চোট পেয়ে দীর্ঘ সময় দলের বাইরে, তাতেই চূড়ান্ত হতাশ কেকেআর-এর বিস্ফোরক ব্যাটসম্যানটি 1

ব্রেন্ডন ম্যাকালামের ঝোড়ো ১৫৮ রানের ইনিংসের সুবাদে প্রথম আইপিএলে সহজে বাকি দলগুলির সামনে নিজেদের আলাদাভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ঠিক সেভাবে এবারের আইপিএলেও নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ক্রিস লিনের বিস্ফোরক ৯৩ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে প্রতিপক্ষ দলগুলির কাছ থেকে সমীহ আদায় করে নেয় তারা। কিন্তু সেই লিন পরের ম্যাচে ফিল্ডিং করতে গিয়ে কাঁধে চোট পেয়ে দলের বাইরে চলে যাওয়ায় ক্রমে প্রতিযোগিতায় ফিকে হয়ে যায় নাইটদের সেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং ঝাঁঝ। তারপর থেকে চোটের কবলে পড়ে থাকা লিনকে আর দলে পায়নি কেকেআর। এখনও তিনি চিকিৎসাধীন। ট্রেনারদের পরামর্শে সম্প্রতি মাঠে নেমে এখন হালকা অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছেন লিন। কিন্তু কবে তিনি পুরোপুরি ফিট হয়ে মাঠে নামবেন, তা অবশ্য কারোরই জানা নেই। আর এটাই এখন ভিতর থেকে কুরে কুরে খাচ্ছে ক্রিস লিনকে। এমন পরিস্থিতিতে মাঠে ফেরার জন্য তিনি যেন আর কিছুতেই অপেক্ষা করতে পারছেন না।

দলে সুযোগ পাচ্ছিলেন না, তাই আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরলেন কেকেআর-এর এই ক্রিকেটারটি

নিজের মনের কোনে লুকিয়ে থাকা গভীর যন্ত্রণা প্রকাশ করে এদিন ক্রিস লিন সরাসরি বলে দেন, “যখন আমার ব্যাটে বল ঠিকঠাক আসছিল, যখন আমি সাবলীলভাবে দারুণ সব শট খেলতে পারছি, তখনই চোট পেয়ে মাঠের বাইরে বসে থাকাটা সত্যি আমার কাছে খুবই হতাশাজনক। আমার ধারণা, মাঠে আমি সেই ফিল্ডারের ভূমিকা পালন করতে পারি যাদের খুব বেশি খাটতে হয় না। আমার ফিল্ডিংয়ের জন্য যদি দলকে ভুগতে হয়, সেটা আমার খুব খারাপ লাগবে। আমি মনে করি এখনও ব্যাট হাতে দলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবো। পাশাপাশি রিংয়ের মধ্যে ভালো ফিল্ডিংটাও করে দিতে পারবো।”

উল্লেখ্য, গত দু’বছরে অস্ট্রেলিয়ার এই মারকুটে ব্যাটসম্যানটি মোট তিনবার কাঁধে চোট পেয়েছেন। মুম্বই ম্যাচে কাঁধে চোট পাওয়ার পর লিনের আইপিএলে খেলা একপ্রকার অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। যদিও গুজরাট ম্যাচে বিস্ফোরক ইনিংস খেলা এই অজি ব্যাটসম্যানটিকে পরবর্তী সময়ে যেভাবেই হোক দলে পেতে মরিয়া হয়ে ওঠে টিম কেকেআর। সূত্রের খবর, কাঁধের চোট সারিয়ে ওঠা লিনকে সম্ভবত আগামী ৯ই মে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বিরুদ্ধে মাঠে নামাতে পারেন গম্ভীররা।

কেকেআর দলে ফিরছেন এই অজি তারকা! চাঙ্গা শাহরুখের নাইট ব্রিগেড

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *