কপিলদেব, ধোনি আর গাঙ্গুলীর মধ্যে কে সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়ক? এইপ্রাক্তন স্পিনার দিলেন জবাব

মহেন্দ্র সিং ধোনি, কপিলদেব তথা সৌরভ গাঙ্গুলী ভারতের সেই তারকা অধিনায়কদের মধ্যে শামিল রয়েছেন যারা ভারতীয় ক্রিকেট দলকে আলাদা দিশা দেখিয়েছেন। এই অধিনায়কদের ভারতীয় ক্রিকেটকে উচ্চতায় নিয়ে যাওয়াতে বড়ো যোগদান রয়েছে। এই অধিনায়কদের তুলনা করে প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার মনিন্দর সিং নিজের রায় জানিয়েছেন।

ধোনি তথা কপিলদেবকে বলেছেন সমান

কপিলদেব, ধোনি আর গাঙ্গুলীর মধ্যে কে সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়ক? এইপ্রাক্তন স্পিনার দিলেন জবাব 1

মনিন্দর সিং ভারতের ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিলদেবকে সকলকে বিশ্বাস দেওয়ার শ্রেয় দিয়েছেন, যার ফলে পরে সৌরভ গাঙ্গুলী আর এমএস ধোনি সাহায্য পেয়েছেন। মনিন্দর সিং অধিনায়কত্বের ব্যাপারে ধোনি আর কপিলদেবকে এক লীগে রেখেছেন। মনিন্দর সিং হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে বলেছেন,

“ধোনি ভাগ্যবাণ ছিলেন যে কপিলদেব আমাদের জন্য ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জিতেছেন যারপর ধোনি লাকি ছিলেন কারণ তার আগে ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী, যিনি আমাদের বিশ্বাস দিয়েছেন যে আমরা যে কোনো দলকে যে কোনো পরিস্থিতিতে হারাতে পারি। তো ধোনি এটা পেয়েছেন। আমার অনুযায়ী কপিল আর ধোনি অধিনায়ক হিসেবে একই পেজে রয়েছেন কারণ ওঁরা দুজনেই পজিটিভ, শান্ত, আর রণনীতির দিক থেকে ভীষণই কুশল ছিলেন। যখন কপিলদেব অধিনায়ক ছিলেন তো ভারতীয় দলে বিশ্বাস কম ছিল। অন্যথায়,পজিটিভিটি, শান্তি এই দুজনের অধিনায়কত্বের সহজ জ্ঞান একই ছিল। আমার জন্য কপিল আর ধোনি একই পেজে রয়েছেন”।

সৌরভ গাঙ্গুলীকে বললেন ভারতের সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়ক

কপিলদেব, ধোনি আর গাঙ্গুলীর মধ্যে কে সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়ক? এইপ্রাক্তন স্পিনার দিলেন জবাব 2

এই প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীকে প্রতিভা চেনার ক্ষমতা আর সফলতা পাওয়ার জন্য তাদের সমর্থন করার জন্য ভারতের সর্বশ্রেশঠ অধিনায়ক বলেছেন। মনিন্দর বলেন,

“আমার গাঙ্গুলীর অধিনায়কত্ব পছন্দ ছিল। দেখুন ও ভারতীয় ক্রিকেটকে কী দিয়েছেন, ও প্রতিভার মহান জুহুরি ছিলেন। উনি যুবরাজকে পাথর থেকে বার করে হীরে বানিয়েছেন, এরপর উনি হরভজনকে তখন ফেরত এনেছেন যখন তাকে দল থেকে বার করে দেওয়া হয়েছিল। বীরেন্দ্র সেহবাগ, গৌতম গম্ভীরও এই তালিকায় শামিল রয়েছেন যাদের দাদা এত বড়ো খেলোয়াড় তৈরি করেছেন। তিনি রাহুল দ্রাবিড়কে দিয়ে উইকেটকিপিং করিয়েছেন। দ্রাবিড় ওয়ানডে ক্রিকেটে ১০ হাজার রান করেছেন”।

সেহবাগকে এত বড়ো খেলোয়াড় তৈরি করতে দাদার অধিনায়কত্ব নিয়ে বিস্তারে জানাতে গিয়ে মনিন্দর বলেছেন,

“সেহবাগ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান, উনি (দাদা) ওকে দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওপেনিং করান। সেহবাগ ওপেনিং নিয়ে দাদাকে কী বলে থাকবেন, ‘যদি আমি রান না করতে পারি, তখন গাঙ্গুলী তাকে বলেন, আমি তোমাকে দক্ষিণ আফ্রিকায় এই টেস্ট করতে দেব, যদি তুমি অসফল হও তো আমি তোমাকে গ্যারান্টি দিচ্ছ যে তুমি বাদ পড়বে না। এরপর আমি আবারো তোমাকে মিডল অর্ডারে সুযোগ দেব। একজন অধিনায়ক এমনই হন”।

প্রতিভা চিনতে অদ্বিতীয় ছিলেন দাদা

কপিলদেব, ধোনি আর গাঙ্গুলীর মধ্যে কে সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়ক? এইপ্রাক্তন স্পিনার দিলেন জবাব 3

মনিন্দর বলেছেন যে ১৪৬টি ওয়ানডে আর ৪৯টি টেস্টে ভারতের অধিনায়কত্ব করা সৌরভ গাঙ্গুলী ভারতকে বীরেন্দ্র সেহবাগ, হরভজন সিং, জাহির খান আর যুবরাজ সিংয়ের মতো বেশকিছু ক্রিকেটারকে দিয়েছেন। মনিন্দর বলেছেন,

“আমি সম্ভবত নাম ভুলে গিয়ে থাকব, সেহবাগ, হরভজন, যুবরাজ, জাহির খান। আমার মনে হয় যে এটা সৌরভ গাঙ্গুলী ছিলেন যিনি জাহির খানকে কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে বলেছিলেন আর এরপর আমাদের কাছে একদম আলাদা জাহির খান ছিলেন। সতভাবে বললে আমার জন্য সৌরভ গাঙ্গুলী সর্বশ্রেষ্ঠ”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *