পুরুষ ক্রিকেট দল যাত্রাশুরু করতে পারে ২০২২ কমনওয়েলথ গেমসে 1

কুড়ি বিশের নয়া রূপে ক্রিকেট বিশ্বব্যপী বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এখন ক্রিকেটও ফুটবলের মতই এক অন্যতম বিনোদনের বিষয়বস্তু। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে একটি ম্যাচ শেষ হতে যথেষ্ট সময় লাগত। ফলে টি টোয়েন্টির এই নয়া রূপে কম সময়ে টানটান উত্তেজনার ম্যাচ, বহুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। আর এবার ক্রিকেটের এই রূপের সৌজন্যে কমনওলেথ গেমসে জায়গা পেতে পারে পুরুষ ক্রিকেট দল।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২২ সালের কমনওয়েলথ গেমস অনুষ্ঠিত হতে পারে বার্মিংহামে। আর সেক্ষেত্রে এই ক্রীড়া প্রতিযোগীতাতেই অংশ নিতে পারে পুরুষ ক্রিকেট দল। ইতিমধ্যেই কমনওয়েলথ গেমসে মহিলা ক্রিকেট দেখা যায়। তাই পুরুষদের ক্রিকেটকেও এই প্রতিযোগীতার একটা অংশ করতে চাইছে বার্মিংহামের উদ্যোক্তারা। একটি ক্রীড়া সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২২ সালের কমনওয়েলথ গেমস অনুষ্ঠিত করার জন্য ইতিমধ্যেই এই প্রতিযোগীতার গর্ভনিং বডি বার্মিংহামকে বিডে অংশ নিতে বলেছিলেন। যুক্তরাজ্যের সরকারের উদ্যোগে হওয়া এই বিডে অংশ নিয়ে বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমস ফেডারেশনের নির্ধারিত সমস্ত নিয়ম অনুযায়ী ইতিমধ্যেই বিবেচিত হয়েছে।

এদিকে ২০২৬ সালের কমনওয়েলথ গেমস অনুষ্ঠিত করার জন্য ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করেছে বার্মিংহাম। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২২ সালের গেমসই অনুষ্ঠিত হতে পারে এখানে। ওয়ারউইকসায়ারের প্রধাণ কর্তা তথা বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসের বিডিং সংস্থার এক সদস্য নেইল স্নোবল জানান, এই উদ্যোক্তা কমিটি ইতিমধ্যেই পুরুষ ক্রিকেটকে এই প্রতিযোগীতার একটি অঙ্গ করে তুলতে উৎসাহ প্রকাশ করেছে। তিনি বলেন, “এটা একটা আবশ্যিক পদক্ষেপ। আইসিসি ও ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডের ছাড়পত্র পেলেই তা সম্ভব হবে। আমরা আশা করছি কমনওয়েলথ গেমস শুরু হওয়ার চার বছর আগেই এই বহু প্রতিক্ষীত মুহুর্তের খবরটা দিতে পারব।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা মনে করি কমনওয়েলথ গেমস অনুষ্ঠিত করার জন্য আমরা যথেষ্ঠ যোগ্য একটি সংস্থা। অনেকেই এই ধরনের বিরাট প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত করতে প্রায় ৭ বছর লাগিয়ে দেয়। সেখানে আমরা ২০২২ সালেই একটা দারুণ প্রতিযোগীতার আয়োজন করতে পারি এবং তা পুরুষ ও মহিলা ক্রিকেট সহ।”

ডার্বান কমওয়েলথ গেমসেই মহিলা ক্রিকেট দল খেলা শুরু করেছিল। এদিকে শুধুমাত্র বার্মিংহামই নয়, ২০২২ সালের এই প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত করার জন্য দৌড়ে রয়েছে কানাডা, মালয়েশিয়া ও অস্ট্রেলিয়াও। তবে এখনও পুরুষ ক্রিকেটকে আদৌ এই প্রতিযোগীতায় অর্ন্তভুক্ত করা যাবে কী তা বলা যাচ্ছেনা। কারণ আইসিসির তরফ থেকে এখনও কোনও ছাড়পত্র আসেনি।

১৯৯৮ সালে একবারই পুরুষ ক্রিকেট দল কমনওলেথ গেমসে অংশগ্রহণ করেছিল। ক্যারিবিয়ান দলগুলি এক সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নামে অংশগ্রহণ না করে আলাদা আলাদা প্রতিনিধিত্ব করেছিল। সেই প্রতিযোগীতায় ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকা অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। তবে এই প্রতিযোগীতায় ইংল্যান্ডের জাতীয় ক্রিকেট দল অংশগ্রহণ করেনি। যদিও নর্দান আয়ারল্যান্ড অংশ নিয়েছিল এই প্রতিযোগীতায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *