.