মহেন্দ্র সিং ধোনি সবচেয়ে মজবুত আর শান্ত অধিনায়ক: প্যাডি অ্যাপ্টন

যখন ভারতীয় দল ২০১১ বিশ্বকাপ জিতেছিল সেই সময় দলে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন তারকা গ্যারি কার্স্টেন প্রধান কোচের ভুমিকায় ছিলেন। অন্যদিকে তারকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য ফিজিক্যাল আর মেন্টাল কন্ডিশনিং কোচ প্যাডি অ্যাপ্টনও উপস্থিত ছিলেন। যিনি এখন প্রাক্তন তারকা ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে মজবুত আর শান্ত অধিনায়কও বলেছেন।

মহেন্দ্র সিং ধোনিকে প্যাডি অ্যাপ্টন বলেছেন মজবুত আর শান্ত অধিনায়ক

মহেন্দ্র সিং ধোনি সবচেয়ে মজবুত আর শান্ত অধিনায়ক: প্যাডি অ্যাপ্টন 1

প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে যখন ভারতীয় দল ২০১১য় শ্রীলঙ্কার দলকে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে হারিয়েছিল, তারপরই ভারতীয় সমর্থকদের ২৮ বছরের অপেক্ষারও অবসান হয়েছিল। সেই সময় দলে ফিজিক্যাল আর মেন্টাল কন্ডিশনিং কোচ হিসেবে উপস্থিত থাকা প্যাডি অ্যাপ্টন মহেন্দ্র সিং ধোনির প্রশংসা করে টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে বলেছেন যে,

“একজন অধিনায়ক হিসেবে ধোনি ভীষণই শান্ত আর মজুবত ব্যক্তি ছিলেন। তিনি স্বয়ং নিজের প্রদর্শনের মাধ্যমে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, যিনি প্রায়শই দলকে ব্যাত হাতে ভীষণই চাপের পরিস্থিতিতে জয়ের দিকে নিয়ে যেতেন। তিনি ভীষণই চাপের পরিস্থিতিতে শান্ত থেকে আর নিজের আচরণ দেখিয়ে দলের অধিনায়কত্ব করেছিলেন”।

প্যাডি অ্যাপ্টন মহেন্দ্র সিং ধোনির ব্যাপারে জানালেন

মহেন্দ্র সিং ধোনি সবচেয়ে মজবুত আর শান্ত অধিনায়ক: প্যাডি অ্যাপ্টন 2

সেই সময় দলের ড্রেসিং রুমের ব্যাপারে আর অন্যান্য সিদ্ধান্তের ব্যাপারে যদিও প্যাডি অ্যাপ্টন কিছুই বলেননি কিন্তু তিনি ড্রেসিংরুমের পরিবেশের ব্যাপারে অবশ্যই স্পষ্টভাবে বলেছেন। তারকা প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির জমিয়ে প্রশংসা করে প্যাডি অ্যাপ্টন জানিয়েছেন যে,

“মহেন্দ্র সিং ধোনি যখন চপের মুখেও শান্ত থাকতেন তো কোচিং স্টাফ আর দলের সঙ্গে যুক্ত অন্য মানুষরাও শান্ত থেকে কাজ করতেন। খেলোয়াড়দের জন্য ও একটি টোন আর উদাহরণ পেশ করে চলেছিল”।

পরে প্যাডি অ্যাপ্টন আইপিএল চলাকালীন রাজস্থান রয়্যালস দলেরও প্রধান অংশ ছিলেন যতদিন না দলকে ব্যান করা হয়েছিল, তিনি কোচের ভূমিকায় ছিলেন।

করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ ক্রিকেট

মহেন্দ্র সিং ধোনি সবচেয়ে মজবুত আর শান্ত অধিনায়ক: প্যাডি অ্যাপ্টন 3

বর্তমান সময়ে ক্রিকেট খেলা হচ্ছে না। যার সবচেয়ে বড়ো কারণ হলো করোনা ভাইরাস। এই ভাইরেসের ভয়ের কারণে মানুষ নিজেদের বাড়িতে বন্দি রয়েছেন। আর বাড়ির বাইরে বেরচ্ছেন না। বেশ কয়েকটি বড়ো সিরিজকে স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে, অন্যদিকে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড়ো লীগ আইপিএলও উপরও এই করোনা ভাইরাসের কারণে বাতিল হওয়ার বিপদ রয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *