বিরাট বা স্মিথ নয়, ব্রায়ান লারা জানিয়ে দিলেন তার পছন্দের খেলোয়াড় কে 1

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রাক্তন অধিনায়ক ব্রায়ান লারা তার দুর্দান্ত স্ট্রোক প্লে এবং মেলবোর্নের বুশফায়ার চ্যারিটি গেমের সাম্প্রতিক কৃতিত্বের সাথে ব্যাটসম্যানশিপের প্রদর্শন করেছেন এবং চলতি রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে তিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন তার পুরানো দিনের দলটিকে।দলের নামকরণ করা হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ লিজেন্ডস।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী খেলায় তিনি বলেছেন,”ফর্ম হলো টেম্পোরারি কিন্তু ক্লাস স্থায়ী।”তিনি তার অসাধারণ স্ট্রোক প্লে এবং ক্লাসের মধ্যে দিয়ে এই কথাটির যথার্থতা বুঝিয়ে দিয়েছেন।

বিরাট বা স্মিথ নয়, ব্রায়ান লারা জানিয়ে দিলেন তার পছন্দের খেলোয়াড় কে 2

প্রাক্তন অধিনায়ক স্পোর্টসটারের সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে বর্তমান ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স সহ আধুনিক খেলার ভঙ্গিমা সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন; এবং টেস্ট ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে তার বক্তব্য রেখেছেন।

লারা প্রকাশ করেছেন যে বর্তমানে অনেক উজ্জ্বল ব্যাটসম্যান দর্শকদের মুগ্ধ করছে,কিন্তু তাদের মধ্যে কেএল রাহুল তার প্রিয়।

বিরাট বা স্মিথ নয়, ব্রায়ান লারা জানিয়ে দিলেন তার পছন্দের খেলোয়াড় কে 3
LONDON, ENGLAND – SEPTEMBER 08: KL Rahul of India hooks for four off the bowling of Ben Stokes during the Specsavers 5th Test – Day Two between England and India at The Kia Oval on September 8, 2018 in London, England. (Photo by Mike Hewitt/Getty Images)

সবাই হয়তো জানেন আমি ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ফলো করি,শেষ শ্রীলংকায় টি২০ তে তাদের প্রদর্শন যথেষ্ট ভালো।”বিশ্বজুড়ে, দেখার মতো অনেক প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান রয়েছে। আছেন স্টিভ স্মিথ, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা। আমার প্রিয় কেএল রাহুল, ”স্পোর্টস স্টারের সাক্ষাৎকারে এমনই মত প্রকাশ করলেন লারা।
টেস্ট ক্রিকেটের ‘ ভবিষ্যৎ’ নিয়ে চিন্তিত ব্রায়ান লারা।তিনি টেস্ট ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ নিয়ে তার কিছু মন্তব্য প্রকাশ করেছেন। ‘ত্রিনিদাদের যুবরাজ’ তাকে স্মরণ করিয়ে দেয়,ছোটবেলায় কুইন্স পার্ক ওভালের বাইরে দাঁড়িয়ে সকাল ৬ টার টেস্ট ম্যাচ দেখার উৎসাহের কথা।যদিও এখন সেরকম পরিস্থিতি নেই, তিনি এটাও জানিয়েছেন।
ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ যথেষ্ট ভালো তা নিয়ে খুশি লারা,কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে আগের মতো উন্মাদনা নেই কোনো দেশেই।লারা বলেছেন,”যখন আমি ছোট ছিলাম,সেই সময় টেস্ট ম্যাচ দেখার উৎসাহ ছিল সবার।”
“হাজার হাজার মানুষের ভিড় দেখা যেত আমার ছোটবেলায় ত্রিনিদাদের স্টেডিয়ামের বাইরে।দর্শকরা অধীর আগ্রহে দাঁড়িয়ে থাকতেন সকাল ৬টার টেস্ট ম্যাচ দেখাবে বলে।এরকম দৃশ্য এখন দেখার সুযোগ মিলবে না।”,বললেন লারা।তিনি টেস্ট ক্রিকেটের সংকট নিয়ে চিন্তিত তার কোথায় বোঝা গিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *