আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানানো থেকে বিরাট কোহলিকে আটকানোর জন্য আবেদন

ভারতীয় মহিলা দলকে টি-২০ বিশ্বকপ ২০২০র ফাইনালে হারতে হয়েছে। তার আগে অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ ২০২০র ফাইনালেও ভারতকে হারতে হয়েছে। ২০১৩র পর থেকে ভারতীয় সিনিয়র পুরুষ আর মহিলা দল কোনো আইসিসি প্রতিযোগীতা জেতেনি। দল প্রায় প্রত্যেকবার নকআউটে জায়গা করেছে কিন্তু তারপর তাকে হারতে হয়েছে।

আবেদন দায়ের করা হল

আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানানো থেকে বিরাট কোহলিকে আটকানোর জন্য আবেদন 1

চেঞ্জ ডট ওআরজিতে অভিনয় ঠাকুর নামের এক ব্যক্তি বিরাট কোহলি আর বীরেন্দ্র সেহবাগের বিরুদ্ধে আবদেন দায়ের করছেন। ওই ব্যক্তি লিখেছেন যে বিরাট কোহলি আর বীরেন্দ্র সেহবাগ ফাইনালের আগে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। এটাই বিশ্বকাপের হারের কারণ। অভিনয় ঠাকুর লিখেছেন,

“বিরাট কোহলি আর সেহবাগকে আইসিসি টুর্নামেন্টে বিশেষ করে সেমিফাইনাল, ফাইনালে ভারতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানানো থেকে আটকান। যদি ওরা শুভেচ্ছা পোষ্ট করা বন্ধ না করেন তো তাদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টস সাসপেণ্ড করে দেওয়া উচিত”।

এই আবেদনে এখনো পর্যন্ত ৭০০র বেশি মানুষ সই করেছেন। অভিনয় ঠাকুর এই আবেদনে ১০০০ মানুষকে সই করার আবেদন করেছেন।

কী টুইট করেছিলেন?

আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানানো থেকে বিরাট কোহলিকে আটকানোর জন্য আবেদন 2

ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে মহিল টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২০র প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। এই ম্যাচ বৃষ্টির কারণে রদ হয়ে গিয়েছিল। ভারতীয় দল গ্রুপ স্টেজে সমস্ত ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে পৌঁছেছিল। এই কারণে তারা ফাইনালে প্রবেশ করার সুযোগ পেয়ে যায়। এরপর বীরেন্দ্র সেহবাগ আর বিরাট কোহলি টুইট করেছিলেন। বীরেন্দ্র সেহবাগ টুইট করে লেখেন,

“সেমিফাইনাল দেখতে ভালো লাগত। কিন্তু ইন্দ্র দেবতার সামনে কে জিততে পারে। মেহনতের ভালো পরিণাম ভালো পাওয়া যায়। গ্রুপ স্টেজে সমস্ত ম্যাচ জেতার পুরস্কার। ভারতীয় মহিলা দল তোমাদের এই রবিবার গৌরবান্বিত হওয়ার জন্য শুভেচ্ছা”।

অন্যদিকে বিরাট কোহলি টুইট করে লেখেন,

“টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে প্রবেশ করার জন্য ভারতীয় মহিলা দলকে শুভেচ্ছা। মেয়েরা তোমাদের জন্য আমরা গর্বিত এবং ফাইনালে তোমাদের জন্য শুভেচ্ছা”।

প্রসঙ্গত টসে জিতে এই খেতাবি ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়ার দল। নির্ধারিত ২০ ওভারে তারা ৪ উইকেট হারিয়ে করে ১৮৪ রান। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে এই ম্যাচে এলিসা হিলি ৭৫ রান, বেথ মুনি ৭৮ রান করেন। জবাবে ভারতীয় দলে ১৯ ওভারে মাত্র ৯৯ রানে অলআউট হয়ে যায়। ভারতের হয়ে এই ম্যাচে দীপ্তি শর্মা ৩৩ রান করেন। অস্ট্রেলিয়ার মহিলা ক্রিকেট দল এই ম্যাচে ভারতকে ৮৫ রানে হারিয়ে দিয়েছে পঞ্চমবার এই বিশ্ব খেতাব জিতে নিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.