এমএস ধোনি জানালেন কেমন ছিল তার ডেবিউ ম্যাচের আগের রাত

ভারতীয় দলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি গত ২৩ ডিসেম্বরের দিনেই ১৫ বছর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রেখেছিলেন। ২৩ ডিসেম্বর ২০০৪এ মহেন্দ্র সিং ধোনি বিস্ফোরক উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান হিসেবে টিম ইন্ডিয়ায় এন্ট্রি নিয়েছিলেন। যারপর তিনি কখনো পেছনে ফিরে তাকাননি। মাহি ভারতীয় ক্রিকেট দলের সমর্থকদের সমস্ত স্বপ্নকে (আইসিসি টুর্নামেন্ট ওয়ার্ল্ড টি-২০, ওয়ানডে বিশ্বকাপ আর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি) নিজের সক্ষমতায় পূর্ণ করেন। এই অবস্থায় শুধু ভারতেই নয় বরং বিশ্ব ক্রিকেটে নিজের ছাপ ফেলা ধোনির কাছে তার ডেবিউ ম্যাচের আগের রাতের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেন। যা ক্রিকেট সমর্থক হিসেবে আপনাদের জানা উচিৎ।

আসলে চেন্নাই সুপার কিংস ইনস্টাগ্রামে নিজেদের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে এমএস ধোনির একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছে, যেখানে ধোনি বলেছেন—

“আমার ওই রাত ভীষণই ভালোভাবে মনে আছে। আমার ওই রাতে খুব ভালো ঘুম হয়নি। আমি কোনো রকম চাপে ছিলাম না। আমি নিজেকে সেই সময় একটা কথা বলেছিলাম। আমি বলেছিলাম যে আমি এখনো পর্যন্ত নিজের রাজ্য তথা ইন্ডিয়া এ-র হয়ে ভীষণই ভালো প্রদর্শন করেছি। আমাকে সবসময়ই টিকে থাকতে হবে তা সে যে কোনো পরিস্থিতিই হোক। আমাকে মাঠে গিয়ে নিজের স্বাভাবিক খেলাই খেলতে হবে”।

গগণচুম্বি ছক্কার জন্য জনপ্রিয় ছিলেন মাহী

এমএস ধোনি জানালেন কেমন ছিল তার ডেবিউ ম্যাচের আগের রাত 1

অসম্ভবকে সম্ভব করা ধোনি নিজের ডেবিউ ম্যাচের সম্ভবতই কখনো মনে করতে চাইবেন না। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডেতে ভারত প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী ম্যাচের দ্বিতীয় বলেই খাতা না খুলে প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছিলেন। কিন্তু রাহুল দ্রাবিড় আর মহম্মদ কাইফের হাফসেঞ্চুরির সাহায্যে মজবুত স্কোরের দিকে এগোচ্ছিল। ১৮০র স্কোরেই ভারত পঞ্চম উইকেট হারায়। ৭ নম্বরে ব্যাটিং করার জন্য লম্বা লম্বা চুলের সঙ্গে গগণচুম্বি ছক্কার জন্য পরিচিত মহেন্দ্র সিং ধোনি মাঠে নামেন। ক্রিকেট সমর্থক থেকে শুরু করে মহম্মদ কাইফের মতো ক্রিকেট তারকাও এই ব্যাটসম্যানের বিস্ফোরক মেজাজের কথা ঘরোয়া ক্রিকেটে শুনেছিলেন। যারপর সকলেই ধোনকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিস্ফোরণ ঘটাতে দেখতে চাইছিলেন। যদিও এমনটা কিছুই হয়নি।

ধোনি নিজের ডেবিউ ম্যাচে হয়েছিলেন রানআউট

এমএস ধোনি জানালেন কেমন ছিল তার ডেবিউ ম্যাচের আগের রাত 2

ম্যাচে ধোনির সামনে কাইফ অন্য প্রান্তে জমে গিয়েছিলেন আর ৭১ রান করে অপরাজিত ছিলেন। ধোনি যেমনই প্রথম আন্তর্জাতিক বলের মুখোমুখি হন তিনি শট মারার পর রান নেওয়ার চেষ্টা করেন। এইভাবেই উইকেটের মাঝে চিতার মতো দৌড়নো ধোনি নিজের ডেবিউ ম্যাচে রান আউট হন আর মাঠে নিরবতা নেমে আসে। আসলে কাইফকে না দেখেই ধোনি দৌড়তে শুরু করেন আর কাইফ তাকে ফেরত পাঠিয়ে দেন, যে কারণে ধোনি ক্রিজে পৌঁছনোর আগেই রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। এই অবস্থায় ধোনিকে রান আউট হতে দেখে সমস্ত সমর্থকরা নিরাশ হয়ে যান। সকলেই তাকে ডেবিউ ম্যাচে ছক্কা বৃষ্টি করতে দেখতে চাইছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *