আইপিএল নিলামে এই খেলোয়াড়দের উপর টাকা খরচা করতে প্রস্তুত দিল্লি ক্যাপিটালস, পন্টিং দিলেন ইঙ্গিত 1

ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে হাই প্রোফাইল টি-২০ ক্রিকেট লীগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের পরবর্তী মরশুমের জন্য এই মুহূর্তে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজির নজরই নিলামের দিকে রয়েছে। আগামী বছর হতে চলা আইপিএল ১৩র মরশুমের জন্য ১৯ ডিসেম্বর হতে চলা নিলামে এই মুহূর্তে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজিগুলিই নিজেদের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করছে যে তাদের টিম সংযোজন তারা কেমন রাখতে চান।

নিলামের জন্য প্রস্তুত দিল্লি ক্যাপিটালস

আইপিএল নিলামে এই খেলোয়াড়দের উপর টাকা খরচা করতে প্রস্তুত দিল্লি ক্যাপিটালস, পন্টিং দিলেন ইঙ্গিত 2

সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজির টিম মালিক নিজেদের দলের কোচিং স্টাফ আর টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে এই মুহূর্তে নিজেদের রণনীতি নিয়ে আলোচনা করছেন। এইভাবে গত মরশুমে দুর্দান্ত প্রদর্শন করা দল্লি ক্যাপিটালসের দলও প্রস্তুত হচ্ছে নিলামের জন্য। দিল্লি ক্যাপিটালস এমনিতেই নিলামের আগেই বেশকিছু এমন খেলোয়াড়দের শামিল করেছেন, এদের মধ্যে রবিচন্দ্রন অশ্বিন, অজিঙ্ক রাহানের মতো দুই অভিজ্ঞ ভারতীয় খেলোয়াড় রয়েছেন। এখন দিল্লি ক্যাপিটালস নিলামে নিজেদের দল গটনে ফিট হওয়া খেলোয়াড়দের তুলে নেওয়ার চেষ্টা করবে।

রিকি পন্টিং নিলামের আগের পরিকল্পনার করলেন খোলসা

আইপিএল নিলামে এই খেলোয়াড়দের উপর টাকা খরচা করতে প্রস্তুত দিল্লি ক্যাপিটালস, পন্টিং দিলেন ইঙ্গিত 3

দিল্লি ক্যাপিটালস দলের কোচ রিকি পন্টিং নিজেদের দলের নিলামের পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেছেন। রিকি পন্টিং জানিয়েছেন যে, “আমরা গত কিছু মাস ধরে বেশকিছু আলোচনা করেছি, আর এটা সুনিশ্চিত করার জন্য অনেক সময় খরচা করেছি আর চেষ্টা করেছি যে আমরা ভালোভাবে প্রস্তুত হই। আপনি বিশ্বে সবরকমের নিয়োজন করতে পারেন কিন্তু নিলামের টেবিলে সবসময়ই অপ্রত্যাশিত কিছু হয়। জোরে বোলারদের উপর বিশেষ করে বিদেশী লীগে অনেক বেশি মনোযোগ থাকতে চলেছে। প্যাট কমিন্স, ক্রিস ওকস বড়ো দামের জন্য যেতে পারেন। অলরাউন্ডার্স আমার বিচারে সবসময়ই ইন্টারেস্টিং হয়। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কস স্টোইনিস, মিচেল মার্শ, জিমি নিশেম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের মতো খেলোয়াড় যারা সকলেই বড়ো হতে পারে”।

নিলামে প্রয়োজনের হিসেবে চাই খেলোয়াড়দের

আইপিএল নিলামে এই খেলোয়াড়দের উপর টাকা খরচা করতে প্রস্তুত দিল্লি ক্যাপিটালস, পন্টিং দিলেন ইঙ্গিত 4

রিকি পন্টিং আগে বলেন যে, “উদাহরণের জন্য, আপনাকে নিলামে গিয়ে দেখতে হবে যে আপনার কোন ধরণের খেলোয়াড় প্রয়োজন। আমরা তিনজন ওপেনিং ব্যাটসম্যান পেয়েছি আমাদের আর এটা খোঁজার প্রয়োজন নেই। আপনাকে নিজের বিভাগের সমস্যাকে চেনার প্রয়োজন রয়েছে। চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে (প্লে অফ) হার নিশ্চিতভাবেই নিরাশাজনক ছিল। কিন্তু আমরা কিছু ভালো ক্রিকেট খেলেছি আর এখন টুর্নামেন্ট হওয়ার পর ৭-৮ মাস হয়ে গিয়েছে। আমার মনে হয় যে এমন সময় ছিল যখন আমরা টুর্নামেন্টের শ্রেষ্ঠ দল ছিলাম। আমার শুধু এটা মনে আছে যে সকলেই কতটা মজা পেয়েছি। এটা অন্য আইপিএলের তুলনায় একদমই আলাদা পরিবেশ ছিল যার আমি অংশ ছিলাম। আমাদের আর বর্তমান খেলোয়াড়দের গ্রুপের সঙ্গে সেই পরিবেশ আর সংস্কৃতিকে আবারো তৈরি করার ভাবনা রয়েছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *