পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কাছে ভারত বর্তমানে " দুঃস্বপ্ন " হয়ে উঠেছে বলেই মনে করেন এই কিংবদন্তী পাক বোলার ! 1

ফের আরেকবার ক্রিকেট বিশ্বকাপের মন্চে ভারতের কাছে আত্মসমর্পণ করলো পাকিস্তান ক্রিকেট দল।দুই দেশের লড়াইয়ে সার্বিক ভাবে পাকিস্তান এগিয়ে থাকলেও বিশ্বকাপের মন্চে বরাবর এগিয়ে ভারত। এগিয়ে বলা ভুল , বরং বলা ভালো অপ্রতিরোধ্য।এখনো সাত বার এই দুই দেশ মুখোমুখি হয়েছে বিশ্বকাপের মন্চে।এবং তাতে সাতবার ভারতের কাছে বিধ্বস্ত হয়েছে পাকিস্তান। এবারও তার অনথ‍্যায় হয়নি।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কাছে ভারত বর্তমানে " দুঃস্বপ্ন " হয়ে উঠেছে বলেই মনে করেন এই কিংবদন্তী পাক বোলার ! 2

এদিন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের কাছে হারের পর কার্যত হতাশ কিংবদন্তি পাক পেস বোলার ওয়াকার ইউনিস।এদিন কার্যত তিনি স্বীকার করে নেন যেভাবে কয়েক বছরে নিজেদের এক অন‍্য পর্যায়ে নিয়ে গেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল সেক্ষেত্রে এই মুহূর্তে তার দেশের ক্রিকেট দলের কাছে বিরাটরা হয়ে উঠেছে এক মুর্তিমান বিভীষিকা।

প্রসঙ্গত, এদিন ভারতের জয়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন রোহিত শর্মা।শুরু থেকে পাক বোলারদের বেধড়ক পেটানো শুরু করেন তিনি।খেলেন ১১৩ বলে ১৪০ রানের ঝোড়ো ইনিংস।প্রসঙ্গত , এইটাই রোহিতের কেরিয়ারে ২৪ তম একদিবসীয় শতরান।এদিন রোহিত কে ওপেন করতে নেমে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছিলেন কে এল রাহুল।চোটের জন্য শিখর ধাওয়ান দলের বাইরে যাওয়ায় এই ম‍্যাচে ওপেনে সুযোগ পান রাহুল।এবং সুযোগ পেয়েই নিজেকে প্রমাণ করলেন রাহুল,খেলেন ৫৭ রানের ইনিংস।রাহুল এবং রোহিত প্রথম উইকেটে যোগ করেছিলেন ১৩৬ ।এছাড়াও ৬৫ বলে ৭৭ করেন বিরাট।এর জেরে ৫০ ওভার শেষে ভারতের স্কোর দাড়ায় ৫ উইকেটের বিনিময়ে ৩৩৬ ।সেই লক্ষ্যমাত্রা চেজ করতে নেমে ৪০ ওভারে ২১২ রান করেন তোলে পাক দল, এবং শেষে ডি এল পদ্ধতিতে ৮৯ রানে পরাজিত হয় ভারতের কাছে।

হারের পর পাকিস্তানের তারকা খেলোয়াড় এই খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দিয়ে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দিলেন

দলের পরাজয়ের কারন অনুধাবন করতে গিয়ে একটি বিষয়ে বড্ডো পরিস্কার হয়ে উঠেছে ওয়াকারের কাছে।তার দেশের ক্রিকেটার দলে ব‍্যক্তিগত দক্ষতায় ভরপুর কিছু ক্রিকেটার থাকলেও তারা দলগত ভাবে খেলার নিরিখে ভারতের থেকে অনেকটাই পিছিয়ে।বিরাটদের দলের যেমন প্রতি টি ক্রিকেটার দলে নিজেদের দায়িত্ব সম্পর্কে ওয়াকিবহাল যা তাদের দলে নেই।নিজেদের খেলার সময়, অর্থাৎ নব্বইয়ের দশকের পাকিস্তানের দলের সাথে এই দলের কোনও তুলনা হয়না, এখন তার দেশের ক্রিকেটার‍রা ভারতীয় দলের বিপক্ষে মুখোমুখি হতে ভয় পায় বলেই ধারনা ওয়াকারের।

এদিন বিরাটদের বিপক্ষে পাক দলের বোলিং দৈনদশা প্রকট হয়ে ওঠে।আমির ছাড়া আর কোনও বোলার এইদিন কোনও প্রকার প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি বিরাটদের বিরুদ্ধে।আমিরের প্রশংসা করার পাশাপাশি তিনি প্রশংসা করেন ভারতের ব‍্যাটিংয়ের।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কাছে ভারত বর্তমানে " দুঃস্বপ্ন " হয়ে উঠেছে বলেই মনে করেন এই কিংবদন্তী পাক বোলার ! 3

প্রসঙ্গত, এদিন ম‍্যাচের পর পাক ক্রিকেট ভক্তদের মধ্যে স্বাভাবিক ভাবেই তৈরী হয় ক্ষোভ। পরবর্তী সময়ে সেই ক্ষোভের আগুনে ঘিয়ের মতো কাজ করে একটি খবর।ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম‍্যাচের আগের দিন অর্থাৎ ১৫ ই জুন পাক ক্রিকেটারেরা ব‍্যস্ত ছিলেন ” শিশাবারে ” পার্টি করতে এমনকি সেই সম্পর্কিত বেশ কিছু ছবি এসেছিলো প্রকাশ‍্যে যা নিয়ে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয় পাকিস্তানে।যদিও পরবর্তী সময়ে বিতর্ক বাড়লে এবিষয়ে মুখ খুলতে বাধ্য হয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।তাদের তরফে জানানো হয় দলের ক্রিকেটাররা কোনও রকম নিয়ম ভাঙেনি।যে ছবি নিয়ে এতো বিতর্ক, ম‍্যাচের দিন দুই আগে তোলা হয়েছে বলেই জানিয়েছেন তারা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *