বিরাট অঙ্কের ক্ষতিপূরণ চেয়ে বিসিসিআইকে আইনি নোটিশ পাঠাল পাকিস্তান 1

সাম্প্রতিক অতীতে মাঝেমধ্যেই শোনা গিয়েছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু আদতে সেই ‘ক্রিকেট যুদ্ধ’ আর হয়নি। রাজনৈতিক টানাপোড়েন, সীমান্তে উত্তেজনা ইত্যাদি নানা কারণে বিরাট-মিসবাহদের লড়াই দেখা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। একসময় দু’পক্ষের সিরিজ সংগঠন নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এবং পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) মধ্যে মৌ-চুক্তিও সাক্ষরিত হয়। যেখানে বলা হয়েছিল- ২০১৫ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে দু’দেশের মধ্যে ৬টি সিরিজ হবে। যদিও এখনও পর্যন্ত এই চুক্তি অনুসারে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কোনও সিরিজ আয়োজিত হয়নি। এবার এই বিষয় নিয়ে উঠেপড়ে লাগল পিসিবি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ওই মৌ চুক্তি মানেনি, এই অভিযোগ তুলে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দাবি করে বিসিসিআইকে আইনি নোটিশ পাঠাল পিসিবি।

ভারত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে না থাকলে, সমস্যা হবে না বলে জানালেন এই পিসিবি কর্তা

পাক ক্রিকেট বোর্ডের দাবি, ভারত পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও সিরিজ না খেলার ফলে পিসিবির ২০০ লক্ষ ডলার থেকে ৩০০ লক্ষ ডলার পর্যন্ত ক্ষতি হয়েছে। এই নোটিশ পাওয়ার পরে বিসিসিআই কি করে, তা দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করবে পিসিবি। পাক বোর্ডের একটি সূত্র থেকে বলা হয়েছে, “লন্ডনের একটি প্রখ্যাত আইনি পরামর্শদাতা সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা করে, আমরা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের থেকে ক্ষতিপূরণ চেয়ে, ওদেরকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি।” প্রসঙ্গত, দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে ওই মৌ চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছিল ২০১৪ সালে। যেখানে সিরিজ হওয়ার পাশাপাশি, আইসিসির লভ্যাংশ বন্টন নিয়ে ক্রিকেটের ‘বিগ থ্রী’ ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মতামতকে সমর্থন জানিয়েছিল পিসিবি।

পিসিবির ওই সূত্রটি থেকে আরও বলা হয়েছে, “আমরা এমনও বলেছিলাম যে, যদি ভারত বা পাকিস্তানের মাটিতে দু’দেশের মধ্যে সিরিজ করায় অসুবিধা থাকে তাহলে, আমরা কোনও নিরপেক্ষ জায়গাতেও খেলতে রাজি রয়েছি। কিন্তু ভারত প্রথমে এই নিয়ে অনেক টালবাহানা করার পর শেষে জানিয়ে দিল তারা আর সিরিজ খেলবে না।” উল্লেখ্য, বিসিসিআইয়ের থেকে ক্ষতিপূরণ আদায়ের জন্য এখন আইনজীবিদের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাস্ত রয়েছে পিসিবির কর্মকর্তারা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *