এবার হত্যার হুমকি পেলেন এই ক্রিকেটার 1

এবার হত্যার হুমকি পেলেন এই ক্রিকেটার 2
পাকিস্তান ক্রিকেট দল

পাকিস্তান সুপার লিগে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়ার ঘটনায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে পাঁচ বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছিল। ২০১৭ সালের শুরুতে পিএসএলের দ্বিতীয় আসরে ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের হয়ে খেলার সময় স্পট-ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়া অভিযোগ এই নিষিদ্ধ হওয়া খবর পুরনো। এখন বড় খবর হল দুর্নীতির দায়ে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হওয়া পাকিস্তানিক্রিকেটার খালিদ লতিফকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার আইনজীবী বদর আলম। এদিকে তিনি জানান, জুনের তৃতীয় সপ্তাহে খালিদকে একটি অপরিচিত নাম্বার থেকে ফোন করা হয়েছিল। অপরিচিত সেই ব্যক্তি খালিদ বলেছিলেন, স্পট ফিক্সিংয়ের মামলা নিয়ে খালিদ যদি কোনো ঝামেলা বা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে তাহলে করাচিতে খালিদের বাবা-মার কবরে তার জায়গা হবে”। এছাড়াও আলম দাবি করেছেন, “খালিদ ফোন পাওয়ার পর পরই তার সাথে যোগাযোগ করলেও তিনি তার মক্কেলকে বিষয়টি অন্য কাউকে জানাতে নিষেধও করেছিলেন।” তিনি আরো বলেন, “সেই সঙ্গে স্পট ফিক্সিং বিষয়ে আদালতে নীরব থাকার অনুরোধ জানিয়েও কিছু ক্ষুদে বার্তা তার মোবাইলে পাঠানো হয়েছে।”

আলম আরও বলেন, ‘এ কারণে আমি কিছু বলিনি। কিন্তু এখন খালিদ নিষিদ্ধ হয়েছেন। সেই সঙ্গে জরিমানাও করা হয়েছে। আমি আমার মক্কেল ও তার পরিবারের নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি বরাবরে একটি আবেদন জমা দিয়েছি।” পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হওয়ার আগে খালিদ লতিফ পাকিস্তান অনুর্দ্ধ – ১৯ দলকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। একজন ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে লতিফের অসাধারন অধিনয়াকত্বের সুবাদে ২০০৪ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতে নেয়। তিনি ২০০৮ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ফয়সালাবাদে অনুষ্ঠিত একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করেন। খালিদ ২০০৯ সালের ৩ নভেম্বর আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিতব্য একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে ১১২ বলে ৬৪ রান করেন; যেখানে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩৮ রানের বিশাল ব্যবধানে জয়ী হয়।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *