DCvsCSK: মহেন্দ্র সিং ধোনি ফাইনালে পৌঁছনোর পর এদের দিলেন সফলতার শ্রেয় 1

আইপিএল ২০১৯এর দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে চেন্নাই সুপার কিংসে মুখোমুখি হয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। চেন্নাইয়ের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এই ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রথমে ব্যাটিং করে দিল্লির দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪৭ রান করে। জবাবে ৬ বল বাকি থাকতেই সিএসকে জয় হাসিল করে নেয়। এখন আগামি ১২ মে ফাইনাল ম্যাচে সিএসকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হবে।

শুরুতে রান করা মুশকিল

DCvsCSK: মহেন্দ্র সিং ধোনি ফাইনালে পৌঁছনোর পর এদের দিলেন সফলতার শ্রেয় 2

দিল্লি ক্যাপিটালসকে তাদের ওপেনাররা লাগাতার ভাল শুরু পাইয়ে দিয়েছেন কিন্তু এই ম্যাচে এমনটা হয়নি। জয়ের পর চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি মেনে নেন যে শুরুতে রান করা মুশকিল ছিল। তিনি বলেন,

“এটা সামান্য রুট, গত বছর একটা অপবাদ ছিল। ছেলেরা যেধরণের প্রতিক্রিয়া দিয়েছে সেটা দুর্দান্ত ছিল। আপনি রান করার জন্য যাবেন, কিছু ক্যাচ মিস হবে, কিন্তু মজবুত প্রত্যাবর্তন করা জরুরী। ১৪০+ এর স্কোরের তাড়া করার জন্য আমরা যেভাবে ব্যাটিং করেছি তা বাস্তবে ভাল ছিল। এটাই কারণ যে ৭:৩০ এ ম্যাচ শুরু হয়, পিচ শুরুতে সামান্য মুশকিল ছিল। স্পিনাররা সাহায্য পাচ্ছিলার এই কারণে রান করতে সমস্যা হচ্ছিল”।

দুর্দান্ত বোলিং হয়েছে

DCvsCSK: মহেন্দ্র সিং ধোনি ফাইনালে পৌঁছনোর পর এদের দিলেন সফলতার শ্রেয় 3

ফাইনালে পৌঁছনোর পর মহেন্দ্র সিং ধোনি নিজের বোলারদের জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। সিএসকের বোলাররা দিল্লি ক্যাপিটালসের মজবুত ব্যাটিং লাইন আপকে মাত্র ১৪৭ রানে আটকে দিয়েছে। যা নিয়ে অধিনায়ক ধোনি বলেন,

“বোলিংয়ে আমরা দুর্দান্ত প্রয়াস করেছি, আর বলকে সঠিক লাইনে রেখেছি, যাতে দিল্লি বড়ো স্কোর করতে পারেনি। ওদের ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের আউট করা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ওদের ব্যাটিং লাইনআপ মজবুত ছিল আর ওদের কাছে বেশ কিছু বাঁহাতি ব্যাটসম্যানও ছিল আর আমাদের কাছে ওদের আটকানোর জন্য বাঁ হাতি স্পিনার ছিল। মাঠ সামান্য ছোট ছিল, এই কারণে ওদের জন্য উইকেট হাসিল করতে থাকা জরুরী ছিল। উইকেটে সময় কাটানো গুরুত্বপূর্ণ ছিল কারণ নতুন ব্যাটসম্যানদের জন্য আসা সোজা বড়ো শট মারা মুশকিল ছিল”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *