আন্তরজাতিক ক্রিকেটে নিয়ম পরিবর্তন করল আইসিসি 1

বিশেষ প্রতিবেদন: মাঠে ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন অনেকদিন ধরেই উঠছে। মাথায় বল লেগে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ফিল হিউজের মৃত্যুর পর এই ব্যাপারটা নিয়ে জোর আলোচনা শুরু হয়ে যায়। আর এবার গোটা বিষয়টিকে মাথা রেখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) মহিলা ও পুরুষ ক্রিকেটারদের জন্য হেলমেট পরার ব্যাপারে নতুন নিয়ম চালু করেছে। যদিও খেলোয়াড়দের হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক করতে এই নিয়ম নয়। তবে ঘটনা হল, খেলোয়াড়রা যখন হেলমেট পরবেন, সেই হেলমেট অবশ্যই নতুন ব্রিটিশ স্ট্যানডার্ড বিএস ৭৯২৮:২০১৩ অনুযায়ী নিরাপদ হতে হবে। এটাই হল ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থার নতুন নিয়ম।

আইসিসি’র তরফ থেকে বলা হয়, নতুন নিয়ম চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর করা হবে। প্রথম ২ বার এই নিয়ম ভাঙলে ব্যাটসম্যানদের সতর্ক করা হবে। কিন্তু তৃতীয়বারের জন্য নিয়ম ভাঙলে ১ ম্যাচের জন্য নির্বাসিত হতে হবে সেই ব্যাটসম্যানকে। নতুন এই নিয়মটি আইসিসির পোশাক ও সরঞ্জাম আইনের অন্তর্ভুক্ত বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিএসএস অভিযোগ করে জানায়, হেলমেটের ওপরে ও গ্রিলের মাঝখানে সংকীর্ণ একটি ফাঁক থাকে। সেটা দু’দিক থেকে ঠিকঠাক করা যায় না। এর ফলে বল ওখানে লেগে গ্রিল ভেঙে বল মুখে আঘাত করে। আইসিসির অন্যতম কর্তা জিওফ এলার্ডিক বলেন, “নিয়মটা এই জন্য করা হয়েছে যাতে প্রত্যেক খেলোয়াড়ই নিরাপদ হেলমেট ব্যবহার করে। আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পায় সব খেলোয়াড়ের নিরাপদ হেলমেট ব্যবহার করার বিষয়টি। তবে ভাল খবর হল, বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই ১ জানুয়ারি থেকে নিরাপদ এই হেলমেট ব্যবহার করছে। তবে কয়েকটা টিম আরও কিছুদিন সময় চেয়েছে। আইসিসির তরফ থেকে তাদের জন্য সময় বাড়ানো হয়েছে যাতে সব খেলোয়াড় নিরাপদ হেলমেট ব্যবহার করে।” 

আইসিসি ক্রিকেট কমিটি ব্রিটিশ স্ট্যান্ডার্ড হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক করতে সুপারিশ করে গত বছরের জুন মাসে। ২০১৫ সালের নভেম্বর থেকে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড ইংল্যান্ডের সব পেশাদার খেলোয়াড়কে এই হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক করে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরো ক্রিকেট বিশ্বে ব্রিটিশ স্ট্যান্ডার্ড বিএস ৭৯২৮:২০১৩ অনুমোদিত নিরাপদ হেলমেট পরে ক্রিকেট খেলা হবে। ক্রিকেটারদের নিরাপদে রাখতেই আইসিসির এই উদ্যোগ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *