CWC19 — এমএসধোনির আউট হওয়ার বলটি ছিল নো বল, খারাপ অ্যাম্পায়ারিং নিয়ে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা

ইংল্যান্ড আর ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের আতিথেয়তায় চলতি আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯ এর প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচে ভারতীয় দল ১৮ রানে হেরে গিয়েছেল এই হারের সঙ্গেই ভারতীয় দলকে নিরাশাজনকভাবে খেতাবি লড়াই থেকে ছিটকে যেতে হয়। ভারতীয় দল এই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করেন কিন্তু জয় থেকেই দূরে থেমে যেতে হয় তাদের।

ধোনি জাদেজার চেষ্টা হয় বেকার

ভারত জয়ের জন্য ২৪০ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল যার জবাবে ভীষণই লজ্জাজনক শুরু পরে মহেন্দ্র সিং ধোনি আর রবীন্দ্র জাদেজার গুরুত্বপূর্ণ পার্টনারশিপ ভারতকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনে।

CWC19 — এমএসধোনির আউট হওয়ার বলটি ছিল নো বল, খারাপ অ্যাম্পায়ারিং নিয়ে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা 1

মনে হতে শুরু করে যে ভারতীয় দলকে এই দুই ব্যাটসম্যান জয় এনে দিতে পারেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয়ের চৌকাঠে পৌঁছেও ভারতীয় দল জয় হাসিল করতে পারেনি। জাদেজা ৭৭ আর ধোনি ৫০ রানের ইনিংস খেলেন।

ধোনির আউট হওয়া বল নিয়ে হয় এক নতুন বিতর্কের জন্ম

ম্যাচে তো ধোনির আউট হওয়ার সঙ্গেই ভারতীয় দলের জয়ের সম্ভাবনাও শেষ হয়ে গিয়েছিল আর নিউজিল্যাণ্ড এই ম্যাচ ১৮ রানে জিততে সফল হয় কিন্তু ধোনির আউট হওয়া বলটি নিয়ে এক নতুন বিতর্ক খাড়া হয়ে গিয়েছে।

CWC19 — এমএসধোনির আউট হওয়ার বলটি ছিল নো বল, খারাপ অ্যাম্পায়ারিং নিয়ে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা 2

মহেন্দ্র সিং ধোনি সেই সময় আউট হয়ে যান যখন ভারতীয় দলের ১০ বলে ২৫ রানের দরকার ছিল, কিন্তু যে বলে ধোনি রান আউট হন সেই বলটি নো বল দেওয়া উচিত ছিল কিন্তু খারাপ অ্যাম্পায়ারিংয়ের কারণে এমনটা হয়নি।

ধোনির আউট হওয়া বলটি ছিল নো বল, ৩০ গজের বাইরে ছিল ৬জন ফিল্ডার

আসলে ভারতের ইনিংসের ৪৯তম ওভারে তৃতীয় বলে নিউজিল্যাণ্ডের ৬জন ফিল্ডার ৩০ গজ বৃত্তের বাইরে ছিল কিন্তু নিয়মের হিসেবে পাঁচ ফিল্ডারই বাইরে থাকতে পারে, এই অবস্থায় এই বলটিকে নো বল দেওয়া উচিত ছিল।

এমনিতে তো নো বলে রান আউট দেওয়া হয় কিন্তু যদি অ্যাম্পায়ার ওই বলকে নো ডাকতেন তো সম্ভবতই ধোনি রান নেওয়ার চেষ্টা করতেন না আর পরের বলটি ফ্রি হিট হওয়ার তার ফায়দা নেওয়ার চেষ্টা করতেন। কিন্তু অ্যাম্পায়ারিংয়ের খারাপ স্তরে এমনটা হয়নি আর ধোনি নো বলে আউট হন। নো বল না দেওয়ায় ভারতীয় সমর্থকরা ভীষণই নিরাশ আর তারা টুইটারে কিছু এইভাবে ওই খারাপ অ্যাম্পায়ারিং নিয়ে সমালোচনা করছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *