মিতালি রাজ

এবারের মহিলা বিশ্বকাপে ভারতের মেয়েরা যেভাবে খেলছেন, তা অনেকটা স্বপ্নের মতো। গতকাল সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর ভারতবাসী আবার আশায় বুক বেঁধেছে। বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন হওয়ার আশা বা স্বপ্ন –  যাই বলা হোক না কেন। ২০১১ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির ভারত বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন হওয়ার পর আজকের প্রজন্মটা জেনেছিল, বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন হওয়া কাকে বলে।  নাহলে কাকা-জ্য়াঠা-দাদুদের কাছে শুনে বড় হওয়া, ১৯৮৩-তে কপিলের ভারত বিশ্বকাপের ফাইনালে দোর্দণ্ডপ্রতাপ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়েছিল। কপিলের ভারত বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন হয়েছিল। মিতালি রাজের দলের সামনে সেই একই রকম হাতছানি। ভারত বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন হলে ইতিহাসের পাতায় সোনার অক্ষরে লেখা থাকবে ফাইনালে খেলা ১১টা মেয়ের সঙ্গে ভারত থেকে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া গোটা টিমটার নাম।

মিতালি রাজ

বৃহস্পতিবার ডিফেন্ডিং চ্য়াম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে সেমিফাইনালে এক কথায় উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে উঠেছে ভারত। ২৮ বছরের পাঞ্জাবের অলরাউন্ডার হরমনপ্রীত কউরের ১১৫ বলে ১৭১ রানের এক ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। শুরুটা ধীরে করলেও হঠাৎই বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন। ৯০ বলে সেঞ্চুরি করলেও বাকি ৭১ রান করতে নেন মাত্র ২৫ বল। ২০টি চার ও ৭টি ছয়ে সাজানো তাঁর ইনিংস। প্রথমে ব্য়াট করতে নেমে একসময় ২৫ ওভারে ভারতের স্কোর ছিল ৩ উইকেটে ১০১ রান। বৃষ্টি বিঘ্নিত ৪২ ওভারের খেলায় ঝড়ের গতিতে শেষ ১৭ ওভারে ১৮০ রান তোলে ভারতের মেয়েরা।

এখানে দেখুনঃ হরমনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ শচীন, ট্য়ুইট করে জানালেন শুভেচ্ছা

২৮২ রানের লক্ষ্য় মাত্রা তাড়া করতে নেমে ৪০.১ ওভারে ঝুলন গোস্বামী, শিখা পান্ডেদের আঁটোসাটো পেস বোলিংয়ের সামনে ২৪৫ রানে অজিরা শেষ হয়ে যাওয়ায় ৩৬ রানে ম্য়াচটি জিতে নেয় ভারত।

আগামী রবিবার ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে ফাইনাল। তিনবারের বিশ্ব চ্য়াম্পিয়ন। উল্টোদিকে ভারতের মেয়েরা এখনও একবারও বিশ্বকাপ জিততে পারেননি। ২০০৫ সালে কাছে গিয়েও শেষ ধাপ পার করা হয়নি। ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারতে হয়েছিল। ভারতের ক্য়াপ্টেন মিতালি রাজ তাই রবিবারের ফাইনালকে আলাদা করে গুরুত্ব দিচ্ছেন। দেওয়াটাও স্বাভাবিক। কারণ, বিশ্বকাপের ফাইনাল বলে কথা। বললেন, হরমনের ইনিংসটা অসাধার ছিল। সেমিফাইনাল ম্য়াচে কামব্য়াক করা আর ওরকম একটা ম্য়াচ উইনিং ইনিংস খেলা দুর্দান্ত ব্য়াপার। ঝুলনও দারুন খেলেছে। সঠিক সময়ে যেটা দরকার ছিল। আমাদের দলে এখন সবাই আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড়। প্রত্য়েকটা ম্য়াচে এক একজন করে ম্য়াচ উইনিং ইনিংস খেলছে। এর চেয়ে বড় ব্য়াপার আর কি হতে পারে।

হরমনপ্রীত কউর

আরোও দেখুনঃ বিরাট প্রশংসায় ভাসলেন হরমন, মোগার বাড়িতে থামছে না ফোনের জোয়ার

মিতালি আরও বলেন, স্মৃতি সেঞ্চুরি করে আমাদের ম্য়াচ জিতিয়েছিল। তারপরের ম্য়াচে পুনম সেঞ্চুরি করে। আর আজ হরমন। নিশ্চিত হরমনকে ফাইনালেও ফিট পাব। হরমনও ফাইনাল খেলার জন্য় মুখিয়ে থাকবে। লর্ডসে বিশ্বকাপের ফাইনাল তো আর রোজ রোজ আসে না। জীবনে একবার আসে এমন সুযোগ।

মিতালি রাজ

ওদিকে, ভারতের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার ক্য়াপ্টেন মেগ ল্য়ানিং ভারতকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফাইনালে ওঠার জন্য়। ম্য়াচের পর তিনি বলেন,ভারত অত্য়াধিক ভালো ক্রিকেট খেলেছে। আমরা ওদের আটকাতে পারলাম না। ব্ল্য়াকওয়েল ভালো খেললেও আমরা শুরুতে সবাই ব্য়র্থ। আমরা এই টুর্নামেন্টে কোনও সময়ই ভালো খেলতে পারিনি। এদিনও তাই হয়েছে। পুরো টুর্নামেন্টেই আমরা হতাশ করেছি।

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক সেঞ্চুরির মালিক যে পাঁচ ক্রিকেটার

ক্রিকেটে একজন ব্যাটসম্যানের মানদণ্ড বিচার করার ক্ষেত্রে কোন ব্যাটসম্যান কত সংখ্যক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তাঁর ক্যারিয়ারে তা অতীব...

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে তিনটি মাইলফলক স্পর্শ করতে পারেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা

ঘরের মাটিতে জয়রথ যেন থামছেই না টিম ইন্ডিয়ার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সাদা পোশাকে সিরিজ জয়ের পর রঙিন...

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম
ভারতীয় দল আর ওয়েস্টইন্ডিজ দলের মধ্যে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ আগামিকাল ২১ অক্টোবর গুয়াহাটির মাঠে...

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান
বিশ্বের সবচেয়ে আক্রামণাত্মক ওপেনার্সদের একজন বীরেন্দ্র সেহবাগ ৪০তম জন্মদিন পালন করছেন। ক্রিকেট জগত আর ওপেনিংকে নতুন পরিভাষা...

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়
নিজের দলের হয়ে উইকেট নিতে প্রত্যেক বোলারেরই ইচ্ছে থাকে। পাপু রায় এক এমন বোলার যার জন্য উইকেট...