ক্রিস লিন ও গৌতম গম্ভীর

এগারোটা রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার স্থির করেছিল শুক্রবারই গুজরাটের খোদ সিংহের গুহায় ঢুকে তাণ্ডব চালাবে। তাও আবার হয় নাকি! একেই পশুরাজ, তার ওপর তারই গুহায় ঢুকে তান্ডব! অনেকেই বিশ্বাস করতে পারেন নি। কিন্তু অপ্রত্যাশিত এই ঘটনাই ঘটল। বাঘেদের আক্রমনে ছাড়খার সিংহের গুহা। মুখ চুন করে এক কোণে বসে পশুরাজ।

কেকেআরের জন্য নিবেদিত প্রাণ সাকিবের, বিশ্রাম না নিয়েই সোজা যোগ দিলেন আইপিএল শিবিরে


কলকাতা নাইট রাইডার্স ও গুজরাট লায়ন্সের আইপিএলের প্রথম ম্যাচ দেখে সহজেই এমন একটা গল্প ফেঁদে ফেলা যায়। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে গুজরাট লায়ন্সের ১৮৩ রানের জবাবে কলকাতার দুই যোদ্ধা যেভাবে গুজরাটের বোলারদের দুরমুস করল, তাতে গুজরাটের বোলারদের উপর করুণাই হয়। শুধু প্রবীন কুমারের প্রথম ওভারটা খেলার পর কেকেআরের সেনাপতি গৌতম গম্ভীর ও সহযোদ্ধা ক্রিস লিন যেভাবে দ্বিতীয় ওভার থেকে গুজারাটের ওপর থাবা বসালেন। সেই থাবা সামলে কোনও ভাবেই প্রতি আক্রমণ করতে পারল না গুজরাট লায়ন্স। ফলাফল, ক্রিস লিনের ৯৩ ও গৌতম গম্ভীরের ৭৬ রানের সুবাদে মাত্র ১৪.৫ ওভারেই জয় ছিনিয়ে নিলেন গুজরাটের থেকে।
এই ম্যাচের পর আইপিএলের ইতিহাসের বেশ কিছুটা অদল বদল হয়েছে। একবার দেখে নেওয়া যাক কী কী ঘটল এই নাটকীয় ম্যাচের পর।

ম্যাচের স্কোর সংক্ষিপ্তে –
গুজরাট লায়ন্স (জিএল) – ১৮৩/৪, ওভার ২০ (সুরেশ রায়না ৬৮ অপরাজিত, দীনেশ কার্তিক ৪৭, কূলদ্বীপ যাদব ২/২৫)
কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) – ১৮৪/০, ওভার ১৪.৫ (ক্রিস লিন- ৯৩ অপঃ, গৌতম গম্ভীর-৭৬ অপঃ)

ম্যাচ রেফারি বিঁধল ধোনিকে, কী ছিল অপরাধ! জেনে নিন

পরিসখ্যানঃ-
১) এই ম্যাচে দুটি ওভার বাউন্ডারি মেরে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম গুজরাট লায়ন্সের হয়ে সব থেকে বেশি ছয় মারলেন। গুজরাটের হয়ে তাঁর মোট ওভার বাউন্ডারির সংখ্যা ১৮। এর আগে ডোয়েন স্মিথ ১৬টি ওভার বাউন্ডারি মেরে ম্যাককালামের সঙ্গেই ছিলেন।
২) এই ম্যাচে সুরেশ রায়না দুরন্ত ৬৮ রান করেন। এর ফলে একজন ক্রিকেটার হিসেবে তিনিই সবথেকে বেশিবার কেকেআরের বিরুদ্ধে অর্ধশত রান করলেন। তাঁর ঝুলিতে মোট ছ’টি অর্ধশত রান এল কেকেআরের বিরুদ্ধে। এর আগে রোহিত শর্মা সবথেকে বেশিবার কেকেআরের বিরুদ্ধে অর্ধশত রান করেছিলেন। তাঁর ঝুলিতে ছিল পাঁচটি অর্ধশত রান।
এছাড়াও, জিএল ব্যাটসম্যান হিসেবে সবথেকে বেশি অর্ধশত রান করায় দৌড়ে সুরেশ রায়না রইলেন দ্বিতীয় স্থানে। রায়না গুজারাটের হয়ে মোট চারটি অর্ধশত রান করেছেন। অ্যারন ফিঞ্চ পাঁচটি অর্ধশত রান করে প্রথম স্থানে আছেন।
৩) সুরেশ রায়না ও দীনেশ কার্তিক এই ম্যাচে চতুর্থ উইকেটে গুজরাটের জন্য ৮৭ রানের পার্টনারসিপ করেন। এটাই চতুর্থ উইকেটে গুজরাটের সর্বোচ্চ পার্টনারসিপ। এর আগে ডোয়েন স্মিথ ও দীনেশ কার্তিকের ৮৫ রানের পার্টনারসিপ ছিল চতুর্থ উইকেটে সর্বোচ্চ। ২০১৬ সালে আরসিবির বিরুদ্ধে তাঁরা এই পার্টনারসিপ করেছিলেন।
৪) দীনেশ কার্তিক এই ম্যাচে ১৮৮ স্ট্রাইক রেটে মাত্র ২৫ বলে ৪৭ রান করে। গুজরাট লায়ন্সের ব্যাটসম্যান হিসেবে এটি তৃতীয় সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট। কেকেআরের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে ৮ মে’র ম্যাচে অ্যারন ফিঞ্চের ২৯০ স্ট্রাইক রেট গুজরাটের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এখনও শীর্ষে। এরপর ১৯৫.৪৫ স্ট্রাইক রেটে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। রাইসিং পুনের বিরুদ্ধে ২৯ এপ্রিল ২০১৬ তে ম্যাককালাম দুরন্ত এই ইনিংস খেলেন।
৫) এদিনের গুজরাটের করা ২০ ওভারে ১৮৩/৪ রান দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান। ২৯ এপ্রিল ২০১৬ তে রাইসিং পুনে সুপারজায়ান্টসের বিরুদ্ধে ১৯৬/৭ (২০ ওভার) রান পুনের সর্বোচ্চ মোট রান।
৬) কেকেআরের হয়ে যৌথভাবে দ্রুত অর্ধশত রানের নীরিখে দ্বিতীয় স্থানে পৌচ্ছে গেলেন ক্রিস লিন। এদিন মাত্র ১৯ বলে অর্ধশত রান করে তিনি ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলের সঙ্গে একই স্থানে রইলেন। রাসেল কিংগস ইলেভেনের বিরুদ্ধে এই অর্ধশত রান করেন। এই কীর্তিতে প্রথম স্থানে রয়েছেন ইউসুফ পাঠান। তিনি ২০১৪ সালের ২৪ মে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে মাত্র ১৫ বলে কেকেআরের হয়ে সবথেকে দ্রুত অর্ধশত রানটি করেন।
৭) আইপিএলের দ্বিতীয় অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর, যিনি এই ম্যাচে ৩০০০ রানে পৌচ্ছলেন। এর আগে অধিনায়ক হিসেবে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি প্রথম এই মাইলস্টোন ছোঁয়।
8) ওপেনিং পার্টনারসিপে এদিন গৌতম গম্ভীর ও ক্রিস লিন অপরাজিত থেকে ১৮৪ রান করেন। দেখে নেওয়া যাক এমনই কিছু স্মরনীয় পার্টনারসিপ –
ক) এটাই আইপিএলের ইতিহাসে ওপেনিং জুটির সর্বোচ্চ পার্টনারসিপ। এর আগে ক্রিস গেইল ও তিলকরত্নে দিলসান আরসিবির হয়ে ১৬৭ রান করে প্রথম উইকেটে সর্বোচ্চ পার্টনারসিপে ছিলেন। ২০১৩ সালে ২৩ এপ্রিল পুনে ওয়ারিয়র্সের বিরুদ্ধে তাঁরা সেই রেকর্ড করেছিলেন।
খ) এটিই কেকেআরের সব উইকেটের সবথেকে বেশি রানের পার্টনারসিপ। এর আগে রবীন উথাপ্পা ও মণীষ পান্ডে তৃ্তীয় উইকেটে ১৫৩ রানে অপরাজিত থেকে সর্বোচ্চ রেকর্ডটি করেছিলেন।
গ) আইপিএল ইতিহাসের যে কোনও উইকেটে এটি ষষ্ঠ সর্বোচ্চ পার্টনারসিপ।
ঘ) গৌতম গম্ভীর ও ক্রিস লিনের এই পার্টনারসিপের ফলে আইপিএল ইতিহাসে এই নিয়ে ১৮ বারের বেশি কোনও পার্টনারসিপে ১৫০-এর বেশি রান হল।

স্টিভ স্মিথ থাকলেও, ভারতীয় এই তারকার স্বপ্নের দলে নেই ধোনি-কোহলি


৯) ক্রিস লিনের অসাধারণ এই ৯৩ রান, কেকেআরের তৃ্তীয় ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান। ১৫৮ রানে অপরাজিত থেকে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম এখনও কেকেআরের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের নীরিখে শীর্ষে আছেন। দ্বিতীয় স্থানে আছেন মনীষ পান্ডে। তিনি ৯৪ রান করেছিলেন।
১০) কেকেআর এই প্রথম বার ১০ উইকেটে জয় পেল। আইপিএলের ইতিহাসে নবমবার এই কীর্তি হল।
কোনও উইকেট না হারিয়ে ১৮৪ রান চেস করা এই প্রথমবার হল আইপিএলে। কোনও উইকেট না হারিয়ে এটাই সর্বোচ্চ রান চেস। এরআগে কোনও উইকেট না হারিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ন্স রাজস্থান রয়্যালসের ১৬৩ রান চেস করেছিল।
১১) বিরাট কোহলিকে ছাপিয়ে সুরেশ রায়না আইপিএলের সর্বোচ্চ রানের অধিকারি হলেন। এদিনের ম্যাচের পর রায়নার সংগ্রহ ৪১৬৬ রান। এদিকে বিরাটের সংগ্রহ ৪১১০ রান।

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    বাবা হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার

    বাবা হলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পুজারা। এক কন্যা সন্তানের পিতা হলেন তিনি। আর সে...

    ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা!

    শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ট্রাই সিরিজ নিদাহাস ট্রফি জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করল বিসিসিআই। কেমন হল দল একবার দেখে...

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ
    সেই কবেই নেভিল কার্ডাস বলে গেছেন ওয়ান ডে ক্রিকেটে পাজামা ক্রিকেট বলে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের জামানায় টেস্ট...

    জয়ের সমস্ত কৃতিত্বই ওর : রোহিত শর্মা

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারার পর ভারতীয় দল আরও দারুণভাবে ফিরে এসে সেঞ্চুরিয়ানের সুপার...

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...